বুধবার, ১৩ নভেম্বর, ২০১৯
ক্রীড়া সংবাদ
আবাহনীকে হারিয়ে শীর্ষে রূপগঞ্জ
ক্রীড়া ডেস্ক :
Published : Sunday, 7 April, 2019 at 8:25 PM
আবাহনীকে হারিয়ে শীর্ষে রূপগঞ্জআবাহনী লিমিটেডের জয়যাত্রা থামিয়ে ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের শীর্ষে উঠেছে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ। রবিবার মিরপুরে ১৩৯ বল হাতে রেখে ৬ উইকেট জিতেছে তারা।
দুই ম্যাচ হারের পর জয়ে ফিরেছে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। ৮৮ বল হাতে রেখে ৫ উইকেটে তারা জিতেছে বিকেএসপির বিপক্ষে।
উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাবের বিপক্ষে ৫ উইকেটে জিতেছে প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাব। ৭১ বল বাকি থাকতে জিতেছে তারা।
রূপগঞ্জ-আবাহনী
টানা পঞ্চম জয়ের লক্ষ্যে রূপগঞ্জের মুখোমুখি হয়েছিল আবাহনী। টস জিতে ফিল্ডিং নিয়ে শুভাশীষ রায়ের দুর্দান্ত বোলিংয়ে উইকেট উৎসবের শুরু হয় রূপগঞ্জের। ৩৯.১ ওভারে ১২২ রানে আবাহনীকে গুটিয়ে দেয় তারা। এরপর ২৬.৫ ওভারে ৪ উইকেটে ১২৫ রান করলে তাদের জয় নিশ্চিত হয়।
১০ ম্যাচ শেষে নবম জয়ে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে আবাহনীকে পেছনে ফেলেছে রূপগঞ্জ। আর দ্বিতীয় হারে দুই পয়েন্টে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় স্থানে নেমেছে আবাহনী (১৬)।
শুভাশীষ প্রথম বলে জহুরুল ইসলামকে খালি হাতে ফেরান। পরের ওভারে এই ডানহাতি পেসার আউট করেন নাজমুল হোসেন শান্তকে। তৃতীয় উইকেটও ৩০ বছর বয়সী পেসারের। ১৪ রানে আউট হন সৌম্য সরকার।
দলীয় ২৯ রানের মধ্যে আরও দুটি উইকেট হারায় আবাহনী। এরপরই মোহাম্মদ মিঠুন ও মোসাদ্দেক হোসেনের ৪৩ রানের জুটি প্রতিরোধ গড়ে। ৩৮ রানে মিঠুন বিদায় নেওয়ার পর আবার শুরু হয় তাদের ব্যাটিং বিপর্যয়। মোসাদ্দেক সর্বোচ্চ ৪০ রানে অপরাজিত ছিলেন।
৮ ওভারে ৩৭ রান দিয়ে শুভাশীষ সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেন। এছাড়া নাবিল সামাদ ও মোহাম্মদ শহীদ দুটি করে উইকেট পান।
জবাবে মোহাম্মদ নাঈম ও মেহেদী মারুফের ৬২ রানের উদ্বোধনী জুটিতে দারুণ শুরু করে রূপগঞ্জ। নাঈম ২২ রানে আউট হন। মেহেদীর সঙ্গে ৪৫ রানের জুটি গড়ে বিদায় নেন মুমিনুল (১৭)। তার বিদায়ের পর চার রানের ব্যবধানে আরও দুটি উইকেট হারায় রূপগঞ্জ। মারুফ ইনিংস সেরা ৫৯ রান করেন।
নাঈম ইসলাম ৩ ও শাহরিয়ার নাফীস ১২ রানে অপরাজিত ছিলেন। ম্যাচসেরা হয়েছেন শুভাশীষ।
শেখ জামাল-বিকেএসপি
সাভারে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে সুবিধা করতে পারেনি বিকেএসপির ব্যাটসম্যানরা। ৪২.১ ওভারে ১৬১ রানে তাদের অলআউট করে শেখ জামাল। এরপর ৩৫.২ ওভারে ৫ উইকেটে ১৬৫ রান করে ধানমন্ডি ক্লাব।
১০ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচ নম্বরে উঠে গেছে শেখ জামাল। ৫ পয়েন্ট নিয়ে নবম বিকেএসপি।
ইলিয়াস সানি, নাসির হোসেন, মোহাম্মদ এনামুল ও তাইজুল ইসলামের স্পিনে ভরাডুবি হয় বিকেএসপির ব্যাটিং লাইনে। ইনিংস সেরা ৪৩ রান আসে অধিনায়ক আকবর আলীর ব্যাটে। আমিনুল ইসলাম দ্বিতীয় সেরা ২৯ রান করেন।
১১৪ রানে ৫ উইকেট হারায় বিকেএসপি। আর তারপর ৪০ রানের ব্যবধানে শেষ ৫ ব্যাটসম্যান মাঠ ছাড়েন।
সানি ও নাসির সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেন। এনামুলের সমান দুটি উইকেট পান তাইজুল।
দারুণ বোলিংয়ের পর ব্যাট হাতেও অবদান রাখেন সানি। শেখ জামালের দ্বিতীয় সেরা ৩২ রান আসে তার ব্যাটে। ৪৩ রানের সর্বোচ্চ ইনিংস খেলেন এপি মজুমদার। অধিনায়ক নুরুল হাসান ২২ রানে অপরাজিত থেকে দলকে জেতান।
বিকেএসপির পক্ষে সুমন খান সর্বোচ্চ ২ উইকেট নেন। অলরাউন্ড পারফর্ম করে ম্যাচসেরা হন শেখ জামালের সানি।
উত্তরা-দোলেশ্বর
সাদ নাসিমের বোলিংয়ে মাত্র ১৬০ রানে অলআউট হয় উত্তরা। তাদের ইনিংস টিকে ছিল ৪৬.৪ ওভার। এরপর ৩৮.১ ওভারে ৫ উইকেটে ১৬১ রান করে দোলেশ্বর।
এই জয়ে ১০ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে দোলেশ্বর। মাত্র ৪ পয়েন্ট নিয়ে সবার শেষে উত্তরা।
উত্তরার পক্ষে মিনহাজুল আবেদীন সর্বোচ্চ ৩৬ রান করেন। এছাড়া ওপেনার তানজিদ হাসান করেন ২৬ রান।
নাসিম ১০ ওভারে ৪২ রান দিয়ে সর্বোচ্চ ৪ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা হন।
লক্ষ্যে নেমে ফরহাদ হোসেন ও মার্শাল আইয়ুবের ফিফটিতে সহজ জয় পায় দোলেশ্বর। ইনিংস সেরা পারফরম্যান্স করেন ফরহাদ, ৫৯ রান করেন তিনি। মার্শাল করেন ৫৪ রান।
উত্তরার পক্ষে সাজ্জাদ হোসেন সবচেয়ে বেশি ৩ উইকেট নেন।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft