রবিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
সারাদেশ
ঈদের ছুটিতে কুয়াকাটায় পর্যটক বরণের প্রস্তুতি সম্পন্ন ব্যবসায়ীদের
এইচ,এম, হুমায়ুন কবির, কলাপাড়া (পটুয়াখালী) :
Published : Monday, 3 June, 2019 at 8:49 PM
ঈদের ছুটিতে কুয়াকাটায় পর্যটক বরণের প্রস্তুতি সম্পন্ন ব্যবসায়ীদের ঈদুল-ফিতরের টানা ছুটিতে কুয়াকাটায় পর্যটক-দর্শনার্থীর সমাগমকে ঘিরে সেখানকার হোটেল-মোটেলসহ ব্যবসায়ীদের রয়েছে ব্যাপক প্রস্তুতি। সর্বত্র সাজ সাজ অবস্থা বিরাজ করছে। পবিত্র রমজান মাসের পর্যটক শূন্যতা কাটাতে এখন মুখিয়ে আছেন সকল ব্যবসায়ীরা। অধিকাংশ হোটেল-মোটেল আগাম বুকিং হয়ে গেছে। দেশি পর্যটক ছাড়াও রয়েছে বিদেশী অনেক পর্যটক। একই স্পটে দাঁড়িয়ে সূর্যোদয়-সুর্যাস্তের মতো নয়নাভিরাম, মনভোলানো দৃশ্য উপভোগের কুয়াকাটা বরাবরের মতো এ বছর ঈদেও থাকবে পর্যটকে পরিপুর্ণ- এমন আশাবাদ করেছেন স্থানীয় ব্যবসায়ীরা। সবাই যেন প্রস্তুত রয়েছেন পর্যটকদের বরণে। কুয়াকাটা হোটেল মোটেল ওনার্স এসোসিয়েশনের সদস্য ও কুয়াকাটা ইলিশ পার্ক রিসোর্ট সেন্টারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রুমান ইমতিয়াজ তুষার জানান, তাদের সকল ধরনের প্রস্তুতি রয়েছে। পর্যটকরা ইতোমধ্যে কেউ কেউ আগাম বুকিং দিয়েছেন। তুষারের অভিমত, ঈদের জন্য তাঁদের সাতদিনের প্রস্তুতি রয়েছে। কিন্তু পর্যটক সমাগম থাকবে অন্তত ১৫দিন। তবে আবহাওয়া অনুকুলে থাকবে কি না তা নিয়ে তুষার শঙ্কা ব্যক্ত করলেন। কুয়াকাটা গেস্ট হাউস এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও হোটেল মোটেল ওনার্স এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মোতালেব শরীফ জানান, তার এসোসিয়েশনভুক্ত অধিকাংশ হোটেলে পর্যটকের আগাম বুকিং রয়েছে। তিনিও পর্যটকের ব্যাপক আগমনের আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন। ঈদের ছুটিতে কুয়াকাটায় বেড়াতে আসা পর্যটকের জন্য কুয়াকাটা ট্যুরিস্ট পুলিশের রয়েছে ব্যাপক প্রস্তুতি। ইতোমধ্যে হোটেল মোটেল মালিক ছাড়াও বীচে ছাতা ও বেঞ্চির ব্যবসায়ীদের রয়েছে বিশেষ প্রস্তুতি। বীচের বিনোদনে সংযোজন হয়েছে বিভিন্ন ধরনের রাইডারসহ বিশেষ দ্রুতগামী বিভিন্ন জলযান। কুয়াকাটা সৈকতের বিভিন্ন পয়েন্টে ভ্রমনে একাধিক ট্যুরিস্ট গাইড সংস্থা সক্রিয় রয়েছে। কুয়াকাটায় আসা পর্যটক-দর্শনার্থীর ভ্রমনকে নিরাপদ করতে কুয়াকাটা পৌরসভা কর্তৃপক্ষ বেশ সচেষ্ট রয়েছে। সমুদ্র সৈকত এলাকা আলোকিত রাখতে বিদ্যুত ব্যবস্থা সম্প্রসারণে বিশেষ উদ্যোগ নেয়ার কথা জানালেন মেয়র আব্দুল বারেক মোল্লা। কুয়াকাটায় আসা পর্যটকের জন্য আকর্ষনীয় স্পট শ্রীমঙ্গল বৌদ্ধ বিহার ও মিশ্রিপাড়ার সীমা বৌদ্ধবিহার এলাকা দর্শন পথে নিরাপত্তা বিধানে স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন সতর্ক রয়েছেন বলে জানালেন মহিপুর পুলিশি থানার ওসি মো. সাঈদুর রহমান। কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) অনুপ দাশ জানান, কুয়াকাটায় পর্যটক দর্শনার্থীর ভ্রমন শতভাগ নির্বিঘœ এবং উৎসবমুখর পরিবেশ বজায় রাখতে প্রশাসনের বিভিন্ন পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। এছাড়া হোটেল-মোটেল কর্তৃপক্ষকে বলা হয়েছে, যেন হোটেল ভাড়াসহ সবকিছুর ব্যয়ভার পর্যটকের কাছে সহনশীল পর্যায়ে থাকে। মোট কথা ঈদের ছুটিতে কুয়াকাটায় পর্যটকের ব্যাপক সমাগমকে ঘিরে সরকারের সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। এখন শুধু পর্যটকের পদভারে মুখরিত থাকার অপেক্ষার প্রহর গুনছেন সকল শ্রেণির মানুষ।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft