সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
আক্কেল চাচার চিঠি (আঞ্চলিক ভাষায় লেখা)
দাওয়োত না করায় হামলা ! আলাম কনে, মলাম যে !
Published : Sunday, 24 February, 2019 at 6:54 AM
এক মুদি দুকানের মালিক আর তার কম্মচারীর মদ্দি কতা হচ্চে। মালিক জানতি চালে ডিমির ঝাকা খালি দেকতেচি দশটা পচা ডিম ছিলো কনে গ্যালো ? কম্মচারী কচ্চে  দাম এট্টু কুমায় কইলাম তাই সব কয়ডা ডিম পুব পাড়ার লিয়াকত চা নিয়ে গেচে। মালিক আবার কচ্চে সে না গ্যালো কিন্তুক যে পাচ কেজি আটার প্যাকেট ইন্দুরি ফুটো কইরে খাইলো আর তেলাপুকা তার মদ্দি বাসা গাড়িল সে প্যাকেট কয়ডাও তো দেকতেচি নে। সে গুলো কনে গ্যালো? কম্মচারী কচ্চে ওগুলোই লিয়াকত চা নিয়ে গেচে। আর নষ্ট হওয়া সেমোইগুলে? কম্মচারী কচ্চে ও গুলোও লিয়াকত চা নিয়ে নিয়ে গিলো। সব মিলোয়ে দামের পরেত্তে এট্টু কুমায় দিলাম। দাম কম পাইয়ে খুশিতি আটখান হইয়ে খতেই ভইরে সব পচা মাল কিনে নিয়ে গেচে। এই কতা শুইনে মালিকির মুক পুইড়ে চুন আর সুমানে ঘামতি শুরু কইরেচে। তাই দেকে কম্মচারী মালিকরে কচ্চে ম্যা’ভাই কি হইলো আপনার? ঘামতিচেন ক্যান পিসার কি হাই হইয়ে গ্যালো? মালিক কচ্চে হারামজাদা আমারে তুই মারার জুগাড় কইরে কচ্চিস কি হইলো? এ কতা শুইনে কম্মচারী কচ্চে আমি আবার আপনার কি কল্লাম। আপনিই তো কয়দিন ধইরে কচ্চিলেন পচা বাসী মাল গুলো বুদ্দি কইরে কাটিত কত্তি। সুযোগ বুইজে লিয়াকত চা’রে গচায় দিয়ে আপনার পুজি বাচায় দিলাম তাও আমারে বকতেচেন? মালিক কচ্চে, ওরে হারামজাদা যাইচে লিয়াকতের বাড়ি দাওয়োত নিলাম। এই মাত্তর বাড়ির সবাইরে নিয়ে ওর বাড়িত্তে দাওয়োত খাইয়ে আসলাম। আমার মালতো ও আমারেই গছায় দেচে। সেমোই রুটি আয়েশ কইরে খাইলাম। একনতো সে কতা মনে উটতি গা গুলায় আসতেচে। যাইচে দাওয়োত খাওয়ার লোক পিরায় সব জাগায় কম বেশী আচে। তেবে অনেকে খানেয়ালা আচে তারা খাওয়া দাওয়াডারে আমোদের জিনুস মনে করে। তেবে যাইচে পড়ে দাওয়োত নিয়ে খাওয়া এক জিনুস আর জোর জবরদস্তি কইরে খাওয়া আরাক জিনুস। তেবে কালকে পিপারে পড়লাম আরাক আনকা খবর। দাওয়োত করিনি বিলে মুস্তান নিয়ে যাইয়ে বাড়ি ঘরদোর ভাঙচুর কইরেচে। তাও এট্টা বাড়ি না কমেরপক্কে ১০টা বাড়ি হামলা কইরেচে খাওয়ার দাওয়োত না পাইয়ে। ঘটনাডা ঘটেচে আমাগের পাশের জিলা ঝিনেদার শৈকুপোয়। বিয়ের দাওয়োত না দিয়ায় শুক্কুরবার বিয়ানবেলায় উমেদপুর ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গিরামে এই ঘটনা ঘটেচে। লোকমুকি শুনা গেচে এলেকায় মাতুব্বরী নিয়ে গিরামের মেম্বার মুনায়েম আর কিবরিয়া নামের আরাকজনের মদ্দি ম্যালাদিন ধইরে গ্যাঞ্জাম চইলে আসতিলো। শুক্কুরবার কিবরিয়া চাচা আশসুকি যাচ্চিল বিয়ে কত্তি। বিয়ের বরযাত্তীরিতি কেন মেম্বার আর গুনাগুষ্টিগের দাওয়োত দিয়া হইলো না সিডার অজুহাত বিয়ের বর কিবরিয়াসহ বরযাত্তীরগের দাবড়ায়েচে মুনায়েম গুরুপের লোকজন। শুদু দাবড়া দাবড়িতিই ক্ষ্যান্ত হয়নি যাগের দাবড়ায়ে ধত্তি পাইরেচে তাগের সুমানে কচাপড়া দেচে আর যাগের ধত্তি পারিনি তাগের ১০ জনের বাড়ি হামলা কইরে বাইড়োয়ে ভাইঙে দেচে। খবর দিয়ে পুলিশ না আনলি ক্ষেতি আরো বাড়তো। কি জামেনা চইলো আইসলো কও দিনি বাপু ! দাওয়োত না কল্লিও মার গুতোন খাতি হচ্চে।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft