রবিবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৯
সম্পাদকীয়
রমজানে দ্রব্যমূল্য যেন না বাড়ে
Published : Friday, 5 April, 2019 at 6:48 AM
নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য নাগালের মধ্যে রাখা সরকারের অন্যতম দায়িত্ব। সেই তাগিদ থেকেই বেসরকারি বিনিয়োগকারী ও ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমি সকলের প্রতি অনুরোধ করবো, রোজায় যেন কোনো নিত্যপণ্য ও খাদ্যদ্রব্যের সমস্যা না হয়।
৩ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বিভিন্ন অর্থনৈতিক কর্মকা- উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সূচনা বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। মেঘনা অর্থনৈতিক অঞ্চলের বিনিয়োগকারীকের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আপনাদের কাছে একটা আহ্বান, সামনে রোজায় চিনির যেন সমস্যা না হয়, তেলের যাতে সমস্যা না হয়, সেটা একটু দেখবেন। প্রধানমন্ত্রীর এই নির্দেশনা বাস্তবে দেখা যাক সেটিই কাম্য।
রমজান আসতে আর বেশি দেরি নেই। মানুষজন এমনিতেই নানা সংকটে আছে। তারওপর হঠাৎ দ্রব্যমূল্য বেড়ে গেলে সেটা ‘মরার ওপর খাড়ার ঘা’ হিসেবেই দেখা দেয়। পণ্যের চাহিদা ও সরবরাহ যদি ঠিক রাখা যায় তাহলে মুনাফালোভী সিন্ডিকেট খুব একটা সুবিধা করতে পারে না।
এ জন্য টিসিবিকে কার্যকর করে একটি প্যারালাল সরবরাহ ব্যবস্থা চালু করার কথা বার বার বলা হলেও কাজের কাজ খুব একটা হয়নি। এ জন্য সিন্ডিকেট চক্রের পোয়াবারো। তারা যে কোনো উসিলায় যে কোনো পণ্যের দাম বাড়িয়ে দিচ্ছে। সামনে রমজান মাস। এ সময় বিশেষ কিছু পণ্যের চাহিদা বেড়ে যায়। তাই আগে থেকেই প্রস্তুতি রাখতে হবে যেন রমজানে এসব পণ্যের সরবরাগে ঘাটতি না থাকে। আর দামও থাকে মানুষজনের নাগালের মধ্যে।
রমজানে নানামুখী অপতৎপরতা দেখা যায়। দাম বেড়ে যায় বিশেষ বিশেষ পণ্যের। পণ্য পরিবহনেও নানা সমস্যা দেখা যায়। পুলিশের বিরুদ্ধেও অভিযোগ রয়েছে পণ্যবাহী ট্রাকে চাঁদাবাজির। পুলিশের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ নতুন নয়। কিছুসংখ্যক পুলিশের এই অসাধু কাজের জন্য গোটা পুলিশ বাহিনী সমালোচিত হয়। তাই দুষ্টের দমন করতে হবে। এছাড়া পণ্যে চাঁদাবাজির মাশুল কিন্তু শেষ পর্যন্ত ভোক্তাদেরই দিতে হবে।
অন্যদিকে সিন্ডিকেট ধারীরা ওঁৎ পেতে থাকে বিশেষ মৌসুমের সুযোগ নেওয়ার জন্য। তারা যাতে সেই সুযোগ নিতে না পারে এ জন্য বাজার মনিটরিং জোরদার করতে হবে। সিন্ডিকেট চক্রের বিরুদ্ধে নিতে হবে কঠোর শাস্তিমূলক ব্যবস্থা। তাছাড়া বাজারে টিসিবির মাধ্যমে পণ্যের সরবরাহও ঠিক রাখতে হবে। ব্যবসায়ীদের মুনাফালোভী মানসিকতা ত্যাগ করতে হবে। নীতিনৈতিকতা বিসর্জন দিয়ে শুধু মুনাফার লোভ কিছুতেই কাম্য হতে পারে না। এক্ষেত্রে সরকার, ব্যবসায়ীমহলসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে ভোক্তাস্বার্থ রক্ষায় এগিয়ে আসতে হবে।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft