সোমবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৯
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
৪৮ বছর পর কেশবপুরে যুদ্ধাপরাধ মামলা
কাগজ সংবাদ :
Published : Wednesday, 29 May, 2019 at 6:57 AM
স্বাধীনতা যুদ্ধের ৪৮ বছর পর যশোরে দুইজনসহ অজ্ঞাত আরো ১০-১২ জনের নামে যুদ্ধাপরাধের মামলা হয়েছে। মঙ্গলবার পিতা হত্যা, ঘরবাড়ি লুটপাটের বিচার চেয়ে কেশবপুর উপজেলার পরচক্রা গ্রামের মৃত জশোর আলী মোল্যার ছেলে আব্দুর রাজ্জাক বাদী হয়ে এ মামলা করেছেন। মামলার আসামিরা হলেন, একই গ্রামের মৃত বেলায়েত আলীর ছেলে আজিজুর রহমান ও সৈয়দ আলীর ছেলে শামসুর রহমান। বিচারক মোহাম্মদ  সাইফুদ্দীন হোসাইন কেশবপুর থানাকে তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন।
মামলার অভিযোগে বাদী উল্লেখ করেছেন, আসামিরা স্বাধীনতা যুদ্ধকালীন বিরোধিতা করেছেন। একই সাথে পাক হানাদার বাহিনীর সাথে আঁতাত করে আসামি আজিজুর রহমানের নেতৃত্বে রাজাকার বাহিনী গঠন করেন। আজিজুর রহমান নিজে কমান্ডার হিসেবে কাজ করেছেন। সাধারণ মানুষদের ধরে নিয়ে হত্যা করতেন ও  তাদের বাড়ি ঘরে লুটপাট করতেন। বাদীর পিতা জশোর আলী মোল্যা বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উদ্বুদ্ধ হয়ে মুক্তিযোদ্ধাদের সহযোগিতা করতেন বলে ১৯৭১ সালের ১০ সেপ্টেম্বর ভোর ৫টার দিকে তাকে  বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে প্রথমে রাজাকার কমান্ডার আজিজুর রহমানের বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে নিয়ে শারীরিকভাবে নির্যাতন করে। একই সাথে তাদের  বাড়িতে লুটপাট ও ধানের গোলায় আগুন ধরিয়ে দেয়। পরে মঙ্গলকোট বাজারের পাশে ব্রিজের ওপর নিয়ে রাইফেল দিয়ে জশোর আলী মোল্যার বুকে গুলি করে হত্যার পর লাশ নদীতে ফেলে দেয়া হয়। এরপর আসামিরা জশোর আলী মোল্যার স্ত্রী সন্তানদের হত্যা করার হুমকি দেয়। প্রাণভয়ে  তারা যশোর সদর উপজেলার পতেঙ্গালী গ্রামে এসে বসবাস করতে থাকেন। এ বিষয়ে বিভিন্ন মহলে একাধিকবার বিচার দাবি করেও কোনো ফলাফল পায়নি তারা। মামলায় আসামি   আজিজুর রহমানের দু’ ছেলে পুলিশ অফিসার হওয়ায় বাদী পক্ষ ন্যায় বিচার দাবি করেও কোনো ফলাফল পায়নি বলে মামলায় উল্লেখ করেন। এমনকি এখনো বাদী পক্ষকে আসামিরা জীবননাশের হুমকি দিয়ে আসছে। 



আরও খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft