বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
ওপার বাংলা
‘জয় শ্রীরামের’ বিরুদ্ধে মমতার হাতিয়ার ‘জয় বাংলা’
কাগজ ডেস্ক :
Published : Saturday, 1 June, 2019 at 8:20 PM
‘জয় শ্রীরামের’ বিরুদ্ধে মমতার হাতিয়ার ‘জয় বাংলা’বিজেপির ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগানের বিরুদ্ধে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হাতে তুলে নিয়েছেন ‘জয় বাংলা’ স্লোগান। এরইমধ্যে কর্মীদের ‘জয় বাংলা’ ধ্বনি তোলার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। এমনকি তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীদের মোবাইলের কলার টিউনে ‘জয় বাংলা’ বা বাংলার জয়ধ্বনি জাতীয় সুর ও গান রাখতে বলা হয়েছে।  সেইসঙ্গে বিজেপির ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগান মোকাবিলায় ‘বন্দে মাতরম’ ও ‘জয় হিন্দ’ বলার নির্দেশও দিয়েছেন তিনি।
বিগত লোকসভা নির্বাচনে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির উত্থান হয়েছে। এর সঙ্গে সঙ্গে এখন রাজ্যজুড়ে বিজেপির নেতাকর্মীদের মুখে মুখে ছড়িয়ে পড়েছে ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি। নির্বাচনের প্রচারেও রাজ্যে ‘জয় শ্রীরাম’ হয়ে উঠেছিল স্থানীয় রাজনীতির প্রতিপাদ্য বিষয়। ভোটের পরও সেই ‘জয় শ্রীরাম’ এখন পশ্চিম বাংলায় কার্যত অভিবাদনের ভাষা হয়ে উঠেছে। তাই ভোটের পরে ‘জয় শ্রীরাম’-এর মোকাবিলায় মাঠে নেমে পড়েছে তৃণমূল।
দুদিন আগে কলকাতা সংলগ্ন উত্তর ২৪ পরগনা জেলার নৈহাটির এক সভা থেকে তৃণমূল নেত্রী মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ‘জয় শ্রীরাম’ মোকাবিলায় ‘জয় হিন্দ’, ‘বন্দে মাতরম’ ও ‘জয় বাংলা’ ধ্বনি তোলার নির্দেশ দিয়েছিলেন।
এবার নিজের ফেসবুক পেজে ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনির বিরুদ্ধে আওয়াজ তুললেন কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম। তিনি ফেসবুকে লেখেন, ‘জয় দুর্গা’ শুনেছি, কিন্ত ‘জয় শ্রীরাম’ কখনও শুনিনি। ফিরহাদ লেখেন, “বাংলায় জন্মেছি, বাংলাতে বড়ো হয়েছি। ছোটবেলা থেকে শুনেছি, ‘জয় মা দুর্গা’, ‘জয় মা কালী’, এমনকী ‘জয় বাবা তারকনাথ’ও শুনেছি। কখনো শুনিনি কেউ চেঁচিয়ে বলছে ‘জয় শ্রীরাম’। তাই অদ্ভূত লাগছে। কারণ, ‘জয় শ্রীরাম’ শুনতে অভ্যস্ত নই আমরা।”
গত বৃহস্পতিবার বিকেলে নৈহাটির ভাটপাড়ায় মমতা বন্দোপাধ্যায়ের কনভয়ের সামনে ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি দেয় কয়েকজন বিজেপি নেতাকর্মী। এর পরই মেজাজ হারান মমতা। গাড়ি থেকে নেমে উত্তেজিতভাবে তিনি বলে ওঠেন, ‘সব বন্ধ করে দেব। এত বড় সাহস। আমাদের খাবে আমাদের পরবে, আমাদের জন্য বেঁচে আছে। তারপরে এই ধরনের গুণ্ডামি মস্তানি! তুমি তোমার মতো স্লোগান দেবে এতবড় সাহস! বাংলাকে আমি গুজরাট বানাতে দেব না। বাংলা বাংলাই থাকবে। বন্ধ করে দিলে বুঝে যাবে সব।’
একইদিনে বেশ কয়েকবার ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি শোনেন মমতা। তার পরই রীতিমতো গাড়ি থেকে নেমে যুদ্ধংদেহী মূর্তিতে বলেন, ‘ব্যাটা বিজেপির বাচ্চা। ডাকাত, ক্রিমিনাল। সব কটাকে তাড়িয়ে ছাড়ব।’
অবশ্য, লোকসভা ভোটের প্রচারকালেও মুখ্যমন্ত্রীর কনভয়ের সামনে ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি উঠেছিল। সেবারও গাড়ি থেকে নেমে মমতা উত্তেজিত হয়ে বলে ওঠেন, ‘অ্যাই গালাগালি দিচ্ছিস’। এরপর তিন যুবককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft