বুধবার, ১৬ অক্টোবর, ২০১৯
সারাদেশ
তিস্তায় তীব্র ভাঙন, সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে শতাধিক ঘরবাড়ি
গাইবান্ধা প্রতিনিধি :
Published : Friday, 28 June, 2019 at 8:33 PM
তিস্তায় তীব্র ভাঙন, সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে শতাধিক ঘরবাড়িউজান থেকে আসা পাহাড়ি ঢলে এবং ভারী বৃষ্টিতে গাইবান্ধার তিস্তা নদীতে তীব্র ভাঙন দেখা দিয়েছে। ইতোমধ্যে ভাঙন কবলিত এলাকার শতাধিক ঘর-বাড়ি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। এ ছাড়া সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে শতশত বাড়ি-ঘর।
গত দুদিনের ভারী বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা ঢলের কারণে গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার কাপাসিয়া চন্ডিপুর, শ্রীপুর, ইউনিয়নে ভাঙন অব্যাহত রয়েছে। ইতোমধ্যে কাপাসিয়া ইউনিয়নের কয়েকশ বাড়িঘর নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে। এছাড়া ১৫০টি পরিবার বসতবাড়ি সরিয়ে নিয়েছে। অনেক পরিবার বাঁধের ওপর আশ্রয় নিয়ে মানবেতর জীবন যাবন করছেন। সেই সঙ্গে শতাধিক হেক্টর ফসলি জমি নদীতে বিলীন হয়েছে।
কাপাসিয়া গ্রামের বাদশা মিয়া বলেন, নদী ভাঙন ব্যাপক আকার ধারণ করছে। বসত-বাড়ি জমি নদী ভাঙনে চলে গেছে । শেষ সম্বলটুকুও হারালাম। বাড়ি-ঘর সরে নিয়ে যাচ্ছি। কোথায় যাবো?  কী করবো বুঝতে পারছি না। আমাদের দয়িত্ব কে নেবে জানি না।
কাপাসিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. জালাল উদ্দিন সরকার জানান, তিস্তার ভাঙন তীব্র থেকে তীব্রকার ধারণ করেছে। ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা করে তা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। তবে এখনো বরাদ্দ পাইনি, পেলে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।
গাইবান্ধা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোখলেছুর রহমান জানান, নদী ভাঙন রোধে একটি বৃহত্তম প্রকল্পের কাজ হাতে নেওয়া হয়েছে। কাজটি বাস্তবায়ন হলে এই নদীভাঙন প্রতিরোধ করা সম্ভাব হবে। তবে যেসব এলাকায় ভাঙন তীব্র আকার ধারণ করছে সেই সব এলাকায় জিওব্যাগ ফেলে এই নদী ভাঙন প্রাথমিকভাবে রোধ করার চেষ্টা করা হচ্ছে।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft