বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট, ২০১৯
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
থানার ৯ গজ দূরে ভয়ঙ্কর কাণ্ড
যশোরে দিনদুপুরে জুয়েলারীতে চুরি
জড়িতদের দ্রুত আটকের আশ্বাস দিয়েছে পুলিশ
দেওয়ান মোর্শেদ আলম :
Published : Friday, 28 June, 2019 at 6:27 AM
যশোরে দিনদুপুরে জুয়েলারীতে চুরিঅবিশ্বাস্য হলেও সত্য যশোর কোতোয়ালী থানা প্রাচীরের মাত্র সাড়ে নয় গজের মধ্যে অভিনব স্টাইলে প্রিয়াঙ্গন নামে একটি জুয়েলারীতে দুর্ধর্ষ চুরি সংঘটিত হয়েছে। প্রকাশ্য দিবালোকে থ্রিপল টাঙিয়ে স্বর্ণের দোকানটি ঘিরে মাত্র ৮ মিনিটে ৪০ ভরি সোনা নিয়ে নির্বিঘেœ চলে গেছে চোরেরা। বিকেল ৩টা ৫২ মিনিটে দোকানে ঢুকে ৪টা ১ মিনিটে বেরিয়ে দোকানীর ভবিষ্যত চূর্ণ বিচূর্ণ করেছে ৬/৭ জনের ওই চোর চক্র। সারা জীবনের অর্জন আর পুঁজি খুইয়ে বার বার মূর্ছা যাচ্ছেন ভুক্তভোগী জুয়েলারী মালিক অমিত রায় আনন্দ। অনাকাঙ্খিত এঘটনায় বাংলাদেশ জুয়েলারী সমিতি যশোরের নেতৃবৃন্দ ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন। ব্যবসায়ীদের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুলে জড়িতদের দ্রুত আটক দাবি করেছেন। এদিকে তাৎক্ষনিকভাবে যশোরের সিনিয়র পুলিশ কর্মকর্তাগন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ঘটনাস্থলের আশ পাশের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ জব্দ করা হয়েছে। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সালাউদ্দিন সিকদারের দাবি ঘটনায় দ্রুত পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। পুলিশের বিভিন্ন ইউনিট কাজ শুরু করেছে। যত দ্রুত সম্ভব জড়িতদের খুঁজে বের করা হবে।
পুলিশ ও স্থানীয় দোকানীরা জানিয়েছেন, গতকাল বিকেল ৩টা ১৫ মিনিটে থানা মোড়ের প্রিয়াঙ্গন জুয়েলারী প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে বাড়িতে খাবার খেতে যান অমিত রায় আনন্দ। এরপর বিকেল ৩টা ৩২ মিনিটের দিকে ৬/৭ জন অপরিচিত লোক আশে পাশে ঘোরাফেরা শুরু করে। পাশে একটি রিকসাও দাঁড়িয়ে থাকে। এরপর বিকেল ৩টা ৫১ মিনিটে চক্রের কয়েকজন ত্রিপল দিয়ে জুয়েলারীর সাটার গ্রিল ঘিরে ফেলে। প্রতিষ্ঠানটি আড়াল করে সংঘবদ্ধ চোর চক্রটি তালা ভেঙ্গে ৩টা ৫২ মিনিটে  ঢুকে যায় প্রিয়াঙ্গনের ভেতরে। এর ৮ মিনিট পর বিকেল ৪টা ১ মিনিটে বেরিয়ে আসে। আর বিনা বাধায় ব্যাগে করে স্বর্ণ ও স্বর্ণালংকার নিয়ে চলে যায়। চক্রটি চলে যাওয়ার পর দোকান খোলা দেখে পাশের দোকান জয় স্টোরের মালিক প্রদিপ কুমার ডাক চিৎকার দিলে মানুষ ছুটে আসে। একইসাথে পাশের থানা থেকে ফোর্সও ছুটে আসে। থানার গায়ে স্বর্ণের দোকানে বড় ধরনের চুরির সংবাদ পুলিশের উর্ধŸতন মহলে গেলে ছুটে আসেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সালাউদ্দিন সিকদার, যশোর জেলা গোয়েন্দা শাখার অফিসার ইনচার্জ মারুফ আহমেদসহ বিভিন্ন যশোরে দিনদুপুরে জুয়েলারীতে চুরিইউনিটের চৌকস ফোর্স। তাৎক্ষনিকভাবে শহরে অভিযান চালালেও এদিন সন্ধ্যা পর্যন্ত সনাক্ত হয়নি যশোরে দিনদুপুরে জুয়েলারীতে চুরিকেউ। এদিকে ঘটনার সংবাদে দোকানে ছুটে আসেন অমিত রায় আনন্দ। ঘটনাস্থলে আসেন বাংলাদেশ জুয়েলারী সমিতির যশোরের নেতৃবৃন্দসহ সব জুয়েলারী ব্যবসায়ী। ঘটনায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে তারা থানায় অবস্থান নেন এবং দ্রুত ঘটনায় জড়িতদের সনাক্ত করে আটক দাবি করেন। এসময় পুলিশের সামনে বার বার মূর্ছা যান ভুক্তভোগী আনন্দ। বলতে থাকেন তার সব শেষ, পথে বসে গেলেন, হায় ভগবান এখন তার কি হবে। বাংলাদেশ জুয়েলারী সমিতি যশোরের সভাপতি রকিবুল  ইসলাম চৌধুরী সঞ্জয়, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মীর মোশররফ হোসেন বাবু ও সমিতির বর্ষীয়ান নেতা কুমার সঞ্জয় চন্দ্র ভজন গ্রামের কাগজকে জানিয়েছেন, বিগত সময়ে আরও কয়েকটি জুয়েলারীতে চুরি হয়, বাণী জুয়েলারীতে ডাকাতি হয়। থানা এলাকায় জুয়েলারী প্রতিষ্ঠান হলেও বার বার দুস্কৃতকারীদের কবলে পড়ছে। আর থানার একেবারে গায়ে প্রিয়াঙ্গন জুয়েলারীর চুরির ঘটনা খুবই দুঃখজনক। স্বর্ণালংকার ব্যবসায়ীরা এখন আতংকের মধ্যে পড়ছে। তারা জানান, তাৎক্ষনিকভাবে পুলিশ মাঠে নেমে পড়েছে। সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করে জড়িতদের সনাক্ত করার চেষ্টা চলছে। বিভিন্ন স্পটে পুলিশি সরব ভূমিকায় সাধুবাদ জানিয়ে দ্রুত কার্যকরি ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানান তারা।
এব্যাপারে যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সালাউদ্দিন সিকদার জানিয়েছেন, দিনের বেলায় লোকজনের সামনে অভিনব স্টাইলে স্বর্ণের দোকান চুরি হয়েছে এমন তথ্য পরিষ্কার হয়েছে সিটি টিভির ফুটেজে। জড়িতদের সনাক্ত করতে ও দ্রুত আটক করতে আইনী পদক্ষেপ শুরু করা হয়েছে। চোরেরা হঠাৎ করে এসেছে এমনটি নয়। আগে থেকেই পরিকল্পনা এটা পরিষ্কার। আশে পাশের দোকানীদের ব্যস্ত রাখা হয়েছিল। কয়েকদিন আগে থেকে ছদ্দবেশে দোকানের আশেপাশে অবস্থান নিয়ে মালিক আসা যাওয়ার সময় সম্পর্কে চক্রটি আগাম তথ্য নেয় বলেও ধারণা করা হচ্ছে। এঘটনায় নিয়মিত মামলা হবে। যত দ্রুত সম্ভব ঘটনায় জড়িতরা  আটক হবে। থানা পুলিশসহ আরও কয়েকটি ইউনিট অভিযানে নেমেছে।
এব্যাপারে যশোর জেলা গোয়েন্দা শাখার অফিসার ইনচার্জ মারুফ আহমেদ জানান, ইতিমধ্যে গোয়েন্দা শাখা  নজরদারি শুরু করেছে। স্থানীয় যোগসূত্রতা ছাড়া ওই চুরি সম্ভব নয়। জুয়েলারী মালিকের পরিচিত কেউ এর সাথে জড়িত থাকতে পারে। সিসি টিভি ফুটেজে পাশের জয় স্টোরের মালিক প্রদীপকে ঘটনার সময় আসা যাওয়া করতে দেখা গেছে। অথচ তিনি পুলিশকে জানাননি। তার আচরণ রহস্যজনক হওয়ায় তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।  চোর চক্র সনাক্ত করতে ডিবি সাধ্যমত চেষ্টা করছে।
যশোর কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত অফিসার ইনচার্জ সমীর কুমার সরকার গতকাল রাত নয়টায়  জানান,এঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। পুলিশের কয়েকটি টিম কাজ করছে। তবে এখন পর্যন্ত কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। কয়েকজনকে নজরদারিতে রাখা হয়েছে। আবার কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। তবে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft