সোমবার, ১৪ অক্টোবর, ২০১৯
বিনোদন সংবাদ
ভোট নয়, ‘কিডন্যাপ’ নিয়ে বেশি টেনশনে দেব!
বিনোদন ডেস্ক :
Published : Sunday, 19 May, 2019 at 1:03 PM
ভোট নয়, ‘কিডন্যাপ’ নিয়ে বেশি টেনশনে দেব!ভারতে লোকসভা নির্বাচন চলছে। এ নির্বাচনে প্রার্থী টালিউডের সেনশেসন হিরো ও সাংসদ দীপক অধিকারী দেব। দেব ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে ঘাটাল থেকে তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে জয়লাভ করেন। পাঁচ বছর পর আবারো সাংসদ প্রার্থী দেব। কিন্তু নির্বাচনে জয় পরাজয়ের চেয়ে তার বেশি চিন্তা টালি নায়িকা রুক্মিণীকে নিয়ে! আনন্দবাজারে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তেমনটাই জানালেন হালের এ হার্টথ্রব হিরো।
আগামী ৫ জুন মুক্তি পাচ্ছে রুক্মিণীর ‘কিডন্যাপ’ সিনেমা। তিনি নির্বাচনে ব্যস্ত থাকায় রুক্মিণী সিনেমার প্রমোশনের কাজ একাই সামলাচ্ছেন। তাই তাকে প্রশংসায় ভাসান দেব। বলেন, ‘আই অ্যাম ভেরি প্রাউড অব হার। ও যে ভাবে কাজ করছে, নিজেকে তৈরি করছে, প্রোমোশন করছে নিজে নিজে, ভাল লাগছে। আমি রেগে যাই, আমাকেও ঠান্ডা করে। কেউ এক জন সারা ক্ষণ লেগে আছে দেখে ভাল লাগছে। ২০১৯-এ আমি বলব, আমার দেখা ওয়ান অব দ্য বেস্ট অ্যাকট্রেস রুক্মিণী। যাকে দিয়ে যে কোনো রকম চরিত্র করানো যায়।
প্রথম বার নিজের প্রোডাকশনের বাইরে রুক্মিণীর সঙ্গে কাজ করা প্রসঙ্গে দেব বলেন,
স্ক্রিপ্টটা দারুণ লেগেছিল আমার। উওম্যান ট্র্যাফিকিং নিয়ে গল্প। সারা পৃথিবী জুড়ে এখন কনটেন্টের ওপর জোর দেওয়া হচ্ছে। এখানেও তাই। দুটো অরিজিনাল স্টোরি থেকে কাজ করেছি আমরা। লার্জার দ্যান লাইফ করার চেষ্টা করেছি। আমি লাস্ট চার-পাঁচ বছর ধরে কনটেন্টের পিছনে ছুটেছি। ‘কিডন্যাপ’ কনটেন্ট ওরিয়েন্টেড কমার্শিয়াল ফিল্ম। যেটার আজকের দিনে খুব অভাব।
এখন হাতের মধ্যে নেটফ্লিক্স, আমাজন দেখছে মানুষ। সেখানে মানুষকে সেই কনটেন্টটা দিতে হবে। এটা কমার্শিয়াল হতে পারে, কিন্তু কনটেন্টে জোর দিয়েছি। শুধু ছবি নয়। কালার প্যালেট নিয়ে ভেবেছি আমরা। কস্টিউম, সিন যতটা রিয়েলিস্টিক ফিল দেওয়া যেতে পারে, করেছি। ব্যাঙ্কক, দুবাই বা কলকাতার সেই সব রাস্তায় শুট করার চেষ্টা করেছি যেখানে উওম্যান ট্রাফিকিংয়ের খোঁজ পাওয়া গিয়েছে। এখন সবাই অ্যাহেড অব ফিল্ম দেখতে চাই। আমি যদি এখন ‘পাগলু’ নিয়ে আসি, সেটা হয়তো চলবে না। আমি নিজেই হয়তো দেখব না।
আমি প্রোডিউসার তো শুধু ছবি করব বলে হইনি। যেটা সাহস করে করবে না বাকিরা, সেটা করতে চাইছি। আর খুব বেশি টাকা কামানোর ইচ্ছে নেই আমার। আমি হ্যাপি।
‘ধুমকেতু’ সিনেমা কি রিলিজ করবে না?
আমি জানি না। রানা সরকারেরই খবর নেই। ওই তো মেন প্রোডিউসার। রানা সরকার যদি ছবি না দেয়, সবাইকে তো পেমেন্ট করতে হবেৃ। সেটা না হলে ছবি কী করে হবে? আমি কী করব?
ভোটের রেজাল্ট নিয়ে টেনশন আছে?
না। ভোট নিয়ে কোনও টেনশন নেই। আমি ‘কিডন্যাপ’ নিয়ে বেশি টেনশনে আছি। আমি আবারও বলছি, কিছু পেতে রাজনীতিতে আসিনি। আমি মানুষের জন্য ভাল কাজ করতে চাই। আর হেরে গেলেও আমি তো ছবি করবই। এটাও তো পাবলিক সার্ভিস। আমি যে কাজ করি, সেটাতেও অনেক লোকের সংসার চলে। বাংলা ইন্ডাস্ট্রিতে ‘দেব এন্টারটেনমেন্ট’ একটা জায়গা করতে পেরেছে। ফলে আমি না জিতলে কেরিয়ার শেষ হয়ে গেল এমন তো নয়। গত পাঁচ বছরে একটা লোকও বলতে পারবে না, দেব পলিটিক্যাল অ্যাডভান্টেজ নিয়েছে। পলিটিক্যাল পাওয়ার নিয়ে কোনও মানুষের ক্ষতি করেছে। রেজাল্টের আগে আমি ব্যাঙ্কক চলে যাব রেইকি করতে।
১৯ মে থেকে ২৩ মে পর্যন্ত চলবে লোকসভার শেষ দফার ভোট এবং ৫ জুন মুক্তি পেতে যাওয়া কিডন্যাপ ছবি- এ দুটোর জন্য শুভেচ্ছা জানান দেব।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft