রবিবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৯
জাতীয়
কালো টাকা সাদা করার পক্ষে সাফাই গাইলেন রওশন এরশাদ
কাগজ ডেস্ক :
Published : Saturday, 29 June, 2019 at 8:19 PM
কালো টাকা সাদা করার পক্ষে সাফাই গাইলেন রওশন এরশাদবাজেটে কালো টাকা সাদা করার পক্ষে সাফাই গেয়েছেন সংসদের বিরোধী দলীয় উপনেতা রওশন এরশাদ। শনিবার সংসদে ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটের ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।
কালো টাকার পক্ষে নিজের মতামত তুলে ধরে রওশন এরশাদ বলেন, প্রত্যেক দেশেই কালো টাকা সাদা করার সুযোগ আছে। কালো টাকা সাদা করার সুযোগ দিলে বিত্তশালীরা দেশে বিনিয়োগ করবেন। না হলে টাকা পাচার হয়ে যাবে।
তিনি বলেন, এসব টাকা (কালো টাকা) দেশে বিনিয়োগ হলে, শিল্পপ্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা হলে কর্মসংস্থান বাড়বে। তাই কালো টাকা সাদা করার প্রস্তাব বাস্তবায়ন করতে হবে বলে দাবি জানান তিনি।
বিরোধী দলীয় উপনেতা বলেন, ব্যাংকগুলোতে নগদ অর্থ নেই। বেসরকারি খাত ব্যাংক থেকে ঋণ পাচ্ছে না। অথচ বাজেটের ঘাটতি পূরণে ব্যাংক থেকে ঋণ নেওয়ার পদক্ষেপ নিয়েছেন।
কর্মসংস্থান সৃষ্টিকে বড় চ্যালেঞ্জ আখ্যা দিয়ে রওশন এরশাদ বলেন, বেসরকারি খাতে বিনিয়োগের মাধ্যমে কর্মসংস্থান সৃষ্টি অবশ্য বড় চ্যালেঞ্জ। তারপরও কর্মসংস্থান বাড়াতে হবে। না হলে বৈষম্য কমবে না।
এজন্য এখন থেকেই পরিকল্পনা করা দরকার বলে পরামর্শ দেন তিনি।
অর্থবছর জুলাই-জুন না করে জানুয়ারি-ডিসেম্বর করার প্রস্তাব করে রওশন বলেন, যখন অর্থবছর শুরু হয় তখন ভরা বর্ষা থাকে। এ কারণে বাজেট বাস্তবায়ন করা কঠিন হয়ে পড়ে। এ বিষয়টি বিবেচনায় নেওয়া উচিত। তিনি শিক্ষা ও স্বাস্থ্য খাতে বরাদ্দ বাড়ানো এবং শিক্ষার গুণগত মান নিশ্চিত করতে উদ্যোগ নেওয়ার, অনলাইনে কেনাকাটায় কর প্রত্যাহার, বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির ক্ষেত্রে সাংসদদের মতামত নেওয়ার আহ্বান জানান।
কৃষকদের জন্য প্রণোদনা বাড়ানোর দাবি জানিয়ে জাতীয় পার্টির এই সংসদ সদস্য আরও বলেন, ধান বেশি হলো, কিন্তু কৃষকরা মাথায় হাত দিয়ে বসে আছেন। তাদের প্রণোদনা দিতে হবে। যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্যেও কৃষকদের শতভাগ ভর্তুকি দেওয়া হয়। কৃষককে কেন ধানক্ষেতে আগুন দিতে হলো, তিনি খাদ্যমন্ত্রী ও কৃষিমন্ত্রীর কাছে এর জবাব চান।
বাজেটের ইতিবাচক দিকের প্রশংসা করে রওশন বলেন, এর আগে কখনও সংসদ সদস্যরা এত আগ্রহ-উৎসাহ নিয়ে বক্তব্য দেননি।
রাজস্ব খাতে ব্যাপক সংস্কার আনার পরামর্শ দিয়ে বিরোধী দলীয় উপনেতা বলেন, ভ্যাট কাঠামো কার্যকর করার আগে বিশেষজ্ঞদের মতামত নেওয়া প্রয়োজন।
বিরোধীদলীয় নেতা এইচ এম এরশাদ অসুস্থ থাকায় তিনি বাজেট অধিবেশনে ছিলেন না। নিজের বক্তব্যে এরশাদের জন্য সবার কাছে দোয়া প্রার্থনা করেন তার স্ত্রী রওশন।
তিনি বলেন, আমাদের চেয়ারম্যান অনেক বেশি অসুস্থ। আস্তে আস্তে ভালোর দিকে যাচ্ছেন। তবে তিনি অনেক দুর্বল। আমরা মানসিকভাবে বিপর্যস্ত। তার আরোগ্য লাভের জন্য দোয়া চাচ্ছি। সবাই দোয়া করবেন।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft