বুধবার, ১৬ অক্টোবর, ২০১৯
ওপার বাংলা
মমতার নিষ্ক্রিয়তায় লজ্জিত কলকাতা মেয়রের চিকিৎসক মেয়ে
কাগজ ডেস্ক :
Published : Friday, 14 June, 2019 at 9:01 PM
মমতার নিষ্ক্রিয়তায় লজ্জিত কলকাতা মেয়রের চিকিৎসক মেয়েপশ্চিমবঙ্গের চলমান চিকিৎসক ধর্মঘটে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণে ব্যর্থ হওয়ায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছেন স্বয়ং রাজ্যমন্ত্রী ও কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিমের চিকিৎসক মেয়ে শাবা হাকিম।
তিনি এক ফেসবুক পোস্টে মমতার নাম উল্লেখ না করে বলেন, ‘একজন তৃণমূল সমর্থক হিসেবে আমাদের নেতার নিষ্ক্রিয়তা এবং নীরবতায় আমি গভীরভাবে লজ্জিত।’ আর নেতা বলতে তিনি যে মুখমন্ত্রীর দিকেই ইঙ্গিত করেছেন তা স্পষ্ট। যদিও এ নিয়ে সংবাদমাধ্যমের সামনে এখনও মুখ খোলেননি শাবা।
বুধবার রাত ১১টা ২৮ মিনিটে ফেসবুবে এই পোস্টটি করেছেন শাবা হাকিম। এতে তিনি চিকিৎসকদের ধর্মঘটকে সমর্থন করে বলেন, ‘তাদের শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ করার’ এবং ‘কর্মক্ষেত্রে নিরাপদে’ কাজ করার অধিকার আছে। এরপরই তিনি প্রশ্ন তুলেন, এখনও কেন হাসপাতালকে ঘিরে রেখেছে পুলিশ এবং চিকিৎসকদের পেটানো হচ্ছে?
চিকিৎসকদের ধর্মঘটকে সমর্থন করে ড. শাবা লিখেছেন, ‘অন্যান্য পেশার মতো আমরা কাজ না করার সিদ্ধান্ত নিয়েই খালাস হতে পারি না কারণ দিনের শেষে আমাদের মানবিকতা রয়েছে। যদি একটা বাস বা ট্যাক্সি ধর্মঘট হত, তা পরিস্থিতি যত কারাপই হোক, এক জন ট্যাক্সিচালক বা বাসচালকও আপনাকে পরিষেবা দিতেন না।’
রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী এবং কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিমের মেয়ে শাবা হাকিম কলকাতারই একটি বেসরকারি মেডিকেল কলেজে কর্মরত।
বুধবার রাতের লম্বা ফেসবুক পোস্টে তিনি লিখেছেন, ‘যারা প্রশ্ন তুলছেন অন্য রোগীদের কী দোষ, তারা দয়া করে সরকারকে প্রশ্ন করুন, সরকারি হাসপাতালে মোতায়েন থাকা পুলিশ অফিসাররা ডাক্তারদের রক্ষা করার জন্য কিছুই করেন না কেন? দয়া করে তাদের প্রশ্ন করুন যে, যখন দুটো ট্রাকে বোঝাই হয়ে গুন্ডারা এল, তখন অবিলম্বে আরও বাহিনী পাঠানো হলো না কেন?’
এরপর ফিরহাদ-কন্যা ফেসবুক পোস্টের সবশেষে মমতাকে ইঙ্গিত করে লেখেন, ‘আমাদের নেতার নিষ্ক্রিয়তা এবং নীরবতায় একজন তৃণমূল সমর্থক হিসেবে আমি গভীর ভাবে লজ্জিত।’
মেয়ের এই বক্তব্যকে মেয়র ফিরহাদ হাকিম সমর্থন করেন কিনা তা স্পষ্ট নয়। কারণ এখনও ফিরহাদ বা তার মেয়ে শাবা বিষয়টি নিয়ে সংবাদমাধ্যমে মুখ খোলেননি। কিন্তু অভিযোগ উঠেছে, কলকাতার কোনো সরকারি হাসপাতালে সঙ্কট তৈরি হলে তার নিরসন প্রক্রিয়ায় আগে যে ভাবে মুখ্যমন্ত্রীর পাশে সারাক্ষণ দেখা যেত সাবেক মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়কে, এ বারের সঙ্কটে কিন্তু বর্তমান মেয়র ফিরহাদ হাকিমকে এখনও সে ভাবে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা যায়নি। মুখ্যমন্ত্রী বৃহস্পতিবার সকালে এসএসকেএম হাসপাতালে গিয়েছিলেন। কিন্তু ফিরহাদ সঙ্গে ছিলেন না।
প্রসঙ্গত, কলকাতার নীলরতন সরকার (এনআরএস) হাসপাতালে ডাক্তারদের নিগ্রহের ঘটনার প্রতিবাদে গত মঙ্গলবার থেকে ধর্মঘট চালিয়ে যাচ্ছে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের জুনিয়র চিকিৎসকরা। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টা নাগাদ এসএসকেএম হাসপাতালে যান রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এসময় আন্দোলনরত ডাক্তারদের কার্যত হুঁশিয়ারি দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার এই হুঁশিয়ারির পর নতুন করে চিকিৎসকদের মধ্যে ‘বিদ্রোহে’র আগুন জ্বলে উঠেছে।গণহারে ইস্তফা দেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তারা। এক্ষেত্রে জুনিয়র ডাক্তারদের পাশে দাঁড়িয়েছেন সিনিয়র ডাক্তাররা। এই অবস্থায় রাজ্যের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস/আনন্দবাজার



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft