বুধবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৯
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
লোহাগড়ায় ৮১ বছরের বৃদ্ধা মাকে বের করে দিলো সন্তান
কাগজ ডেস্ক :
Published : Wednesday, 29 May, 2019 at 4:19 PM
লোহাগড়ায় ৮১ বছরের বৃদ্ধা মাকে বের করে দিলো সন্তাননড়াইলের লোহাগড়া পৌর এলাকায় মা শেফালী রায় (৮১)-কে অবসর প্রাপ্ত ব্যাংক কর্মকর্তা ছেলে শংকর রায় ও তার স্ত্রী কণা রায় বাড়ি থেকে বের করে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। শেফালী রায়ের শেষ আশ্রয়স্থল হয়েছে লোহাগড়া পৌর এলাকার পোদ্দারপাড়া সার্বজনীন মন্দিরে।
শেফালী রায় অভিযোগ করে বলেন, ছেলে ও ছেলের বৌ আমাকে প্রতিনিয়ত মারধর করে। ঠিক মত খেতেও দেয় না। ইচ্ছা ছিল স্বামীর ভিটায় বাকি জীবন কাটাবো। কিন্তু তারা আমাকে রাতেই ছাপ জানিয়ে দিয়েছে, ভোর না হতেই বাড়ি থেকে বের হয়ে যেতে হবে। তা না হলে মেরে ফেলবে।
তাই, মঙ্গলবার প্রাণ ভয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে এসে এই মন্দিরে আশ্রয় নেই। সকাল থেকে কেউ আমাকে দেখতে আসেনি। আমি আমার স্বামীর ভিটায় ফিরে যেতে চাই। এসব কথা বলতে বলতে কান্নায় ভেঙে পড়েন শেফালী।
জানা গেছে, লোহাগড়া পৌর এলাকার পোদ্দারপাড়া গ্রামের মৃত চিত্ত রঞ্জন রায়ের স্ত্রী শেফালী রায়। বৃদ্ধা তার স্বামীর রেখে যাওয়া ভিটে ঘরেই শেষ সময়টুকু থাকতে চান। বৃদ্ধার ২ ছেলে ও ৪ মেয়ে রয়েছে। বড় ছেলে শংকর রায়, কৃষি ব্যাংকের ব্যবস্থাপক ছিলেন। অপর ছেলে বিশ্বনাথ রায়, যশোরের ঢাকা রোডে মোটর পার্টস ব্যবসায়ী। স্ত্রী কৃষ্ণা রায় ও সন্তানদের নিয়ে যশোরে বাসা ভাড়া করে বসবাস করেন। মায়ের তেমন একটা দেখভাল তিনি করেন না।
শংকর রায় পিতার রেখে যাওয়া প্রায় অর্ধকোটি টাকার ভিটা জমির ওপর দ্বিতল ভবনে স্ত্রী সন্তান নিয়ে বসবাস করে আসছেন। মেয়ে মিনতী সাহা, কনিকা সাহা, মনিকা সাহা ও ছবি রাণী সাহা, সকলকেই ভাল পাত্রস্থ করেছেন চিত্ত রঞ্জন ও বৃদ্ধা শেফালী। সকলেই স্বামী-সন্তানদের নিয়ে ভালো থাকলেও বৃদ্ধা মায়ের দায়িত্ব কেউ নিতে চায় না।
পোদ্দারপাড়া মন্দিরে গণমাধ্যম কর্মীর উপস্থিতি টের পেয়ে অভিযুক্ত শংকর রায় সেখানে উপস্থিত হয়ে বলেন, মা রাগ করে বাড়ি থেকে এসে মন্দিরে আশ্রয় নিয়েছে। তিনি মাকে বাড়িতে নেওয়ার জন্য এসেছেন।
তবে নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয়রা অভিযোগ করেন, বৃদ্ধা শেফালী রায়কে তার ছেলে ও ছেলের বউ প্রতিনিয়ত শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করেন।
লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মোকাররম হোসেন বলেন, এমন কোন ঘটনার সংবাদ আমার জানা নেই।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft