মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর, ২০১৯
জাতীয়
জামিনযোগ্য মিথ্যা মামলায় মুক্তি পাচ্ছেন না খালেদা জিয়া : দুদু
কাগজ ডেস্ক :
Published : Saturday, 1 June, 2019 at 8:16 PM
জামিনযোগ্য মিথ্যা মামলায় মুক্তি পাচ্ছেন না খালেদা জিয়া : দুদুআন্দোলন-সংগ্রামের গৌরবময় অতীত ইতিহাস স্মরণ করিয়ে দিয়ে দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান ও কৃষকদলের আহ্বায়ক শামসুজ্জামান দুদু বলেছেন, ‘আমরা বলি সংগঠন করে আন্দোলন করবো, কিন্তু রাজনীতিতে সংগঠন করে আন্দোলন হয় না। বরং আন্দোলন করেই সংগঠন করতে হয়। তাই বলি আসুন আমরা রাস্তায় নামি। তখন দেখবেন কত লোক উপস্থিত হয়েছে আমাদের পাশে। চারপাশে লোকে লোকারণ্য হয়ে যাবে।’
তিনি বলেন, ‘গণতন্ত্র স্বপ্নে পাওয়ার মতো কোনও বিষয় না, এটা যুদ্ধ করে আন্দোলন করে আদায় করার মতো বিষয়। মহান মুক্তিযুদ্ধ ও এর পূর্বাপর বিভিন্ন সময় ইতিহাসে উজ্জ্বল উদাহরণ হয়ে আছে।’
শনিবার (১ জুন) বিকেলে রাজধানীর শিশুকল্যাণ মিলনায়তনে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৩৮তম শাহাদৎবার্ষিকী উপলক্ষে জিয়া নাগরিক ফোরাম (জিনাফ) আয়োজিত ইফতার ও দোয়া মাহফিলে তিনি এসব কথা বলেন।
শামসুজ্জামান দুদু বলেন, ‘অনেক চোর বাটপার হাইকোর্ট সুপ্রিম কোর্ট থেকে জামিনে মুক্তি পেলেও বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া জামিনযোগ্য মামলায় মুক্তি পাচ্ছেন না। অথচ বেগম খালেদা জিয়ার মতো আন্দোলনের নেত্রী বাংলাদেশ কেন দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়াতেও খুঁজে পাওয়া যাবে না।’
সরকার বেগম জিয়াকে তিলে তিলে মারার পরিকল্পনা করেছে অভিযোগ করে দুদু বলেন, ‘চোর বাটপার জামিনে মুক্তি পেলেও তিনবারের প্রধানমন্ত্রীকে তথাকথিত মামলায় আটকে রেখেছে শাসকগোষ্ঠী। ন্যায্য ও আইনগতভাবে তিনি মুক্তি পান। কিন্তু তা দেবে না বর্তমান অবৈধ সরকার। কারণ, খালেদা জিয়াকেই বর্তমান ‘ভোট ডাকাত’ সরকারের বেশি ভয়।’
জিয়াউর রহমানের রাজনৈতিক জীবন বর্ণনা করে ছাত্রদলের সাবেক এই সভাপতি বলেন, ‘শহীদ জিয়াউর রহমান এদেশের একজন বীর। গণতন্ত্রের সাধক ও অগ্রসৈনিক শহীদ জিয়াকে আড়াল করা হয়েছে গণতন্ত্রকে আড়াল করার জন্য। শহীদ জিয়া বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা করেছেন। গণতন্ত্রকে প্রতিষ্ঠা করেছেন। সততার মূর্ত প্রতীক ছিলেন তিনি।’
তিনি আরও বলেন, ‘মুখ্য বিষয় হচ্ছে শহীদ জিয়ার মত মানুষ বাংলাদেশে আর দ্বিতীয়টি নাই, আসবেও না হয়তো। শুধু বাংলাদেশ কেন, গোটা দক্ষিণ এশিয়াতেই নাই। তাঁর স্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া রাজনীতিতে ছিলেন না। যখন স্বৈরাশাসক প্রতিষ্ঠা হলো তখন দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করার জন্য রাজনীতিতে এসেছিলেন বেগম জিয়া। তাঁকে ঠেকানোর জন্য তার জনপ্রিয়তাকে ঠেকানোর জন্য তথাকথিত মামলায় বর্তমান সরকার তাকে জেলে বন্দি করে রেখেছে।’
তারেক রহমানের বিরুদ্ধে সরকার মিথ্যাচার করছে অভিযোগ করে দুদু বলেন, ‘গত ১৪ বছর ধরে আওয়ামী লীগ তারেক রহমানকে খুব খারাপ বলে আসছে। তাকে এত খারাপ বলে আসছে, অথছ তাকে দেশে আসতে দেয়া হচ্ছে না। অর্থাৎ জিয়া পরিবার মানেই গণতন্ত্র, জিয়া পরিবার মানেই স্বাধীনতা, জিয়া পরিবার মানে ন্যায়-নিষ্ঠার প্রতীক- এটা আজ স্পষ্ট। সেজন্য এই পরিবারকে ধ্বংস করাতেই বর্তমান শাসকগোষ্ঠী উঠেপড়ে লেগেছে।’
আয়োজক সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক কে এ জামানের সভাপতিত্বে মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি অধ্যাপক ড. এমাজউদ্দীন আহমদ, লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, ডেমোক্রেটিক লীগের সভাপতি সাইফুদ্দিন মনি, কৃষক দলের রকিবুল ইসলাম রিপন প্রমুখ।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft