বুধবার, ১৩ নভেম্বর, ২০১৯
জাতীয়
মিয়ানমারের ৩ জঙ্গির কারাদণ্ড
কাগজ ডেস্ক :
Published : Sunday, 28 April, 2019 at 8:28 PM
মিয়ানমারের ৩ জঙ্গির কারাদণ্ডরাজধানীর লালবাগ থানায় দায়ের করা বিস্ফোরক আইনের একটি মামলায় মিয়ানমারের তিন জঙ্গিকে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।
রোববার ঢাকার তৃতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ মো. রবিউল আলম এ রায় ঘোষণা করেন। রায়ে বলা হয়, ওই তিনজন আরএসও, জিআরসি, এআরইউ এবং ইসলামী জঙ্গি সংগঠনের সক্রিয় সদস্য। তারা আন্তর্জাতিক ইসলামী উগ্রপন্থী সংগঠনের সহায়তায় বাংলাদেশে নাশকতা করার জন্য একত্রিত হয়।
আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মোহাম্মদ সালাহ্উদ্দিন হাওলাদার সাংবাদিকদের জানান, দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন-,মো. নূর হোসেন ওরফে রফিকুল ইসলাম (৩০), ইয়াসির আরাফাত (২৬) ও ওমর করিম (২৯)। এদের মধ্যে ওমর করিম পলাতক। তিনি মিয়ানমারের আকিয়ার জেলার পাথরকিল্লাহ থানার পিফারাং গ্রামের মৃত আবুল বসরের ছেলে।
সালাহউদ্দিন আরো জানান, এ ছাড়া দণ্ডপ্রাপ্ত নূর হোসেন আকিয়াব জেলার আরাকান থানার দানেসপাড়ার মোহাম্মাদ হোসাইনের এবং ইয়াসির আরাফাত একই জেলার মন্ডু থানার হাসুরাধা গ্রামের হাবিবুর রহমানের ছেলে।
সালাহ উদ্দিন জানান, বিচারক আসামিদের ১০ বছর দণ্ডের পাশাপাশি প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড করেছেন। অর্থদণ্ডের টাকা দিতে ব্যর্থ হলে আরো ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।
মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, ২০১৪ সালের ৩০ নভেম্বর লালবাগ এলাকায় এতিমখানা রোডের ব্যাচেলর ব্যারাকের পশ্চিম পাশে বাউন্ডারি দেওয়াল সংলগ্ন ফুটপাত থেকে রাত সাড়ে ৯টার দিকে নূর হোসেন ও ইয়াসির গ্রেফতার হয় এবং ওমর করিমসহ চারজন পালিয়ে যায়। ওই সময় নূর হোসেন ও ইয়াসিরের সঙ্গে থাকা শপিং ব্যাগের ভেতর পটাশিয়াম ক্লোরাইড ও আর্সেনিক ডাই সালফাইড জাতীয় বিস্ফোরক উদ্ধার করে ডিবির বিস্ফোরক দ্রব্য উদ্ধার ও প্রতিরোধ টিম।
অভিযোগে আরও জানা যায়, আসামিরা মিয়ানমারের নাগরিক। তারা আরএসও (রোহিঙ্গা সলিডারিটি অর্গানাইজেশন), জিআরসি, এআরইউ এবং ইসলামি জঙ্গি সংগঠনের সক্রিয় সদস্য। আন্তর্জাতিক ইসলামি উগ্রপন্থী সংগঠনের সহায়তায় বাংলাদেশে নাশকতা করার জন্য একত্রিত হয় তারা। ওই ঘটনায় লালবাগ থানার পুলিশের (উপ-পরিদর্শক) এস এম রাইসুল ইসলাম বাদী হয়ে মামলা করেন।
২০১৫ সালের ৩ মার্চ গোয়েন্দা পুলিশের (উপ-পরিদর্শক) মো. আব্দুল কাদের মিয়া তিনজনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। ওই বছরের ১২ জুলাই অভিযোগ গঠন করেন আদালত। মামলাটির বিচারকালে বিভিন্ন সময়ে ৯ জনের জবানবন্দি গ্রহণ করেন আদালত।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft