সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
আক্কেল চাচার চিঠি (আঞ্চলিক ভাষায় লেখা)
ভুয়ো হারবালে খ্যায় হইলো দুডো জীবন
Published : Tuesday, 5 February, 2019 at 6:20 AM
চারিদিকি ভুয়োর ছড়াছড়ি। এই ভুয়োর মিচিলি থাইমে নেই হারবাল কুম্পানীগুলোও। হরকোলি নানান নাম দিয়ে পিপারে বিজ্ঞাপন আর সারা জাগায় য্যানে ফাকা পাবে স্যানে পুস্টার লাগায়ে ছয়লাব কইরে দেয়। তাতে বিটা আর বিটিগের হ্যামন জটিল আর গোপন রোগের কতা ডাইরেট লিকা থাকে তা লোকের সুমকি পড়তি গেলি লজ্জায় মুকি কাপড় দিতি হয়। সেই ওষুদ খালি নাই টকাস কইরে ৬১ বচরের বুড়ো লোকও ঘুরে দাড়ায়ে ১৬তে চইলে আসে। আর পড়–টে লোক নাই বিশ্বঘাতি পাওয়োর পায়।
ভুয়োগের কচনে বাজার সয়লাব। ইরাম ওষুদ খাইয়ে গার বল না বাড়–ক, মনের বল বাড়লিও জানের বুজ দিয়া যাইতো। কিন্তুক হারবালের নামে আবাল তাবাল জিনুস দিয়ে বানানো ওষুদ খাইয়ে যদি মানসির জানই চইলে যায়, তালি সিডা মাইনে নিয়া যায় না।
পিপারে পড়লাম এট্টা দুক্কুজনক ঘটনা। কাশি রোগ সাত্তি বাজারেত্তে হারবালের সিরাপ কিনে খাইয়ে দুইজন মইরে গেচে, আরাকজন মরার পতে আগোয় যাচ্চে। কুষ্টিয়ার মিরপুরি হারবাল ওষুদ খাইয়ে এট্টা বাচ্চাসহ দুইজন মইরে গেচে বিলে চারিদিকে খবর রটেচে। রোববার রাত্তিরি উপজিলার বহলবাড়ীয়া ইউনিয়নের খাড়াড়া এলেকায় এ ঘটনা ঘটেচে। যারা মইরে গেচেন তারা হচ্চেন বহলবাড়ীয়া খাড়াড়া এলেকার পলান শেখের ছাবাল নুর মুহাম্মদ (৫০) এবং একই এলেকার নবাব আলীর মাইয়ে শামীমা (৯)। একই ওষুদ খাইয়ে নবাব আলী নামের আরাক জন হাসপাতালে চিকিসসে নেচ্চেন। এলেকাবাসী জানায়েচে, নবাব আলীর বাড়িতি রোববার রাত্তিরি টেলিভিশন দেখতি গিলো নুর মুহাম্মদ চাচা। এ সুমায় কাশির জন্যি নবাব আলী মেরী গোল্ড নামের হারবাল সিরাপ খাচ্চিলেন। এ সুমায় খুকখুক কইরে কাশতি থাকা নুর মুহাম্মদ ও নবাব আলীর মাইয়ে শামীমাও একই ওষুদ কয় মুটকি খাইলো। ওষুদ খাওয়ার পর রাত সাড়ে ১০টার দিকি শামীমা অসুস্থ হইয়ে পড়লি তারে ভেড়ামারা উপজিলা স্বাস্ত্য কমপেলেক্সে ভত্তি করা হয়।
ভেড়ামারা উপজিলা স্বাস্ত্য কমপেলেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাক্তার মিজানুর রহমান চাচা জানান, হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই মাইয়েডা মইরে গিলো। ওই দিকি ফাও ওষুদ খাইয়ে নুর মুহাম্মদ চাচাও বাড়ি ফিরে আড়ায় পড়িল। মাঝ রাত্তিরি নুর মুহাম্মদ চাচা অসুস্থ হয়ে পড়লি তারে কুষ্টিয়া জিনারেল হাসপাতালে নিয়ার সুমায় পথের মদ্দিই তিনিও মইরে যান। এছাড়া মদ্দিরাত্তিরি শামীমার বাপ নবাব আলী চাচাও অসুস্থ হলি তারে পেত্তমে ভেড়ামারা উপজিলা স্বাস্ত্য কমপেলেক্সে আর পরে কুষ্টিয়া জিনারেল হাসপাতালে ভত্তি করা হয়েচে। তারও যায় যায় অবস্তা। মিরপুর থানার ভারপিরাপ্ত কম্মকত্তা (ওসি) আবুল কালাম চাচা ঘটনা স্বীকার কইরে নিয়ে কইয়েচেন পুলিশ মরাদেহ দুডো উদ্ধার করেচে। ভেড়ামারা উপজিলার মেরী গোল্ড নামের ওই হারবাল কারখানায় অভিযান চালানোর বিষয়টি পোক্রিয়াধীন রইয়েচে বিলে তিনি জানায়েচেন।
ওষুদির নামে বিষ খাওয়ায়ে মানুস মারার ইরাম ফন্দি একনি বন্দ কত্তি হবে। তা না হলি আরো বড় দূরঘটনা ঘইটে যাতি পারে।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft