শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারি, ২০২০
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
একযুগ পর ইফতারিতে দ্বিগুণ খাবার পাচ্ছেন যশোর কারাগারে ৯’শ বন্দি
শিমুল ভূইয়া :
Published : Thursday, 30 May, 2019 at 6:24 AM
যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারে অন্তত ৯’শ কারাবন্দি রয়েছেন যারা নিয়মিত রোজা পালন করছেন। এমন অনেক বন্দি রয়েছেন যারা কয়েক বছর যাবৎ এ কারাগারে আটক রয়েছেন। কিন্তু এবারের রমজানে এ কারাগারে অন্য বছরের তুলনায় ইফতারিতে ভিন্নতা এসেছে। প্রায় এক যুগ পর ইফতারিতে আগের চেয়ে দ্বিগুণ খাবার পাচ্ছেন প্রত্যেক কারাবন্দি। এছাড়া কারাগারে রোজাদারদের ৩০ টাকার বাইরেও অন্য সময়ে বন্দিদের জন্য নির্ধারিত সকালের নাস্তার অর্থও ইফতারিতে যোগ করছেন কারা কর্তৃপক্ষ।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, যশোরসহ দেশের ৬৮ কারাগারে আগে প্রত্যেক রোজাদার বন্দীর বিপরীতে ইফতারির জন্য ১৫ টাকা বরাদ্দ থাকলেও বর্তমান সরকার বন্দির কষ্ট লাঘবে ও রোজাদার কারবন্দিদের জন্য তা বাড়িয়ে ৩০ টাকা করেছে। সরকারের নির্দেশে পহেলা রমজান থেকে সব রোজাদার বন্দির জন্য এই নির্দেশ কার্যকর করেছে কারা কর্তৃপক্ষ।
যশোর কেন্দ্রীয় কারাগার সূত্র জানায়, ইফতারিতে খেজুর, কলা, লেবু, আপেল,  গুড়ের শরবত, পেঁয়াজু, আলুর চপ, বেগুনি, জিলাপি ও মুড়ি দেয়া হচ্ছে। কারাবন্দী রোজাদারদের সন্ধ্যার আগেই প্রতিটি ভবনের প্রতিটি কক্ষে কারা কর্মকর্তা কর্মচারীগণ ইফতারি পৌঁছে দিচ্ছেন। সূত্র জানায়, আগে ইফতারিতে একটি করে খেজুর দেয়া হতো বর্তমানে প্রত্যেক বন্দীকে ইফতারে একাধিক খেজুর দেয়া হচ্ছে। আগে কোন বন্দিকেই জিলাপি দেয়া না হলেও নতুন করে একটি করে জিলাপি দেয়া হচ্ছে।  এছাড়া শরবত হিসেবে লেবুর সঙ্গে গুড় মিশিয়ে তৈরি করা হচ্ছে সুসাধু ঠান্ডা শরবত। গরমে সুস্বাদু এ শরবত খেয়ে বন্দিরা প্রশান্তি অনুভব করছেন বলে জানা গেছে। বন্দির অধিক স্বাস্থ্য সুরক্ষার কথা চিন্তা করে বাধ্যতামূলক আপেল সংযোজন করা হয়েছে। এছাড়া আরো বেশ কিছু পণ্য রয়েছে যা দেয়া হচ্ছে নিয়মিত অথবা ক্রমান্নয়ে।
সম্প্রতি যশোর কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে মুক্তি পাওয়া আশরাফুল ইসলাম, সিকদার কবীর, আসলাম হোসেন, মহিদুল রহমান, ইফতেখার, রকিবুল আহসান, আমিনুল রহমান ও যশোর আদালতে মামলার হাজিরা দিতে আসা কাজল বিশ্বাস, সরাফত হোসেন, ইকবাল মুন্সি, বাবু তরফদারসহ অন্তত অর্ধশতাধিক রোজাদার বন্দিদের সাথে কথা বললে তারা জানান, সারাদিন রোজা থেকে ইফতারিতে ভালো আইটেম পেয়ে তারা আনন্দিত। একই সাথে সরকারের এ মহৎ উদ্যোগকে তারা সাধুবাদ জানান।
এ বিষয়ে যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলর আবু তালেব গ্রামের কাগজকে জানান, কারাগারে প্রতিদিন গড়ে ৯’শ কারাবন্দি নিয়মিত রোজা রাখছেন। এসব রোজাদারদের জন্য শুধু খাবার কিংবা ইফতারিতে বাড়তি সুবিধা দেওয়া হচ্ছে এমনটি নয়, অনেক ধরনের বিষয় তাদের জন্য শিথিল করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, ২০০৭ সালের আগে প্রতি বন্দির ইফতারের জন্য সরকারের মাত্র ১০ টাকা বরাদ্দ ছিল। এরপর তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে কারা সংস্কারের অংশ হিসেবে তা বাড়িয়ে ১৫ টাকা করা হয়। কিন্তু স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উক্ত আদেশে পরবর্তী ১০ বছরের মধ্যে ইফতারিতে আর কোন অর্থ বরাদ্দ বাড়ানো যাবে না বলে নির্দেশনা দেয়া হয়। ফলে ইচ্ছে আর চাহিদা থাকা সত্ত্বেও পূর্বমূল্যেই বন্দিদের ইফতারি সরবরাহ করতেন কারা কর্তৃপক্ষ। পরবর্তীতে কারা কর্তৃপক্ষ ২০১৮ সালে বন্দিদের ইফতারিতে অর্থ বরাদ্দ প্রয়োজনের তুলনায় অনেক কম অনুভব করায়, তা বাড়াতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে চিঠি প্রদান করে। এরপর কারা অধিদফতর থেকে চলতি বছর নতুন করে আবারও ইফতারিতে অর্থ বরাদ্দ দ্বিগুণ করতে প্রস্তাব দেয়া হয়।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft