বুধবার, ১৬ অক্টোবর, ২০১৯
সারাদেশ
কুয়াকাটা সৈকতে পর্যটকদের উপচেপড়া ভিড়
কুয়াকাটা সংবাদদাতা :
Published : Saturday, 8 June, 2019 at 2:50 PM
কুয়াকাটা সৈকতে পর্যটকদের উপচেপড়া ভিড়ঈদ মানে খুশি, ঈদ মানে আনন্দ। আর এই ঈদের আনন্দকে আরও বাড়িতে তুলতে দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া উপেক্ষা করে পর্যটকদের ভিড় জমেছে কুয়াকাটায়। ঈদের এই লম্বা ছুটিতে হাজারো পর্যটকের পদচারণায় মুখর কুয়াকাটা সৈকত। এ পর্যটকদের আতিথেয়তা দিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা।
এছাড়া পর্যটকদের নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তায় কাজ করছেন ট্যুরিস্ট পুলিশ, থানা পুলিশ, নৌ-পুলিশসহ ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা।
সরেজমিনে দেখা গেছে, ঈদের দিন বুধবার থেকে শুক্রবার পর্যন্ত সৈকতের বিভিন্ন দর্শনীয় স্থানে দেশি-বিদেশি হাজারো পর্যটকের ভিড়। এতে ১৮ কিলোমিটার সৈকতে বিরাজ করছে উৎসবমুখর পরিবেশ। বৈরী আবহাওয়া থাকা সত্ত্বেও সমুদ্রের ঢেউয়ের উন্মাদনার সাথে নেচে গেয়ে গোসল করছেন পর্যটকরা।
সৈকতের বালিয়াড়িতে পাতা বেঞ্চ ছাতার নিচেসহ বিভিন্ন পয়েন্টে নানা বয়সের মানুষ গল্প, গান আর আড্ডায় মেতে রয়েছেন। ঘুরতে আসা পর্যটক ও দর্শনার্থীদের সাথে নতুন নতুন বন্ধুত্বের সুযোগে হাতের মোবাইল দিয়ে নানা ঢংয়ের সেলফি তুলে পোস্ট করছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে। কেউ কেউ আবার সৈকতে ফুটবল ও হাডুডু খেলায়ও মেতে রয়েছে। এছাড়া দ্রুতগামী স্পিডবোটগুলো উচ্চ শব্দ করে একের পর এক পর্যটক বোঝাই করে গভীর সমুদ্রে ছুটে যাচ্ছে। এছাড়া ছোট ছোট ফাইবার বোটগুলো নানা বয়সী পর্যটকদের নিয়ে বিভিন্ন দর্শনীয় স্থানে ছুটে যাচ্ছে।
আবাসিক হোটেল-মোটেল, খাবার ঘর ও শপিংমলসহ পর্যটনমুখী ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোতে বেড়েছে বেচা-বিক্রি। স্থানীয় রাখাইন মার্কেট, নারিকেল বাগান, ইকোপার্ক, জাতীয় উদ্যান, শ্রীমঙ্গল বৌদ্ধ বিহার, সীমা বৌদ্ধ বিহার, সুন্দরবনের পূর্বাঞ্চল খ্যাত ফাতরার বনাঞ্চল, গঙ্গামতি, কাউয়ার চর, লেম্বুর চর, শুটকি পল্লী, লাল কাকড়ার চর ও সৈকতের জিরো পয়েন্টে শিশু কিশোর যুবক যুবতীসহ নানা বয়সী পর্যটকদের পদচারণায় এখন মুখোরিত কুয়াকাটা। আর এসব পর্যটকদের বাড়তি নিরাপত্তায় বিভিন্ন দুর্গম স্পটেও অতিরিক্ত পুলিশ সদস্য মোতায়েন করেছে ট্যুরিস্ট পুলিশ।
ঢাকা থেকে সপরিবারে ঘুরতে আসা জাহিদ জানান, ঈদের দিন থেকেই কুয়াকাটায় বৃষ্টি হচ্ছে। আর এই বৃষ্টিতে ভিজে নাচে গানে উল্লাসিত হয়ে পরিবারের সাথে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করছি।
কুমিল্লা থেকে আসা আরেক পর্যটক জুলহাস মিয়া জানান, বৈরী আবহাওয়া থাকা সত্ত্বেও এখানকার প্রাকৃতিক নৈসর্গিক দৃশ্য দেখে বিমোহিত হয়েছি।
সমুদ্র বাড়ি রিসোর্টের সত্ত্বাধিকারী জহিরুল ইসলাম মিরন জানান, ঈদের প্রথম দিকে হোটেল বুকিং না থাকলেও এখন মোটামুটি ভালই বুকিং আছে। ঈদের পর থেকে পর্যটকের ভিড় বাড়ছে।
কুয়াকাটা ট্যুরিস্ট পুলিশ জোনের সিনিয়র এএসপি জহিরুল ইসলাম জানান, ঈদকে কেন্দ্র করে আগত পর্যটকদের বাড়তি নিরাপত্তায় ট্যুরিস্ট পুলিশের দুটি মোবাইল টিম গঠন রয়েছে। ফাতরার বন ও লেম্বুরচরসহ বিভিন্ন দুর্গম স্পটে বাড়তি পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। এছাড়া সাদা পোশাকেও ট্যুরিস্ট পুলিশের নজরদারি রয়েছে।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft