শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৯
সারাদেশ
বাংলাদেশে অবৈধভাবে প্রবেশ করে অস্ত্রসহ ৪ ভারতীয় ধরা
কাগজ ডেস্ক :
Published : Saturday, 11 May, 2019 at 9:04 PM
বাংলাদেশে অবৈধভাবে প্রবেশ করে অস্ত্রসহ ৪ ভারতীয় ধরাব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলায় সীমান্তের কাঁটাতার পর হয়ে অবৈধভাবে বাংলাদেশে ঢুকে অস্ত্র ও গুলিসহ পুলিশের হাতে চার ভারতীয় নাগরিকসহ ছয়জন আটক হয়েছেন। শনিবার দুপুরে কসবা উপজেলার কুটি বাজার এলাকার একটি রেস্টুরেন্টে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।
আটকরা হলেন, ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের বিশালগড় জেলার নেতাজিনগর গ্রামের মৃত শ্যামল চন্দ্র দেবনাথের ছেলে স্বর্ণজিত দেবনাথ (২৩), উত্তর ত্রিপুরা জেলার ধর্মনগর গ্রামের রতি রঞ্জন চৌধুরীর ছেলে নির্মলেন্দু চৌধুরী (৩২), পশ্চিম ত্রিপুরা জেলার বাদারঘাট এলাকার সুনিল সরকারের ছেলে শংকর সরকার (৩১) একই জেলার রাজনগর এলাকার অবনি দাসের ছেলে বিমল দাস, বাংলাদেশের ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আখাউড়া উপজেলার বনগজ গ্রামের আহাম্মদ হোসেনের ছেলে আমজাদ হোসেন শাওন (২২) ও কসবা উপজেলার মান্দারপুর গ্রামের আবদুল মান্নানের ছেলে হাসিবুল হাসান অনিক (১৯)।
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার (কসবা সার্কেল) আব্দুল করিম বলেন, ওই চার ভারতীয় যুবক দুইদিন আগে কসবা উপজেলার মাদলা সীমান্তের কাঁটাতার দিয়ে অবৈধভাবে বাংলাদেশে ঢুকে। ওই চার যুবকসহ ছয়জন কসবায় অবৈধ অস্ত্র নিয়ে ঘুরাফেরা করছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে কুটি বাজারে অভিযান চালায় পুলিশ।
অভিযানে কুটি বাজারের মা প্লাজার আলিফ হোটেল অ্যান্ড রেস্টুরেন্ট থেকে চারজন ভারতীয় নাগরিক ও দুইজন বাংলাদেশের নাগরিককে আটক করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে একটি রিভলবার, চার রাউন্ড গুলি, দুইটি দেশীয় পাইপগান, দুইটি ওয়াকিটকি, চারটি মোবাইল ফোনসেটসহ মোটরসাইকেল চুরির যন্ত্রাংশ উদ্ধার করা হয়য়েছে। আটকদের বিরুদ্ধে অনুপ্রবেশ ও অস্ত্র মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও জানান পুলিশ কর্মকর্তা আব্দুল করিম।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft