বুধবার, ১৩ নভেম্বর, ২০১৯
আক্কেল চাচার চিঠি (আঞ্চলিক ভাষায় লেখা)
মশার কয়েলের আগুনে পুইড়ে মল্লেন আমেনা চাচী
Published : Saturday, 12 January, 2019 at 6:02 AM
এক সুমায় ছিলো যকন সন্দে হলি মশা খেদাতি মাটির মালশায় নারকেলের ছুবড়ার মদ্দি ধুনো ছিটোয়ে কয়লা দিয়ে তামাম ঘর ঘুরোতো। সেই ধুমা আর ধুনোর গন্দে মশা ঘরেত্তে ছুইটে পলাতো। যারা পলাতি পাইত্তো না, সেই সব মশা মাতা ঘুইরে আড়ায় পড়তো। একন সে যুগ নেই। মশার উৎপাত যিরাম বাড়েচে তার চাইতে বহুতগুনি বাড়েচে মশার কয়েলের কারখানা। নামে বেনামে, লাইসেন নিয়ে, লাইসেন ছাড়া যে যেম্মি পাচ্চে য্যানে স্যানে গড়ে তোলচে মশার কয়েলের কারখানা। সাদা কালো গুলাপী নানা রঙের মশার কয়েল বাজারে পাওয়া যায়। মশা খেদাতি যাইয়ে ককনো ককনো অসাবধানতা ঘরের মদ্দি লেপ খ্যাতা খাটে আগুন লাইগে যাওয়ার খবর পিরায় শুনা যায়। কাল শুনলাম এক চাচী পুইড়ে মইরেই গেচে। ঘটনাডা খুবই দুক্কুজনক। এট্টুখানি অসাবধানে জীবন চইলে যাওয়া কোন কেরমে মাইনে নিয়া যায় না।
পিপারে পড়লাম, আমেনা বেগম (৭০) নামে এক চাচীর ঘরে মশা তাড়ানোর জন্যি সন্দেয় কয়েল জালায় দিলো বাড়ির লোকজন। স¹লি যে যার মতো ঘুমোয় পড়িল। হটাস আগুন আগুন জকার শুইনে মাঝ রাত্তিরি ঘুমোত্তে জাইগে উটে দেকে চাচীর ঘরে আগুন জ্বলতেচে। হুটোপাটা কইরে আগুন লিবোনোর চিস্টার মদ্দি চাচীরে উদ্দার কইরে হাসপাতালে নিয়া হয়। ততক্ষনে শরিলীর এক পাশ আগুনি পুইড়ে ঝলসায় গেচে। চাচীরে সদর হাসপাতালে ভত্তি করা হলি পরে ডাক্তার তারে দেইকে শুইনে মইরে গেচে কইয়ে দেয়। ঘটনাডা বিসসুদবার পঞ্চগড়ের পূব ইসলামবাগ এলেকায় ঘটেচে। আগুনি পুইড়ে মইরে যাওয়া আমেনা চাচী ওই এলেকার মৃত্যু মুজাম্মেল চাচার বউ। পরিবারের লোকজন জানায়েচে আমেনা চাচা ১০ বছর ধরে প্যারালাইস হইয়ে পড়–টে হইয়ে গিলেন। বুধবার রাত্তিরি বাড়ির একজন তার ঘরে কয়েল জালায় দিয়ে ঘুমাতি যান। গভীর রাত্তিরি হটাস আমেনা চাচীর ঘরে আগুন দেকতি পায় আশপাশের লোকজন। খবর পাইয়ে হাজির হয় গিয়ে পঞ্চগড় ফায়ার সার্ভিসির লোকজন। পরিবারের লোকজন আগুনি পুড়া অবস্থায় আমেনা চাচীরে উদ্ধার কইরে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ভত্তি করেন। সকালে চাচীর মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় পঞ্চগড় থানার এসআই শাহিনুজ্জামান শাহিন চাচা কইয়েচেন, শরীলির কম্বল বা চাদরে আগুন লেগে তার মৃত্যু হইয়েচে বিলে ধইরে নিয়া হচ্চে।
সাবদানের মার নেই। তাই যারা ঘুমোনোর আগে ঘরে মশার কয়েল জালায় ঘুমোন তারা কয়েলডা এট্টু নিরাপদ জাগায় রাকার জন্যি অনুরোদ কল্লাম।
শব্দার্থ
সন্দে = সন্ধ্যা, খেদাতি = তাড়াতে, মালশা = বাসন, লাইসেন = লাইসেন্স, পড়–টে = শয্যাশায়ী



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft