বুধবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
জাতীয়
বরগুনায় আদালত চত্বরে আসামিদের চিৎকার
কাগজ ডেস্ক :
Published : Tuesday, 3 September, 2019 at 4:46 PM
বরগুনায় আদালত চত্বরে আসামিদের চিৎকাররিফাত হত‌্যায় নির্দেশদাতাকে কেনো সাত নম্বর আসামি করা হয়েছে তা নিয়ে বিক্ষোভ প্রকাশ করে আদালত চত্বরে চিৎকার করেছে হত‌্যা মামলার আসামিরা।
মঙ্গলবার সকাল সাড়ে দশটার দিকে আসামিদের বরগুনা জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতে হাজির করা হয়। হাজিরা শেষে আদালতের নির্দেশে ফের জেল হাজতে পাঠানোর জন্য পুলিশের গাড়িতে তোলার সময় কয়েকজন আসামি চিৎকার করতে শুরু করেন।
রিশান ফরাজীসহ কয়েকজন আসামি চিৎকার করে বলতে থাকেন, ‘এটা অন্যায়, এটা অবিচার। সুনাম দেবনাথ কেনো সাত নম্বর আসামি। রিফাত হত্যার নির্দেশদাতা সে। বাদশা হত্যার কেন বিচার নাই, এটা অবিচার এটা অন্যায়।’ এসব বলে চিৎকার করতে থাকলে পুলিশ তাদেরকে দ্রুত প্রিজন ভ্যানে তুলে জেল হাজতে নিয়ে যায়।
সুনাম দেবনাথ বরগুনা-১ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট ধীরেন্দ্র চন্দ্র দেবনাথের ছেলে। তিনি জেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক।
আসামিদের বক্তব‌্যের বিষয়ে জানতে চাইলে সুনাম দেবনাথ বলেন, ‘আপনারা জানেন আসামিদের একটি অংশ আমাদের রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ। ওই প্রতিপক্ষের ছত্রছায়ায় এরা এসব অপকর্ম করে বেড়াত। তাদের শেখানো কথাই এখন আসামিরা বলে আমার ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার চেষ্টা করছে। আপনারা খোঁজ নিয়ে দেখুন, ১৬৪ ধারার জবানবন্দিতে কেউ কোথাও আমার সম্পৃক্ত থাকার কথা বলেছে কি না। যদি সেখানে তারা এসব না বলে থাকে, তবে এখন এমন বক্তব‌্যের মানে নিশ্চয়ই বুঝতে পারছেন!’
এদিকে দুপুর নাগাদ বরগুনা জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম গাজীর আদালতে মিন্নির জামিন মঞ্জুরের আদেশ সংক্রান্ত হাইকোর্টের আদেশ ডাকযোগে এসে পৌঁছেছে।
মিন্নির আইনজীবী মাহবুবুল বারি আসলাম জানান, বেলা তিনটা নাগাদ আদালতের বেলবন্ড বরগুনা জেলা কারাগারে পৌঁছাতে পারে। বেলবন্ড পৌঁছালেই মিন্নি কারাগার থেকে মুক্ত হতে পারবে।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft