বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯
সারাদেশ
নওগাঁর সাপাহারে কৃষকরা ধান চাষের ক্ষতি পুষিয়ে নিচ্ছে আমে
মোফাজ্জল হোসেন, নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি :
Published : Friday, 12 July, 2019 at 5:40 PM
নওগাঁর সাপাহারে কৃষকরা ধান চাষের ক্ষতি পুষিয়ে নিচ্ছে আমে নওগাঁর সাপাহার উপজেলা এখন আমের রাজ্যে পরিণত হয়েছে। গড়ে প্রতিদিন এখানে প্রায় ৫ কোটি টাকার আম কেনা-বেচা হচ্ছে।
আজ থেকে অন্তত: ১০বছর আগে এই উপজেলায় বেশ কয়েক জন কৃষক তাদের ধানের উঁচু জমিতে ধান চাষাবাদের পরিবর্তে হাইব্রীড জাতীয় আমরুপলী আমের চাষ করে। ছোট ছোট এ সব গাছ রোপনের এক বছর পর হতেই গাছে আম ধরতে শুরু করে এবং আমের গুনগত মান অন্যান্য আমের তুলনায় বেশ ভাল হওয়ায় বাজারে বেশ চড়া দামেও বিক্রি হয় সাপাহারের আম।
সে থেকে একের পর এক কৃষক দিন দিন তাদের ধান চাষের জমির সংখ্য কমিয়ে আম চাষে মনোনিবেশ করতে থাকে। বর্তমানে সাপাহার উপজেলায় প্রায় সাড়ে ৪শ হেক্টর জমিতে এই আমের চাষ করা হয়েছে। গত বছর আমের বাজার বেশ মন্দা গেলেও এবছর আমের বাজার বেশ চড়া। বর্তমানে প্রতিমন রুপালী (আমরুপলী) আম ৩ হাজার থেকে ৪ হাজার ৫শ’টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।
এবছর এই উপজেলার কৃষকগন ধান চাষে ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছিল  কিছুটা হলেও সে ক্ষতি পুষিয়ে নিচ্ছে আমে। বর্তমানে বর্ষা মৌসুমের একমাস অতিবাহিত হলেও কাঙ্খীত কোন বৃষ্টিপাত না হওয়ায় কৃষকগন আমন আবাদ বাদ দিয়ে প্রতিযোগীতা মুলক ভাবে তাদের আমন চাষাবাদের জমিতে আম গাছ রোপন করেছে।
সাপাহার উপজেলার কৃষকগন যে হারে আমের বাগান তৈরী করে চলেছে তাতে করে আগামী দু’এক বছরে হয়ত এই উপজেলায় ধান চাষের জমি খুজে পাওয়া মুশকিল হয়ে পড়বে বলে অভিজ্ঞ মহল মনে করছেন। বর্তমানে সাপাহার উপজেলা সহ পার্শ্ববর্তী পোরশা, পতœীতলা ধামইরহাট উপজেলার আমগুলিও কেনা-বেচা হচ্ছে সাপাহারে।
গত কয়েক বছর হতে সাপাহারে আমের বানিজ্য কেন্দ্র গড়ে উঠলেও এবছর তার পরিধি প্রায় দ্বিগুন হারে বেড়ে গেছে, দেশের চাপাই নবাবগঞ্জ, রাজধানী ঢাকা, ফরিদপুরের মাদারী পুর, গোপালগঞ্জ, ময়মনসিং, বরিশাল,  ফেনি, নোয়াখালি, কুমিল্লাহ সহ বেশ কিছু এলাকা থেকে শত শত আম ব্যাবসায়ী এসেছে নওগাঁ জেলার সাপাহারে। সাপাহার উপজেলার হাসপাতালের মোড় হতে গোডাউন পাড়া পর্যন্ত  প্রায় ২কিলোমিটার এলাকা জুড়ে দুই শতাধীক আমের আড়ত গড়ে উঠেছে।
আড়তগুলি মেইন রাস্তার উভয় পার্শ্বে হওয়ায় প্রতিদিন সকাল ৯ টা হতে বেলা ৩টা পর্যন্ত রাস্তায় জ্যাম লেগে থাকায় স্কুল কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থী ও জরুরী কাজে নিয়োজিত ্এ্যামবুলেন্স, বিভিন্ন অফিসের গাড়ী ও পথচারীরা পড়ছে বিপাকে। এই দুই কিলোমিটার রাস্তা পার হতে তাদের সময় লাগছে দুই থেকে আড়াই ঘন্টা।সাপাহারে এবারে শেষ পর্যন্ত প্রায় ৩শ’কোটি টাকার আমের বানিজ্য হবে বলে আম ব্যাবসায়ী সমিতির সভাপতি শ্রী কার্তিক সাহা সহ স্থানীয় অভিজ্ঞমহল মনে করছেন।
বর্তমানে সাপাহারে আমের বানিজ্য ব্যাপক আকার ধারণ করলে ভবিষ্যতে এই আম বানিজ্য কেন্দ্রটি আন্তর্জাতিক বাজারে রুপলাভ করার জন্য সর্বস্তরের ব্যাবসায়ীগণ ও বাগান মালিকগন সংশি¬ষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি কামনা করেছেন। 



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft