মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
অর্থকড়ি
পাসপোর্ট ও ইমিগ্রেশন ব্যবস্থাপনা ঢেলে সাজানো হচ্ছে
কাগজ ডেস্ক :
Published : Sunday, 9 June, 2019 at 8:23 PM
পাসপোর্ট ও ইমিগ্রেশন ব্যবস্থাপনা ঢেলে সাজানো হচ্ছেপাসপোর্ট ও ইমিগ্রেশন ব্যবস্থাকে ঢেলে সাজাানো হচ্ছে। এছাড়া কোথাও কোনো দুর্বলতা থাকলে তা সারিয়ে তোলার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।
রোববার (০৯ জুন) সচিবালয়ে নিজ দফতরে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা জানান।
ইমিগ্রেশনে প্রবাসীদের হয়রানি হওয়ার বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ইমিগ্রেশনে আমরা নানা ধরনের চ্যালেঞ্জ ফেস করি। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ থেকে ট্রাভেল পাস নিয়ে অনেকে দেশে ফিরছেন। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ থেকে আমাদের তথ্য দিচ্ছে যে, তারা বিভিন্ন দেশে দুষ্কর্মের সঙ্গে যুক্ত ছিল। সিরিয়াতে বা বাগদাদে যারা যুদ্ধ করেছে এ ধরনের লোকও বাংলাদেশে চলে আসতে পারেন এমন তথ্যও পাওয়া যাচ্ছে। সেজন্য ট্রাভেল পাস নিয়ে যারা আসছেন, তারা কোনো জঙ্গি দলের সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিল কি-না এটা নিশ্চিত হতে একটু যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে। তারা বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত না অন্য দেশের সেটা নিশ্চিত হতেই একটু কড়াকড়ি করতে হচ্ছে।
তবে কেউ যদি ইচ্ছাকৃতভাবে কাউকে হয়রানি করে সঙ্গে সঙ্গেই তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে জানান আসাদুজ্জামান খাঁন।
পাসপোর্ট ছাড়াই প্রধানমন্ত্রীকে আনতে পাইলটের কাতার যাওয়ার ঘটনায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, পাইলট জানিয়েছেন তিনি ভুলক্রমে পাসপোর্টটা নিয়ে যেতে পারেননি। সেজন্যই ঘটনাটি ঘটেছে। এখানে কার কার দুর্বলতা রয়েছে, সেটা আমরা খতিয়ে দেখছি। একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।
তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে সবার দৃষ্টি গেছে, পাসপোর্ট ছাড়া পাইলট ইমিগ্রেশন কীভাবে পার হলো। আসলে পাইলটদের ইমিগ্রেশন অন্যভাবে হয়। তাদের পাসপোর্টে সিল দেয়া হয় না। একটা ডিক্লারেশন স্লিপ তাদের দেয়া হয়। স্লিপটা পাইলটরা ইমিগ্রেশনে জমা দেন। আমরা জেনেছি, ইমিগ্রেশনে পাইলট সঠিকভাবে স্লিপটি জমা দিয়েছেন। তার ফিঙ্গার প্রিন্টও নেয়া হয়েছিল সঠিকভাবে। তারপরও পাইলটের সঙ্গে পাসপোর্ট রাখার কথা। পাসপোর্টটা যখন যেখানে যেই চাইবেন তখনই তিনি সেটা দেখাতে বাধ্য। তাকে জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল পাসপোর্টটা সঙ্গে আছে কি-না। কিন্তু ইমিগ্রেশন কর্মকর্তার উচিত ছিল পাসপোর্টটি দেখা। কিন্তু তিনি তা না করায় বরখাস্ত হয়েছেন। একই সঙ্গে অন্য এক কর্মকর্তাকে সেখান খেকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft