সোমবার, ১৯ আগস্ট, ২০১৯
সারাদেশ
টাঙ্গাইলে পুলিশের এস আইসহ আটক ২
শামছউদ্দিন সায়েম, টাঙ্গাইল জেলা প্রতিনিধি :
Published : Saturday, 22 June, 2019 at 4:51 PM
টাঙ্গাইলে পুলিশের এস আইসহ আটক ২টাঙ্গাইলে পুলিশ কনস্টবলে চাকুরী দেওয়ার কথা বলে টাকা লেনদেনের সময় পুলিশের এক এস আইসহ দুইজনকে হাতে নাতে আটক করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।
শুক্রবার রাত ৮ টায় টাঙ্গাইল পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সামনে থেকে তাদের আটক করা হয়।
আটককৃতরা হচ্ছে জামালপুর সদর কোর্টের এস আই মোহাম্মদ আলী ও জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলার মো. খায়রুল বাশারের স্ত্রী শাহানাতুল আরেফিন সুমি (৩৫)। এস আই মোহাম্মদ আলী টাঙ্গাইল সদর উপজেলার চৌবাড়িয়া গ্রামের মৃত ইনছান আলীর ছেলে।
শনিবার দুপুরে পুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষ্যে সংবাদ সম্মেলনে সংবাদকর্মীদের এ তথ্য জানান টাঙ্গাইলের পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায়।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে জানান, শেরপুর সদর থানার তারাগড় নামাপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল বারিকের ছেলে মো. ওয়াজেদ আলীর বাতিজা কবির হোসেনকে ১০ লাখ টাকার বিনিময়ে পুলিশ কনস্টবলে চাকুরীর জন্য আটককৃত আসামীদের সাথে ও সুমির স্বামী খায়রুল বাশারের সাথে চুক্তি হয়।
সেই ১০ লাখ টাকা নিয়ে অভিযুক্ত আসামী তিন আসামীসহ ওয়াজেদ আলী মাইক্রো বাসযোগে শুক্রবার জামালপুর থেকে টাঙ্গাইলের উদ্দেশ্যে রওনা হয়।
গাড়িতে বসেই তারা টাকা লেনদেন করে। পরবর্তীতে টাঙ্গাইল পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের সামনে গাড়িতে বাদি ওয়াজেদ আলীকে রেখে ১০ লাখ টাকা ব্যানিটি ব্যাগে করে সুমি পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে যায়।
কিছুক্ষন ঘুরাঘুরি করে সুমি নিচে গিয়ে ব্যানিটি ব্যাগ থেকে টাকা তার স্বামী কথিত সাংবাদিক খায়রুল বাশারের কাছে দেয়। টাকা গুলো নিয়ে খায়রুল বাশার চলে যায়। বিষয়টি ওয়াজেদ আলী দেখে ফেলায় তার মনে সন্দেহের সৃষ্টি হয়।
ওয়াজেদ আলী পুলিশ সুপারের নিকট সাক্ষাৎ করতে চাইলে সুমি তাকে জানায় এসপি’র গেস্ট এসেছে তিনি এখন দেখা করতে পারবে না। এরপর সুমির সাথে ওয়াজেদ আলী বাকবিতন্ডা ও হট্টগোলের সৃষ্টি হয়।
তখন ঘটনাস্থলের পাশ দিয়ে ডিবি পুলিশের এসআই ফরিদ উদ্দিনসহ কয়েকজন যাওয়ার সময় তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করিলে ওয়াজেদ আলী বিস্তারিত খুলে বলেন।
তখন তাদের আটক করে সুমি ব্যাগ থেকে ১ লাখ ৯৫ হাজার টাকা, সুমির স্বামীর নামে সাংবাদিক আইডি কার্ড ও তাদের ব্যবহৃত একটি মাইক্রোবাস জব্দ করেন।
সুমিকে জিজ্ঞাসা করলে তিনি বাকি ৮ লাখ ৫ হাজার টাকার তার স্বামী খায়রুল বাশারের নিকট আছে। শনিবার ওই তিনজনের নামে প্রচলিত আইনে মামলা দায়ের করে তাদের গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।




আরও খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft