মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর, ২০১৯
সারাদেশ
শরীয়তপুরে যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা
শরীয়তপুর প্রতিনিধি :
Published : Sunday, 23 June, 2019 at 3:02 PM
শরীয়তপুরে যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যাশরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার নশাসন সরদারকান্দি গ্রামে ইমরান হোসেন সরদার (৩৫) নামে এক যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। তিনি ওই গ্রামের মৃত ফজল সরদারের ছেলে। শনিবার রাতে তাকে কুপিয়ে আহত করা হয়। পরে চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। তিনি নশাসন ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।
নড়িয়া থানা পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার নশাসন ইউনিয়নের সরদারকান্দি গ্রামে বাড়ি নিহত ইমরান সরদারের। তিনি নশাসন ইউনিয়ন পরিষদ সাবেক চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন তালুকদারের গাড়িচালক ছিলেন। এছাড়া নশাসন ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে দেলোয়ার তালুকদারের ডগ্রী বাজারস্থ বাড়িতে (প্রাইভেটকার) গাড়ি রেখে অটোরিকশায় করে বাড়ির দিকে যাচ্ছিলেন ইমরান। যাওয়ার পথে শরীয়তপুর-ঢাকা মহাসড়কের নশাসন মাঝিকান্দি বড় কবরস্থানের কাছে পৌঁছালে দুর্বৃত্তরা তার অটোরিকশার গতিরোধ করে এবং তাকে কুপিয়ে আহত করে ফেলে রেখে যায়। এলাকাবাসী দেখতে পেয়ে উদ্ধার করে তাকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। তার অবস্থা আশংকাজনক দেখে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে চিকিৎসক তাকে ঢাকায় পাঠান। কিন্তু ঢাকায় নেয়ার পথে রাত ১টার দিকে তিনি মারা যায়।
অন্যদিকে, এ হত্যাকান্ডের জের ধরে নিহত ইমরান সরদারের সমর্থকরা স্থানীয় জালাল হাওলাদার, দুলাল হাওলাদার ও খোকন হাওলাদারের বাড়িতে ব্যাপক লুটপাট করে। তারা সাতটি গরু, দুটি ছাগল, দুটি স্বর্ণের চেইন ও টাকা-পয়সা নিয়ে যায়। এ সময় হামলাকারীরা ব্যাপক ভাঙচুর করে। এ নিয়ে এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
এব্যাপারে নশাসন ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ওয়ালীউর রেজা মামুন বলেন, ইমরান আমার সংগঠনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। ইমরানকে যারা হত্যা করেছে তাদের আইনের আওতায় এনে ফাঁসির দাবি জানাই।
নশাসন ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন তালুকদার বলেন, ইমরান আমার গাড়ির ড্রাইভার ছিল। প্রতিপক্ষ দল ইউনিয়ন বিএনপির নেতা ও নব্য আওয়ামী লীগরা তাকে হত্যা করেছে বলে আমার ধারণা। আমি এ হত্যার বিচার চাই।
নড়িয়া থানার ওসি একেএম মঞ্জুরুল হক আকন্দ বলেন, ঘটনার পর থেকে হত্যাকারীদের গ্রেফতার করতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে। প্রকৃত হত্যাকারীদের আইনের আওতায় আনা হবে। ইমরানের মরদেহ ময়নাতদন্তর জন্য সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
এদিকে, নাম প্রকাশ না করার শর্তে নশাসন তথা নড়িয়ার একাধিক ব্যক্তি বলেন, নড়িয়ায় আবারও খুন হলো। দিনদিন নড়িয়া পরিনিত হচ্ছে খুনের নগরীতে। কয়েক দিন আগে একজন ব্যবসায়ী ও আওয়ামীলীগ কর্মী খুন হলো ভোজেশ্বরে। আর এখন নশাসনে খুন হলো যুবলীগ নেতা। আমরা এর প্রতিকার চাই।  
তারা আরও বলেন, শরীয়তপুর-২ (নড়িয়া-সখিপুর) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও সাবেক ডেপুটি স্পীকার কর্ণেল (অব:) শওকত আলী থাকতে এই অঞ্চলে খুনাখুনি হতো। তাই ভাবছিলাম পরিবর্তন আসলে হয়তো খুনাখুনি বন্ধ হবে। কিন্ত শরীয়তপুর-২ (নড়িয়া-সখিপুর) আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য ও পানি সম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম আসলো। এখনও সেই খুনাখুনি বন্ধ হলো না। এতে আমাদের আর কি বলার ও করার আছে।   




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft