বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯
জাতীয়
অবৈধ বাড়ি মন্ত্রী-এমপির হলেও রক্ষা নেই : পূর্তমন্ত্রী
কাগজ ডেস্ক :
Published : Friday, 21 June, 2019 at 8:20 PM
অবৈধ বাড়ি মন্ত্রী-এমপির হলেও রক্ষা নেই : পূর্তমন্ত্রীরাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) নিয়ম না মেনে বাড়ি করা হলে তা ভেঙে ফেলা হবে বলে সাফ জানিয়েছেন গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম। এক্ষেত্রে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘অবৈধ বাড়ি মন্ত্রী-এমপির হলেও ছাড় পাবে না।’
শুক্রবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির ‘মিট দ্য রিপোর্টার্স’ অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।
ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক কবির আহমেদ খানের সঞ্চালনায় সংগঠনটির সভাপতি ইলিয়াস হোসেন অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন।
রাজধানীর এফ আর টাওয়ারে অগ্নিকাণ্ডের পর রাজউকের ২৪টি দলে কাজ করে এক হাজার ৮১৮টি বাড়িতে (বহুতল ভবন) অনিয়ম পেয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘এসব বাড়ির অনেক মালিক অনেক প্রভাবশালী ব্যক্তি; ক্ষমতায়, রাজনীতিতে, অর্থে, তাদের সম্পর্কে রিপোর্ট করা হবে অনেকেই ভাবেননি, কারণ তারা এত পাওয়ারফুল। এসব বিল্ডিংয়ের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছি।’
এ সময় তিনি সাংবাদিকদের সহযোগিতা চেয়ে বলেন, ‘তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য রাজউককে নির্দেশ দিয়েছি, বলেছি একটা বাড়িও ড্রপ হবে না। যদি কোনো মন্ত্রী-এমপির বাড়িও হয়, আমার নিজের কোনো আত্মীয়-স্বজনও হয়, ড্রপ হবে না, আইনকে তার নিজস্ব গতিতে চলতে দিতে হবে।’
যেসব ভবনে কিছু অনিয়ম হয়েছে এবং আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে আলাদা পিলার বা আলাদা ভিত্তি দিয়ে টিকেয়ে রাখা সম্ভব, সেগুলোকে ছাড় দেওয়া হলেও ঝুঁকি সৃষ্টি করে এমন ভবন ছাড় পাবে না বলে জানান মন্ত্রী।
রেজাউল করিম বলেন, ‘যেটাকে কোনোভাবে রাখা যাবে না যদি তারা (ভবন মালিক) ভাঙতে না চান সেসব বিল্ডিং আমরা সম্পূর্ণরূপে বেআইনি ও ব্যবহার অনুপযোগী বলে সিলগালা করে দেব। ওই বিল্ডিং ব্যবহারও করতে দেব না। কারণ মানুষের জীবনের মূল্যের চেয়ে কোনো ব্যক্তির বিল্ডিংয়ের আয়ের উৎসের জায়গাটা আমাদের কাছে কোনোভাবে বড় না।’
পুরান ঢাকায় পাঁচশ বছরের বেশি পুরনো ভবন রয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘আমি চাইলেই সেগুলোকে ভেঙে ফেলতে পারব না। বিকল্প ব্যবস্থা করে ওটাকে পরিবেশসম্মত ও ঝুঁকিহীন অবস্থায় নিতে আমরা নতুন করে ডেভেলপমেন্ট করার জন্য দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়রকে প্রস্তাব করেছি।’
রেজাউল করিম বলেন, ‘তবে রাজধানীতে দীর্ঘদিন ধরে গড়ে ওঠা বিভিন্ন স্থাপনা রাতারাতি উচ্ছেদ করা সম্ভব না। রাতারাতি সব উচ্ছেদ করতে পারব না। কিন্তু আমি যদি টেন পারসেন্ট দুর্নীতিকেও স্টপ করতে পারি, আমি মনে করব আমি কিছু পারছি।’
রাজউকের কাজের পরিসর বেড়েছে জানিয়ে পূর্তমন্ত্রী বলেন, ‘এই মুহূর্তে রাজউককে একেবারে শাটডাউন করার মতো কোনো অবস্থা নেই। ঢাকার পাশে চারটি স্যাটেলাইট সিটি তৈরি করে ঢাকার ভিড় কমাতে সরকারের যে সিদ্ধান্ত আছে, তার প্রাথমিক সমীক্ষা হয়ে গেছে, এই মুহূর্তে রাজউককে নিবৃত্ত করার মতো কোনো সুযোগ নেই। তবে নতুন করে ঢাকার বাইরে গিয়ে যাতে কোনো প্রকল্প না হয়, সে বিষয়টা আমি আন্তরিকতার সঙ্গে বিবেচনা করছি।’



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft