সোমবার, ২২ জুলাই, ২০১৯
স্বাস্থ্যকথা
মৌরির উপকারিতা
কাগজ ডেস্ক :
Published : Friday, 12 July, 2019 at 6:24 AM
মৌরির উপকারিতারেস্তোরাঁয় খাবার খেতে গিয়েছেন। ভরপেট খাওয়া শেষে ওয়েটারকে ডেকে বিল দেওয়ার সময় সে এক বাটি মৌরি এনে আপনার সামনে রাখল। আপনিও বিল দিয়ে এক মুঠো মৌরি হাতে নিয়ে খেতে খেতে বের হয়ে এলেন। এই দৃশ্যটি রেস্তোরাঁর বেশ পরিচিত একটি দৃশ্য। কিন্তু কখনো আপনার ভাবনায় এসেছে কেন খাবার শেষে মৌরি দেওয়া হয়? রেস্তোরাঁর কোনো কর্মচারীকে ডেকে যদি এর কারণ জিজ্ঞেস করেন তবে এর সঠিক উত্তর নাও মিলতে পারে।
অনেক দিন আগে থেকেই খাবার শেষে মৌরি দেয়ার প্রচলন ছিল ভারতীয় উপমহাদেশে। কারণ প্রাচীন কালেই বৈদ্যরা আবিষ্কার করেছিলেন এর উপকারিতা সম্পর্কে। চলুন জেনে নিই কেন খাবার শেষে মৌরি চিবালে উপকার পাওয়া যায়-
মাউথ ফ্রেশনার হিসেবে
মৌরিতে থাকা উপাদান কাজ করে মাউথ ফ্রেশনার হিসেবে। এতে থাকা সুগন্ধই এর জন্য কাজ করে।
হজম সহায়ক এবং কোষ্ঠবদ্ধতা দূর
মৌরি চিবোলে মুখ থেকে নিঃসৃত লালা হজমে সহায়ক হয়। পাশাপাশি মৌরিতে থাকা ফাইবার খাদ্যকে পাচন তন্ত্র বেয়ে এগিয়ে যেতে সহায়তা করার সাথে সাথে কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যাও দূর করে। সুগন্ধী এই খাবারটির উপকারিতার কথা জেনেই খাওয়া শেষে মৌরি চিবোনোর প্রচলন শুরু হয়েছিল।
সবচেয়ে মজার বিষয় হচ্ছে, পেট পরিষ্কার রাখার ওষুধ তৈরিতে বা ইসুবগুলের ভূষি যেটি স্বাস্থ্যের জন্য বেশ উপকারী সেটি প্রস্তুতেও মৌরি ব্যবহার করা হয়। এ থেকেই বোঝা যায় মৌরি স্বাস্থ্যের জন্য বেশ উপকারিই বটে।
প্রস্রাবের সমস্যা দূর
মৌরির চা পান করলে শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থ বের হয়ে যাওয়ার পাশাপাশি প্রস্রাবের সমস্যা দূর হয়। এটি মূত্রবর্ধক হিসেবেও কাজ করে।
দৃষ্টিশক্তির উন্নতি
খাওয়ার পর নিয়মিত এক চা চামচ মৌরি খেলে দৃষ্টিশক্তি বাড়ে। কারণ এতে রয়েছে ভিটামিন 'এ' এবং বিটা ক্যারোটিন যা চোখের দৃষ্টির জন্য উপকারী। এছাড়াও চোখের সমস্যা গ্লুকোমা কমাতেও এটি কার্যকর।
ঠান্ডা রাখে শরীর
গরম আবহাওয়ায় মৌরি খেলে শরীর ঠান্ডা থাকে। এতে রয়েছে শরীরকে প্রশান্তি দেয়ার উপাদানও। আর তাই স্নায়ু ও মনকে শান্ত রাখতে মৌরির তেলও মালিশ করা হয়।
কৃমিনাশক
মৌরি পাতার নির্যাস কৃমিনাশক হিসেবে কাজ করে।
ক্যানসার প্রতিরোধক
মৌরিতে থাকা খাদ্যআঁশ কোলন ক্যানসার প্রতিরোধে খুবই কার্যকরী ভূমিকা রাখে। এছাড়াও এতে থাকা অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ফ্ল্যাভনয়েড ক্যানসার প্রতিরোধক হিসেবে কাজ করে।
শরীরের ব্যথা কমাতে
মৌরির তেল মালিশে হাড়ের ব্যথা কমে। এছাড়াও শরীর ব্যথা বা ওজন কমাতেও এটি কার্যকর।
অ্যাজমা এবং ব্রঙ্কাইটিস থেকে মুক্তি
অ্যাজমা এবং ব্রঙ্কাইটিস থেকে মুক্তি পেতে মৌরির পাতা গরম পানিতে সিদ্ধ করে এর ধোঁয়া নিঃশ্বাসের সঙ্গে নিন।
ধূমপানের ইচ্ছা কমায়
সামান্য ঘি বা মাখন দিয়ে মৌরি ভেজে বোতলে ভরে রাখুন। ধূমপানের ইচ্ছা জাগলে আধা চামচ মৌরি মুখে নিয়ে চিবিয়ে নিন, নেশা কমে যাবে।
পেটের ব্যথা দূর করতে
পেট ফাঁপা, গ্যাস এবং পেট কামড়ের যদি সমস্যা দেখা দেয় তবে সমপরিমাণ ভাজা মৌরি এবং চিনি গুঁড়া দুই চামচ ঠান্ডা পানির সঙ্গে মিশিয়ে নিয়ে দুই ঘণ্টা পর পর পান করুন। সমস্যাগুলো থেকে মুক্তি মিলবে সহজেই।
মৌরির এইসব স্বাস্থ্য উপকারিতা চিকিৎসা বিজ্ঞানেও স্বীকৃত। আমরা অনেকেই এর উপকারিতা সম্পর্কে তেমন জানি না। আবার রেস্তোরাঁয় খেতে গেলে তারাও যে সব জেনে খেতে দিচ্ছেন তাও নয়। তারা এটি করেন মূলত রীতি মেনে। না জেনে এই রীতি মানাতেও কিন্তু বলতে গেলে আমাদের সুস্থতার দিকে তারা পরোক্ষভাবে নজর রাখছেন!




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft