রবিবার, ১৮ আগস্ট, ২০১৯
জাতীয়
কৃষিতে যান্ত্রিকীকরণ চান কৃষিমন্ত্রী
কাগজ ডেস্ক :
Published : Sunday, 16 June, 2019 at 8:40 PM
কৃষিতে যান্ত্রিকীকরণ চান কৃষিমন্ত্রীকৃষকদের একটি অংশ অন্য পেশায় স্থানান্তরিত হওয়ার কারণে এই পেশায় শ্রমিক সংকট সৃষ্টি হয়েছে জানিয়ে কৃষিতে যান্ত্রিকীকরণের বিকল্প নেই বলে মন্তব্য করেছেন কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক।
রোববার রাজধানীতে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিলের সভাকক্ষে কৃষি যন্ত্রপাতি সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিদের সাথে মতবিনিময়কালে তিনি এ কথা বলেন।
কৃষিমন্ত্রী বলেন, কৃষি শ্রমিকদের একটি বড় অংশ স্থানান্তরিত হয়ে অন্য পেশায় নিয়োজিত হয়েছেন। অনেকে শহরমুখী হয়েছেন। ফলে শ্রমিক সংকট ও কৃষি উৎপাদনশীলতা ধরে রাখতে কৃষিতে যান্ত্রিকীকরণ করতে হবে।
‘কৃষকরা সমবায়ভিত্তিক কৃষিযন্ত্র ক্রয় করতে পারে। এসব যন্ত্র সম্পর্কে কৃষকদের যথাযথ প্রশিক্ষণ দিতে হবে। বিদেশি যন্ত্র আনা এবং সেসব যন্ত্রের খুচরা যন্ত্রাংশ আমাদের দেশে তৈরি করা যায় কি-না দেখতে হবে। শুধু দেশে উৎপন্ন যন্ত্র দিয়ে কৃষি যান্ত্রিকীকরণ সম্ভব না।’
তিনি বলেন, স্বাধীনতা পরবর্তী জনসংখ্যা বৃদ্ধি ও কৃষি জমি হ্রাস হওয়ার পরেও খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন যান্ত্রিকীকরণের ফসল। যদিও সবরকম যান্ত্রিকীকরণ আমরা শুরু করতে পারিনি।
‘দেশে এখন অধিকাংশ জমিতে লাঙ্গল-জোয়াল ছেড়ে যন্ত্রের মাধমে চাষ হচ্ছে। আমরা অচিরেই শতভাগ যান্ত্রিকীকরণে যাচ্ছি। এজন্য  সবার সহযোগিতা প্রয়োজন।’
কৃষি সচিব মো. নাসিরুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের মহাপরিচালক মীর নুরুল আলম।
এছাড়া বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড. আবুল কালাম আযাদ, বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড. মো. শাহজাহান এবং কৃষি যন্ত্রপাতি সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের প্রায় ২০ জন প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft