বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
আন্তর্জাতিক সংবাদ
রাজীব গান্ধীকে মোদির শ্রদ্ধা
আন্তজার্তিক ডেস্ক :
Published : Tuesday, 21 May, 2019 at 8:13 PM
রাজীব গান্ধীকে মোদির শ্রদ্ধাভারতের প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধীর ২৮তম মৃত্যু বার্ষিকীতে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। মঙ্গলবার টুইট করে এই শ্রদ্ধা জানান মোদি।
এর আগে আইএনএস বিরাটের অপব্যবহারের অভিযোগ তুলে, নির্বাচনী প্রচারে রাজীব গান্ধীরই কড়া সমালোচনা করেন মোদি। যা নিয়ে চরমে ওঠে রাজনৈতিক বাক বিতণ্ডা। তাই নরেন্দ্র মোদির রাজীবকে শ্রদ্ধা জানানো নিয়ে কটাক্ষ করেছে বিরোধীদের একাংশ। তাদের মতে, নির্বাচনী প্রচারণায় যে ভাষায় প্রয়াত প্রধানমন্ত্রীকে আক্রমণ করেছেন মোদি, এদিনের শোকজ্ঞাপন সেই পাপেরই প্রায়শ্চিত্ত।
দিন কয়েক আগে উত্তরপ্রদেশের একটি নির্বাচনী প্রচারসভা থেকে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী রাজীবকে ‘এক নম্বর দুর্নীতিবাজ’ বলে কটাক্ষ করেছিলেন মোদি। তিনি অভিযোগ করে বলেছিলেন, রাজীব গান্ধী ভারতীয় নৌসেনার রণতরী আইএনএস বিরাটে চড়ে সপরিবারে লাক্ষাদ্বীপে ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন ৷ কিন্তু নরেন্দ্র মোদির এই দাবি উড়িয়ে দেন তৎকালীন নৌসেনার একাধিক শীর্ষ কর্মকর্তারা।
মোদির অস্বস্তি বাড়িয়ে প্রাক্তন নৌসেনা প্রধান অ্যাডমিরাল এল রামদাস জানান, গান্ধী পরিবারের ব্যক্তিগত ব্যবহারের জন্য কোনও যুদ্ধজাহাজ পাঠায়নি নৌসেনা। ছুটি কাটাতে নয়, ১৯৮৭-এর ডিসেম্বর মাসে আইএনএস বিরাটে চড়ে লাক্ষাদ্বীপ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠক করতে গিয়েছিলেন তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধী ও তার স্ত্রী সোনিয়া গান্ধী।
এমনকী, নরেন্দ্র মোদির এই অভিযোগ খারিজ করে দেন লাক্ষাদ্বীপের তৎকালীন প্রশাসক ওয়াজাহাত হাবিবুল্লাহ। তিনিও বলেন, ‘সেসময় রাজীব গান্ধী পারিবারিক ছুটি কাটাতে লাক্ষাদ্বীপে আসেননি। বরং তিনি এসেছিলেন সরকারি কাজে। তবে, তার সঙ্গে স্ত্রী সোনিয়া গান্ধী এবং পরিবারের অন্য সদস্যরা ছিলেন।’
হাবিবুল্লাহ’র দাবি, ‘আইএনএস বিরাটকেও ছুটি কাটাতে ব্যবহার করেননি রাজীব গান্ধী। বরং, যুদ্ধজাহাজটি রাখা হয়েছিল প্রধানমন্ত্রীর অতিরিক্ত নিরাপত্তার জন্য। যে কোনো প্রধানমন্ত্রীরই এই অতিরিক্ত নিরাপত্তা প্রয়োজন হয়। আর জলপথে তাদের নিরাপত্তা দিতে হলে যুদ্ধজাহাজ ছাড়া আর কোনও উপায় থাকে না।’ সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft