বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর, ২০১৯
আন্তর্জাতিক সংবাদ
পাকিস্তান সরকারের মন্ত্রিসভায় হুলো বিড়াল
আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
Published : Monday, 17 June, 2019 at 9:30 PM
পাকিস্তান সরকারের মন্ত্রিসভায় হুলো বিড়ালমোবাইলে ক্যাট ফিল্টার দিয়ে অনেক তরুণ-তরুণীরাই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হাস্যরসের জন্ম দেন। কিন্তু পাকিস্তান সরকারের রাজনীতিবিদ যে এ ধরনের ক্যাট ফিল্টারে হাসির খোরাক হবেন, তা কে জানতো।
দেশটির স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, সম্প্রতি দেশটির খাইবার পাখতুনখোয়ার প্রাদেশিক সরকারের সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। যা সরাসরি ফেসবুক লাইভে প্রচার করা হচ্ছিল। কিন্ত বিপত্তি ঘটে সেখানেই। ভিডিও লাইভে দেখা যায়, বিড়ালের কান ও মুখে গোঁফ এঁটে বসে আছেন রাজনীতিবিদ শওকত ইউসুফজায়ি। ঠিক যেন সম্মেলনে কোনো হুলো বিড়াল বসে বক্তব্য দিচ্ছেন।
এমন ঘটনায় লাইভের কমেন্ট সেকশনে হাসির রোল পড়ে যায়। সচেতনদের কেউ কেউ পেজের অ্যাডমিনকে জলদি ক্যাট ফিল্টার সরাতে বলেন।
তবে এমন বোকামোর জন্য শওকত ইউসুফজায়ি দায়ি নন। কারণ লাইভটা প্রচার করছিল পাকিস্তানের তেহরিক-ই-ইনসাফের সোশ্যাল মিডিয়া টিম। তারাই লাইভ ভিডিও প্রচার করার সময় ক্যাট ফিল্টার বন্ধ করতে ভুলে যান।
এরপর লাইভ ভিডিওটি ফেসবুক থেকে সরিয়ে ফেলা হলেও কোনো লাভ হয়নি। কারণ অনেকেই ক্যাটফিল্টার হওয়া দৃশ্যের স্ক্রিনশট নিয়ে নেয়। যা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক-টুইটারে ব্যাপক হাসাহাসি চলছে।
ছবিটি শেয়ার করে পাকিস্তানের খ্যাতনামা সাংবাদিক মনসুর আলি খান টুইটারে লিখেছেন, সোশ্যাল মিডিয়া টিমের কল্যাণে পাকিস্তানের মন্ত্রিসভায় এখন বিড়ালও আছে।
আরেক ব্যবহারকারী লিখেছেন, ইনি হচ্ছেন পাকিস্তানের সবচেয়ে কিউট পলিটিশিয়ান।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft