বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
সারাদেশ
রোগী বহনে ঝুঁকি : সময় লাগে দ্বিগুন
আদমদীঘিতে ১০ কিলোমিটার সড়ক ১২ বছরেও সংস্কার হয়নি
আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি :
Published : Monday, 17 June, 2019 at 9:41 PM
আদমদীঘিতে ১০ কিলোমিটার সড়ক ১২ বছরেও সংস্কার হয়নিবগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহার পৌর এলাকার সাইলো সড়ক থেকে কদমা হয়ে আদমদীঘি রেলস্টেশন পর্যন্ত জনগুরুত্বপূর্ন প্রায় ১০ কিলোমিটার পাকা সড়কের অধিকাংশই চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। সড়কটিতে খানাখন্দক ও জলাবদ্ধতার কারণে যাতায়াতে চরম দুর্ভোগে পড়ছেন সাধারণ মানুষ। বর্ষাকালে সামান্য বৃষ্টিতেই পানি জমে যায়। গত ১২ বছরেও সড়কটি সংস্কার না হওয়ায় শহরের সাথে গ্রামীন যোগাযোগ চরমভাবে বিঘিœত হচ্ছে বলে অভিযোগ স্থানীয়দের। এলাকাবাসী জরুরী ভিক্তিতে এই গুরুত্বপূর্ণ সড়কটি মেরামত করার জন্য সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের দৃষ্টি কামনা করেছেন।
স্থানীয়রা জানায়, বগুড়ার আদমদীঘির সান্তাহার সাইলো সড়ক থেকে দমদমা, কদমা ও মন্ডবপুর হয়ে আদমদীঘি রেলগেট পর্যন্ত প্রায় ১০কিলোমিটার সড়কটি প্রায় এক যুগ আগে পাকা করন করা হয়। এই গুরুত্বপূর্ন সড়ক দিয়ে প্রতিদিন ২০-২৫টি  গ্রামের হাজার হাজার মানুষ উপজেলা সদর ও সান্তাহার পৌর শহর দিয়ে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে যাতায়াত করে থাকেন। এই সড়কটি পাকাকরণের পর কিছু অংশে সংস্কার কাজ করা হলেও কিছুদিন পার হতে না হতেই আবারও বিভিন্ন অংশের পাকা চটে খানা খন্দকে পরিণত হয়। গত কয়েক বছর যাবত সড়কটির কোন রকম কোনো সংস্কার কাজ না করায় বর্তমানে বিভিন্ন স্থানে সড়কের কাপেটিং উঠে ছোট বড় অসংখ্য গর্তের সৃষ্টি হয়ে বেহাল দশায় পরিনিত হয়েছে। এতে সড়কটি দিয়ে চলাচলে প্রাণহানির মতো ঘটনাও ঘটছে। তাছাড়া বর্ষাকালে সড়কে ছোট বড় গর্তগুলো সামান্য বৃষ্টির পানিতে পরিপূর্ণ হয়ে থাকায় দূর্ঘটনার আশঙ্কা দেখা যায়। এছাড়া সড়কের কিছু অংশে মাটি ও বালু এমন ভাবে থাকে দেখলে বোঝার উপায় নেই যে এটা পাকা সড়ক।
আদমদীঘির করজবাড়ী গ্রামের চার্জার চালিত অটোরিক্সা চালক জাহিদুল ইসলাম জানান, সড়কজুড়ে গর্ত থাকায় সিএনজি অটোরিকশাসহ বিভিন্ন যানবাহন দুর্ঘটনায় ঝুঁকি নিয়েই চলাচল করছে। এমন অবস্থার কারনে প্রায় গাড়ির যন্ত্রপাতি নষ্ট হচ্ছে। তাছাড়া কদমা টু সান্তাহার যেতে আগের থেকে এখন দ্বিগুণ সময় লাগে।
দমদমা গ্রামের জামিল হোসেন জানান, বর্তমানে সড়কের বিটুমিন, কার্পেটিং উঠে সৃষ্টি হয়েছে ছোট-বড় গর্ত। সড়কটির করুন দশার কারনে রোগী বহন কঠিন হয়ে পড়েছে। সড়কটি সংস্কার করা হলে সকল শ্রেণী পেশার মানুষের কষ্ট লাঘব হবে। তাই সড়কটি সংস্কারের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করছি।
সান্তাহার ইউপি চেয়ারম্যান এরশাদুল হক টুলু বলেন, এ সড়কটি দিয়ে সান্তাহার ইউনিয়নের দমদমা, প্রসাদখালী, কাশমিল্লা ও আদমদীঘি ইউপির করজবাড়ী,কদমা,রামপুরা,মন্ডপুরাসহ ১০/১৫ গ্রামের মানুষ চলাচল ও তাদের উৎপাদিত ধানসহ কৃষিপণ্য আনা নেয়া করে থাকে। সড়কটি বর্তমানে বেহাল দশায় পরিনত হওয়ায় অনেক ঝুঁকিতে চলাচল করতে হচ্ছে তাই সড়কটি অতিশিঘ্রয় সংস্কার করা প্রয়োজন বলে মনে করছি। এদিকে উপজেলা প্রকৌশল বিভাগ জানিয়েছে সান্তাহার সাইলো সড়ক থেকে দমদমা হয়ে আদমদীঘি রেলস্টেশন পর্যন্ত ওই সড়কটি ‘সড়ক ও জনপথ’ বিভাগের হওয়ায় সংস্কার করা আমাদের সম্ভব নয়।#



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft