রবিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
আন্তর্জাতিক সংবাদ
নিহতদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করেছেন প্রিয়াঙ্কা
আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
Published : Saturday, 20 July, 2019 at 5:51 PM
নিহতদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করেছেন প্রিয়াঙ্কাঅবশেষে নতি স্বীকার করেছে উত্তর প্রদেশ সরকার। শুক্রবার থেকে নানা টনাটকের পর শনিবার সকাল থেকে দুপুর চুনার দুর্গে নিহতদের আদিবাসীদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করেছেন কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধী ভদ্র। এর আগে ভারতের উত্তরপ্রদেশে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে ১০ জন খুন হওয়ার পর ঘটনাস্থলে যাওয়ার পথে তাকে রাজ্যের মির্জাপুর থেকে আটক করেছে যোগী আদিত্যনাথের পুলিশ। আটক করার পর তাকে চুনার দুর্গের অতিথিশালায় রাখা হয়। তিনি সেখানেই রাত কাটান।
সোনভদ্রে এদিন দুপুরেই রাজ্য সরকারের এক কর্মকর্তা প্রিয়াঙ্কাকে আটক করার কথা অস্বীকার করে বলেছেন, তিনি স্বাধীনভাবে যেখানে ইচ্ছে যেতে পারেন। তারপরই নিহতদের আত্মীয়দের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন প্রিয়াঙ্কা। তারপর সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি বললেন, ‘আমার উদ্দেশ্য সফল হয়েছে। তবে আমি এখনও আটক। এবার সরকার কী করে দেখা যাক’।
তবে তার দাদি ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর সঙ্গে ধর্না নিয়ে কোনওরকম তুলনায় নারাজ প্রিয়াঙ্কা বলেন, তিনি রাহুলের কথাতেই সেখানে গিয়েছেন। প্রিয়াঙ্কা আরো জানান, নিহতদের পরিবার পিছু তার দল ১০ লক্ষ টাকা করে ক্ষতিপূরণ ঘোষণা করেছে।
শনিবার সকালে মির্জাপুরের চুনারের যে গেস্ট হাউসে প্রিয়াঙ্কা রাতভর ছিলেন সেখান থেকে বেরিয়ে সোনভদ্রে যাওয়ার উদ্যোগ নেন প্রিয়াঙ্কা। এ সময় তাকে ফের বাধা দেয় রাজ্যপুলিশ। এদিন সকালে গেস্ট হাউসে তার সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলেন গত বুধবার গুলিতে নিহত ১০ আদিবাসীদের পরিবারের লোকজন।
কিন্তু তখন ১৫ জনের মধ্যে মাত্র দুজনকে প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে দেখা করার অনুমতি দিয়েছিল পুলিশ। এ ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে নিহতদের আত্মীয়দের সঙ্গে নিয়ে ফের গেস্ট হাউস চত্বরেই ধর্নায় বসে পড়েন তিনি।
সেখানে উপস্থিত সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে প্রিয়াঙ্কা বলেন, রাজ্য প্রশাসনের মানসিকতা তার বোধগম্য হচ্ছে না কারণ, যখন আদিবাসীদের উপর হামলা হচ্ছিল তখন প্রশাসনের উচিত ছিল তাদের রক্ষা করা যা তারা করেনি।
এর আগে শনিবার সকালেই রাজ্য প্রশাসনের কর্মকর্তারা প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে দেখা করতে গেলে তিনি তাদের সাফ জানিয়ে দেন যে, নিহতদের পরিবারে সঙ্গে দেখা না করে তিনি সোনভদ্র ছাড়বেন না। যেহেতু এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি রয়েছে সেজন্য মাত্র দুজন লোককে সঙ্গে নিয়ে সেখানে যাওয়ার অনুরোধ জানালেও প্রশাসন তা নাকচ করে দিয়েছে বলে অভিযোগ করেন প্রিয়াঙ্কা।
প্রিয়াঙ্কাকে যোগী সরকারের পুলিশের হাতে আটক হওয়া প্রসঙ্গে কংগ্রেস শনিবার অভিযোগ করে বলে, উত্তর প্রদেশের বিজেপি সরকার প্রিয়াঙ্কাকে যেভাবেই হোক ফেরত পাঠাতে চাইছে। কারণ, সেখানে জঙ্গল রাজ চলছে এবং প্রশাসন অপরাধীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে অসমর্থ।
রাহুল গান্ধী অভিযোগ করেন, গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া মেনে প্রিয়াঙ্কা মৃতদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে চাইলেও তাতে বাধা দিচ্ছেন যোগী আদিত্যনাথ। দলীয় মুখপাত্র রণদীপ সুরজেওয়ালা টুইটারে অভিযোগ করেছেন, ‌অন্যায়ভাবে যোগীর পুলিস প্রিয়াঙ্কাকে আটক করে চুনারের যে গেস্ট হাউসে গত রাতে রেখেছিল সেখানে রাতে পানি এবং বিদ্যুৎ সংযোগও ছিল না।’
প্রসঙ্গত, গত বুধবার উত্তরপ্রদেশের সোনভদ্রা গ্রামে জমি নিয়ে সংঘর্ষের জেরে গুলিবিদ্ধ হয়ে যে ১০ জন নিহত হয়েছেন তাদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে শুক্রবার সেখানে রওয়ানা হয়েছিলেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। কিন্তু সোনভদ্রে যাওয়ার পথে প্রিয়াঙ্কাকে আটক করে উত্তর প্রদেশ পুলিশ। তারপর তাকে মির্জাপুর নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই গেস্ট হাউসে রাতভর ছিলেন তিনি। রাতে বিদ্যুৎ সংযোগ চলে গেলে প্রিয়াঙ্কাকে দলীয় কর্মীদের সঙ্গে অন্ধকারেই বসে থাকতে দেখা যায়। সকালে পুনরায় বিদ্যুৎ সংযোগ চালু করা হয়। সূত্র: আজকাল



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft