রবিবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৯
জাতীয়
গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে বড়জোর ২ বছর লাগবে : মান্না
কাগজ ডেস্ক :
Published : Saturday, 29 June, 2019 at 9:02 PM
গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে বড়জোর ২ বছর লাগবে : মান্নাদেশকে অবরুদ্ধ উল্লেখ করে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার আন্দোলন-সংগ্রামে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, ‘যত তাড়াতাড়ি আন্দোলনে নামতে পারবো ততো তাড়াতাড়ি দেশ মুক্তি পাবে।
আমি না পারলে আপনি করবেন। আপনি না পারলে তৃতীয় কোনও পক্ষ করবে। তবে আন্দোলন করতেই হবে। গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় কোনও দেশে হয়তো ৩০ বছর লেগেছে, কোন দেশে ১০ বছর লেগেছে, তবে আমরা যত তাড়াতাড়ি আন্দোলনে নামতে পারবো তত তাড়াতাড়ি গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হবে। আন্দোলনে নামতে পারলে বড়‌জোর দুই বছর লাগ‌বে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে।’
রাজপথের লড়াই বাদ দিয়ে যারা সংসদের লড়াইয়ের কথা ভাবেন তারা আসলে কোনও লড়াই করতে পারবেন না মন্তব্য ক‌রে মান্না বলেন, ‘দেশ আজ অবরুদ্ধ। দে‌শে গণতন্ত্র প্র‌তিষ্ঠা কর‌তে হ‌লে রাজপ‌থে আন্দোলন কর‌তে হ‌বে। গণঅভ্যুত্থান ছাড়া এ দেশের মুক্তি মিলবে না।’
তি‌নি আরও বলেন, ‘যারা সংসদের লড়াইয়ের কথা ভাবেন তারা সংসদে ২ মিনিট সময় পান। তাদেরকে ২ মিনিট সময় দেয়া হয়। ১ মিনিট পার হলেই মাইক বন্ধ করে দেয়া হয়। আর বক্তব্য দেয়ার আগে স্পিকার বলে দেন- যেন কোনও অসঙ্গতিমূলক বক্তব্য দেয়া না হয়। এভাবে তো আন্দোলন হয় না। এভাবে তো গণতন্ত্রের মুক্তি আসবে না।’
শনিবার (২৯ জুন) জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে শহীদ জিয়া স্মৃতি পরিষদের উদ্যোগে “জাতীয় রাজনীতি: গণতন্ত্রের মুক্তি কোন পথে” শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
মান্না ব‌লেন, ‘দেশে ওই নেতৃত্ব চাই যে নেতৃত্বে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হবে। স্বৈরশাসক থেকে দেশ মুক্তি পাবে। মানুষের ভাগ্যের কোনও পরিবর্তন হচ্ছে না। ৩০ ডিসেম্বর যে রকম ছিল এই জুন-জুলাই মাসেও মানুষ একই রকম আছে। মানুষ এখনও সরকারের পক্ষে যায় নাই। ভোটাররা এখনও ভোট দিতে যায় না। কারণ তারা জানে ভোট দিয়ে কোনও লাভ নেই।’
তিনি বলেন, ‘এইসব মানুষদের ঐক্যবদ্ধ করে আন্দোলন করতে হবে। তাহলেই মুক্তি মিলবে। আর যদি মনে করা হয়- কোনও দৈব আওয়াজে বা পশ্চিমের বাতাস এসে বর্তমান ক্ষমতাসীন শক্তিকে পরাজিত করে দেবে তবে সেটি ‘ভুল’ ধারণা হবে। এই শক্তিকে পরাজিত করতে হলে রাজপথে নামতেই হবে।’
এসময় বিএনপির নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে মান্না বলেন, ‘আজ থেকে কতদিন পরে আপনারা রাস্তায় আন্দোলন করতে পারবেন? রাজপথের লড়াইয়ে আসতে পারবেন? আমি জানি, আমার এই প্রশ্নের উত্তর যারা বিএনপিকে নেতৃত্ব দেন তারা নিজেরাও জানেন না।’
আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন- শহীদ জিয়া স্মৃতি পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর চৌধুরী ও বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহম্মদ রহমাতুল্লাহ প্রমুখ।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft