বুধবার, ১৬ অক্টোবর, ২০১৯
জাতীয়
‘ক্ষমতা কাঠামো পরিবর্তন করতে হবে’
কাগজ ডেস্ক
Published : Tuesday, 16 July, 2019 at 4:39 PM
‘ক্ষমতা কাঠামো পরিবর্তন করতে হবে’লিঙ্গসমতা অর্জনে ক্ষমতা কাঠামো পরিবর্তন করতে হবে বলে জানিয়েছেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।
এজন্য সংসদ সদস্যদের সক্রিয় ভূমিকা রাখার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘এখনই লিঙ্গসমতা অর্জনের উপযুক্ত সময়।’
সোমবার (১৫ জুলাই) জাতিসংঘ সদরদফতরে ‘টেকসই বিশ্বের জন্য লিঙ্গসমতা ও নারী নেতৃত্ব’ শিরোনামে অনুষ্ঠিত বৈশ্বিক নেতাদের অনানুষ্ঠানিক সভায় ‘টেকসই উন্নয়নের জন্য লিঙ্গসমতা ও একীভূত সমাজ’ শীর্ষক প্যানেল আলোচনায় তিনি এ কথা বলেন। জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সভাপতি মারিয়া ফার্নান্দে এসপিনোসা গার্সেজ এর সভাপতিত্ব করেন।
আলোচনায় স্পিকার লিঙ্গসমতা অর্জনে বিশ্বনেতাদের করণীয় সম্পর্কে আলোকপাত করেন। তিনি বলেন, ‘ক্ষমতা কাঠামো পরিবর্তন করতে হবে। এজন্য প্রয়োজন সংসদ সদস্যদের সক্রিয় ভূমিকা। আর এখনই তা বাস্তবায়নের উপযুক্ত সময়। ’
শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন,‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে বাংলাদেশে লিঙ্গসমতা অর্জন ও নারীর ক্ষমতায়নের জন্য জাতীয় নারী উন্নয়ন নীতি প্রণয়ন করা হয়েছে।’
এছাড়া তিনি অতিদরিদ্র নারীদের জন্য সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী সৃষ্টি, বিধবা ভাতা, প্রসূতি নারীদের ভাতা, পেশা উন্নয়ন ও তথ্য-প্রযুক্তিগত প্রশিক্ষণ, নারীর প্রতি সহিংসতা রোধসহ যে সকল পদক্ষেপ বাস্তবায়ন করা হয়েছে তা উল্লেখ করেন।
স্পিকার বলেন, ‘বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ নারী ক্ষমতায়নের প্রকৃষ্ট উদাহরণ। সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী নারী, স্পিকার, সংসদ উপনেতা, বিরোধীদলীয় উপনেতা এবং বর্তমান মন্ত্রী পরিষদের অনেক গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে নারীরা রয়েছেন। নারীদের জন্য সংরক্ষিত আসন রয়েছে ৫০টি এবং বর্তমান সংসদে ২৩ জন নারী সংসদ সদস্য সরাসরি ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন। সামরিক বাহিনী, প্রশাসন,পুলিশ, আইন ও বিচার বিভাগীয় প্রতিষ্ঠানসহ সকল ক্ষেত্রেই রয়েছে নারীর দৃশ্যমান উপস্থিতি। জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী মিশনে বাংলাদেশের নারীরা সুনামের সাথে কাজ করছেন। দেশে ৪০ লাখেরও বেশি নারী তৈরি পোশাক শিল্পে কাজ করছে যা লিঙ্গসমতার উজ্জ্বল উদাহরণ।’
তিনি আরও বলেন, ‘নারীরা এগিয়ে যাচ্ছে। প্রথাগত ধারণা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে, তাহলেই লিঙ্গসমতা অর্জন সম্ভব।’
নারীর প্রতি সহিংসতা রোধে এবং নারী ক্ষমতায়নের ক্ষেত্রে বৈশ্বিক পদক্ষেপসমূহকে আরও শক্তিশালী করার উপর গুরুত্বারোপ করেন স্পিকার।
সভায় উদ্বোধনী বক্তব্য দেন- জাতিসংঘের ৭৩তম সাধারণ পরিষদের সভাপতি মারিয়া ফার্নান্দে এসপিনোসা গার্সেজ। পরে স্পিকার জাতিসংঘ সদরদফতরে এইচএলপিএফ এর পার্লামেন্টারি ফোরাম আয়োজিত ‘গ্রোয়িং ইনিকোয়ালিটিস অ্যান্ড ডিসট্রাস্ট ইন গভর্নমেন্ট: ব্রেকিং দ্য সাইকেল’ শীর্ষক প্যানেল আলোচনা অনুষ্ঠানে যোগ দেন।
দিনব্যাপী এই আলোচনা অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন- জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন এবং জাতীয় সংসদের সিনিয়র সচিব ড. জাফর আহমেদ খান।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft