বুধবার, ২৪ জুলাই, ২০১৯
শিক্ষা বার্তা
চাকরি পেতে আজ তদবির করতে হয় না : শিক্ষামন্ত্রী
কাগজ ডেস্ক :
Published : Wednesday, 3 July, 2019 at 7:41 PM
চাকরি পেতে আজ তদবির করতে হয় না : শিক্ষামন্ত্রীশিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে স্বাধীন বাংলাদেশে মেধা আর যোগ্যতার প্রাধান্য দেওয়া হচ্ছে। ডিজিটাল বাংলাদেশে ছাত্র ভর্তিসহ সব চাকরির নিয়োগে স্বচ্ছতা আনা হয়েছে। সেজন্য আজকে আর কোথাও তদবির করতে হয় না। আজকে দক্ষতা ও মেধা দিয়ে যার যার জায়গায় আসতে পারছে।
বুধবার (৩ জুলাই) ঢাকা কলেজের শহীদ আ.ন. ম. নজির উদ্দিন খান অডিটরিয়ামে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণীতে ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীদের নবীনবরণ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।
দীপু মনি বলেন, শিক্ষার্থীদের ভালো ছাত্র হওয়ার পাশাপাশি অনেকগুলো মূল্যবোধ আছে যেগুলো না হলে ভালো মানুষ হওয়া যায় না। সেসব মূল্যবোধ নিশ্চয়ই আমাদের শিক্ষার মাধ্যমে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। সহশিক্ষা কার্যক্রমের মাধ্যমে আমাদের শিক্ষার্থীদের মূল্যবোধ শেখাতে হবে।
শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, একই সাথে আমাদের অনেকগুলো মূল্যবোধ আছে যেগুলো না মেনেও তুমি হতে পার ভালো ছাত্র, হতে পার বড় চাকরিজীবী, হতে পার বড় ব্যবসায়ী বা বড় রাজনীতিবিদ কিন্তু যে মূল্যবোধগুলো না থাকলে তুমি ভালো মানুষ হবে না। সেই মূল্যবোধগুলো হলো- দেশপ্রেম, মানুষের প্রতি ভালোবাসা, সততা, মানবিকতা।
ঢাকা কলেজের ঐতিহ্য তুলে ধরে নবীনদের উদ্দেশে দীপু মনি বলেন, পড়াশোনার পাশাপাশি সহশিক্ষা কার্যক্রম যেগুলো আছে, যেমন- খেলাধুলা, বিতর্ক প্রতিযোগিতা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান; এসবে নিয়মিত অংশগ্রহণ করে নিজের প্রতিভাকে আরো বিকশিত করতে হবে।
মন্ত্রী বলেন, 'ঢাকা কলেজের অনেক শিক্ষার্থী এই দেশটাকে স্বাধীন করতে গিয়ে প্রাণ দিয়েছেন । এছাড়াও ৬৯ -এর গণঅভ্যুত্থান, ৬২ -এর গণবিরোধী শিক্ষানীতি আন্দোলন, ৯০ -এর গণঅভ্যুত্থান প্রতিটি ক্ষেত্রেই এই কলেজের শিক্ষার্থীদের রয়েছে বিরাট অবদান। এই কলেজে পড়েছেন অনেক গুণী মানুষ যেমন, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দিন আহমেদ, আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো গানের রচয়িতা আব্দুল গাফফার চৌধুরী, আমাদের প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমান সহ অসংখ্য গুণী মানুষ এই ঢাকা কলেজের ছাত্র ছিলেন।'
ঢাকা কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক নেহাল আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. সোহরাব হোসাইন, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মুনশী শাহাবুদ্দিন আহমেদ, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক প্রফেসর ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক প্রমুখ।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft