বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৯
স্বাস্থ্যকথা
আমলকী খাওয়ার উপকারিতা
কাগজ ডেস্ক :
Published : Monday, 1 July, 2019 at 6:17 AM
আমলকী খাওয়ার উপকারিতাআমলকী একটি ঔষধি ফল। যার অনেক উপকারিতা রয়েছে। আমলকী রক্ত পরিশ্রুত করে। শরীর এবং ত্বক দূষণমুক্ত করে। এছাড়া আমলকীতে প্রচুর ভিটামিন থাকায় ত্বক-চুল ভালো হয়। সৌন্দর্যে ঝলমলিয়ে ওঠে।  
শরীরে ভিটামিন সি-এর ঘাটতি মেটাতে আমলকীর জুড়ি নেই। ভিটামিন সি-এর অভাবে যেসব রোগ হয়, যেমন - স্কার্ভি, মেয়েদের লিউকরিয়া, অর্শ প্রভৃতি ক্ষেত্রে আমলকী খেলে উপকার
পাওয়া যায়।
হার্টের রোগীরা আমলকী খেলে ধরফরানি কমবে। টাটকা আমলকী তৃষ্ণা মেতে, ঘন ঘন প্রস্রাব হওয়া বন্ধ করে, পেট পরিষ্কার করে। আমলকী মানেই প্রচুর অ্যামিনো অ্যাসিড আর anti-oxidant। এই উপাদান দুটি হৃদপিণ্ডের কর্মক্ষমতা বাড়ায়।
ডায়েটিসিয়ানদের মতে, ঠাণ্ডার রোগ যাদের আছে তারা রোজ এক চামচ আমলকীর রসে এক চামচ মধু মিশিয়ে খেতে পারেন। এতে সর্দি-কাশি থেকে রেহাই মিলবে।
আমলকীর রসের টক স্বাদ শরীরে জমে থাকা বাড়তি শর্করা নষ্ট করে দেয়। তাই ডায়াবেটিস রোগীদের সুগারনিয়ন্ত্রণে রাখতে আমলকীর সত্যি বিকল্প নেই। শুধু কি তাই? আমলকীর রস রোজ খেলে সর্দি-কাশি কমে যায় বলে হাঁপানির রোগীরাও শীতে তুলনায় সুস্থ থাকেন। তাই ইনহেলারের বদলে আজ থেকে আপন করে নিন আমলকীকে।
শুরুতেই বলা হয়েছে, আমলকীর রসে প্রচুর anti-oxidant উপাদান আছে। এই উপাদান শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থ বের করে দেয়। বিষাক্ত পদার্থ বেরিয়ে গেলে শরীর সুস্থ থাকে। তার জন্য ত্বক-চুল-এ আসে বাড়তি জেল্লা।
আয়ুর্বেদ আরও বলছে, আমলকীর রস হজম ক্ষমতা বাড়ায়। আমলকীর মধ্যে থাকা এনজাইম গ্যাস-অম্বল কমায়। এতে খাবার সহজে হজম হয়। সরাসরি আমলকীর রস খেতে না পারলে রোজ নুন মাখানো আমলকীর টুকরো দুপুরে খাওয়ার পর খেয়ে নিন। একই ফল পাবেন। 



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft