বৃহস্পতিবার, ০৯ জুলাই, ২০২০
বিনোদন সংবাদ
টেলি সামাদের সংক্ষিপ্ত জীবনী
বিনোদন ডেস্ক :
Published : Saturday, 6 April, 2019 at 5:09 PM
টেলি সামাদের সংক্ষিপ্ত জীবনীআবদুস সামাদ যিনি টেলি সামাদ নামেই অধিক পরিচিত (৮ জানুয়ারি ১৯৪৫ - ৬ এপ্রিল ২০১৯) ছিলেন বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের শক্তিশালী ও জনপ্রিয় কৌতুক অভিনেতা।
আজ শনিবার দুপুরে রাজধানরীর স্কয়ার হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন। খবরটি জানিয়েছেন তার মেয়ে সোহেলা সামাদ কাকলী।
টেলি সামাদের ব্যক্তিগত জীবন
টেলিসামাদ ১৯৪৫ সালের ৮ জানুয়ারি মুন্সীগঞ্জের (তৎকালীন বিক্রমপুর) সিরাজদিখান উপজেলার নয়াগাঁও গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা থেকে উচ্চতর শিক্ষা গ্রহণ করেন। তার বড় ভাই চারুশিল্পী আব্দুল হাই।
চলচ্চিত্র জীবন
১৯৭৩ সালে ‘কার বউ’ চলচ্চিত্রে কৌতুকাভিনয়ের মাধ্যমে চলচ্চিত্র জগতে প্রবেশ করেন। নয়নমনি ও ‘পায়ে চলার পথ’-এর মত চলচ্চিত্রের মাধ্যমে দর্শকপ্রিয়তা লাভ করেন। ‘মনা পাগলা’ চলচ্চিত্রে সঙ্গীত পরিচালনার পাশাপাশি ৫০টির মত চলচ্চিত্রের গানে কণ্ঠ দেন। অভিনয়জীবনে চার দশকে ৬০০’র মত চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন।
বাংলাদেশ টেলিভিশনের ক্যামেরাম্যান মোস্তফা মামুন তার ডাক নাম দিয়েছিলেন টেলিসামাদ। তারপর থেকে তিনি এ নামেই পরিচিত হন। ২০১৫ সালে তার অভিনীত সর্বশেষ চলচ্চিত্র জিরো ডিগ্রী মুক্তি পায়।
মৃত্যু
টেলি সামাদের মেয়ে কাকলী জানান, দীর্ঘদিন ধরেই নানা অসুখে ভুগছিলেন বরেণ্য এই অভিনেতা। সম্প্রতি শরীর বেশি খারাপ হলে তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। এখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৬ এপ্রিল তার মৃত্যু হয়েছে।
টেলি সামাদের খাদ্য নালীতে সমস্যা রয়েছে। তার বুকে ইনফেকশন ছিল, ডায়াবেটিস ছিল। রক্তের প্লাটিলেটও কমে যাচ্ছিলো বলে জানা গিয়েছিলো। গেল বছরের ৪ ডিসেম্বর অসুস্থ হয়ে স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন টেলি সামাদ।
সেখানে ১৬ দিন চিকিৎসা নেওয়া পর বাসায় ফিরে আবার অসুস্থ হয়ে পড়েন চলচ্চিত্রের এক সময়কার দাপুটে অভিনেতা। সেজন্য তাকে গত ১৯ ডিসেম্বর রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। সে যাত্রাতেও সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেন তিনি।
কিন্তু হঠাৎ করেই কয়েকদিন আগে আবারও অসুস্থ হয়ে পড়েন টেলি সামাদ। পরে তাকে স্কয়ার হাসপাতালে আনা হয়। এখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় জীবনের অবসান হলো তার।
এর আগে ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় অভিনেতা টেলি সামাদকে এর আগে ২০১৭ সালে যুক্তরাষ্ট্রে বাইপাস সার্জারি করা হয়। এছাড়া গত বছরের ২০ অক্টোবর তার বাঁ পায়ের বৃদ্ধাঙ্গুলিতেও জরুরি অস্ত্রোপচার করা হয়েছিল।
জনপ্রিয় এই অভিনেতার মৃত্যুতে চলচ্চিত্রসহ সংস্কৃতি অঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
টেলি সামাদের জনপ্রিয় যত সিনেমা
জিরো ডিগ্রী (২০১৫)
কুমারী মা (২০১৩)
সাথী হারা নাগিন (২০১১)
মায়ের চোখ (২০১০)
আমার স্বপ্ন আমার সংসার (২০১০)
রিকসাওয়ালার ছেলে (২০১০)
মন বসে না পড়ার টেবিলে (২০০৯)
কাজের মানুষ (২০০৯)
মায়ের হাতে বেহেস্তের চাবি (২০০৯)
কে আমি (২০০৯) - হাশেম
কেয়ামত থেকে কেয়ামত (১৯৯৩)
মিস লোলিতা (১৯৮৫)
নতুন বউ (১৯৮৩)
মাটির ঘর (১৯৭৯)
নাগরদোলা (১৯৭৯)
গোলাপী এখন ট্রেনে (১৯৭৮) - বঙ্গা
অশিক্ষিত (১৯৭৮) - কালা
জয় পরাজয় (১৯৭৬)
গুন্ডা (১৯৭৬) - জব্বার
সুজন সখী (১৯৭৫) - বগা
চাষীর মেয়ে (১৯৭৫)
রঙিন রূপবান
ভাত দে



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft