বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৯
ক্রীড়া সংবাদ
চট্টগ্রাম টেস্ট বাঁচাতে পারল না বাংলাদেশ
ক্রীড়া ডেস্ক :
Published : Monday, 9 September, 2019 at 7:45 PM
চট্টগ্রাম টেস্ট বাঁচাতে পারল না বাংলাদেশচট্টগ্রাম টেস্ট বাঁচাতে পারল না বাংলাদেশ। ২২৪ রানের স্মরণীয় এক জয় পেয়েছে আফগানিস্তান।
অস্ট্রেলিয়ার পাশে আফগানিস্তান
বৃষ্টির বাধা ছিল। তবুও রশিদ খানের অসাধারণ বোলিংয়ে জয় তুলে নিয়েছে আফগানিস্তান। নিজেদের তৃতীয় টেস্টেই আফগানরা পেল দ্বিতীয় জয়। তাদের চেয়ে কম ম্যাচে দুই জয় পায়নি টেস্ট ইতিহাসের কোনো দলই। সমান তিন ম্যাচ লেগেছিল অস্ট্রেলিয়ার। আফগানরাই তাই অস্ট্রেলিয়ার পাশে বসল।
পারলেন না সৌম্য
ম্যাচ বাঁচাতে পারলেন না সৌম্য সরকার। দিনের সম্ভাব্য ৩.২ ওভার বাকি থাকতে শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হয়েছেন তিনি।
রশিদ খানের বল সামনের পায়ে ডিফেন্স করেছিলেন সৌম্য। ক্যাচ চলে যায় শর্ট লেগে ইব্রাহিম জাদরানের হাতে। ৫৯ বলে ১৫ রানে আউট হন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। জয়ের আনন্দে মাতে আফগানিস্তান।
দ্বিতীয় ইনিংসে ৬টিসহ ম্যাচে ১১ উইকেট নিয়েছেন রশিদ। প্রথম ইনিংসে ব্যাট হাতে করেছেন ফিফটি। ম্যাচসেরার পুরস্কারটা উঠেছে তার হাতেই। অধিনায়কত্বের অভিষেকটা এর চেয়ে ভালো আর হতে পারত না রশিদের!  
সংক্ষিপ্ত স্কোর
আফগানিস্তান ১ম ইনিংস ৩৪২ ও ২য় ইনিংস ২৬০
বাংলাদেশ ১ম ইনিংস ২০৫ ও দ্বিতীয় ইনিংস (লক্ষ্য ৩৯৮) ১৭৩
ফল: আফগানিস্তান ২২৪ রানে জয়ী।
ভুল সিদ্ধান্তের শিকার তাইজুল
আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্তের শিকার হয়ে সাজঘরে ফিরেছেন তাইজুল ইসলাম। রশিদ খানের বল ডিফেন্স করেছিলেন তিনি। ব্যাটের কানায় লেগে বল লাগে তার পায়ে। জোরালো আবেদনে বেশ কিছুটা সময় নিয়ে আঙুল তুলে দেন আম্পায়ার পল উইলসন।
তাইজুল নিতে চেয়েছিলেন রিভিউ। কিন্তু খানিক আগেই শেষ হয়ে গেছে বাংলাদেশের শেষ রিভিউ। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে নেমেছেন নাঈম হাসান।
রশিদের শিকার মিরাজ
মেহেদী হাসান মিরাজকে ফিরিয়ে প্রতিরোধ ভেঙেছেন রশিদ খান। ভেঙেছে ৮.৫ ওভার স্থায়ী অষ্টম উইকেট জুটি।
সাকিব আল হাসানের বিদায়ের পর সৌম্য সরকারের সঙ্গে ভালোই লড়াই করছিলেন মিরাজ। রশিদের গুগলিটা ঠিকমতো বুঝতে পারেননি। ডিফেন্স করতে গিয়েছিলেন। বল আঘাত হানে তার প্যাডে। আঙুল তুলে দিতে দেরি করেননি আম্পায়ার। রিভিউ নিয়েছিলেন মিরাজ। তবে শেষ রক্ষা হয়নি। উল্টো দলের দ্বিতীয় ও শেষ রিভিউটা নষ্ট হয়েছে।
মিরাজ ১২ রানে ফেরার সময় বাংলাদেশের সংগ্রহ ৮ উইকেটে ১৬৬। সৌম্য সরকারের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন তাইজুল ইসলাম।
বাজে শটে আউট সাকিব
ম্যাচ বাঁচাতে ৪ উইকেট হাতে নিয়ে ৭০ মিনিট টিকতে হবে বাংলাদেশকে। অথচ বৃষ্টির পর আবার খেলা শুরুর প্রথম বলেই বাজে এক শটে আউট হয়েছেন সাকিব আল হাসান।
জহির খানের বলটা ছিল অফ স্টাম্পের বাইরে। কাট করতে গিয়েছিলেন সাকিব। বল তার ব্যাটের কানা ছুঁয়ে জমা হয় উইকেটকিপারের গ্লাভসে।
সাকিব ৪৪ রানে ফেরার সময় বাংলাদেশের সংগ্রহ ৭ উইকেটে ১৪৩ রান। সৌম্য সরকারের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন মেহেদী হাসান মিরাজ।
খেলা শুরুর অপেক্ষা
আফগানিস্তান দলের খেলোয়াড়রা বিকেল ৪টার দিকে মাঠে নেমে ওয়ার্ম-আপ শুরু করেছে। আবার বৃষ্টি হানা না দিলে ৪টা ২০ মিনিটে শুরু হবে খেলা। অন্তত ১৮.৩ ওভার খেলা হওয়ার কথা।
থেমেছে বৃষ্টি
বিকেল তিনটার পর বৃষ্টি থেমেছে চট্টগ্রামে। সুপারসপার দিয়ে পিচ কাভারের ওপর জমে থাকা পানি সরানোর কাজ শুরু হয়েছে। আউটফিল্ড শুকানোর কাজও চলছে।
দ্বিতীয় সেশনেও বৃষ্টির দাপট
প্রথম সেশন ভেসে গিয়েছিল বৃষ্টিতে। দ্বিতীয় সেশনে খেলা হয়েছিল মোটে ১৩ বল। এরপরই নামা বৃষ্টিতে চা বিরতির আগে আর খেলা শুরু করা যায়নি। দুপুর পৌনে তিনটায় দেওয়া হয়েছে বা বিরতি। তখনো বৃষ্টি থামেনি পুরোপুরি।
বৃষ্টি চলছেই
আগের চেয়ে কমে এসেছে বৃষ্টির বেগ। তবে পুরোপুরি থামেনি এখনো। দুপুর আড়াইটার দিকেও ঝিরঝির বৃষ্টি পড়ছিলই জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে। যা অবস্থা তাতে সম্ভবত ড্রই হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ-আফগানিস্তান একমাত্র টেস্ট।
আবার বৃষ্টি
দীর্ঘ অপেক্ষার পর শুরু হলো খেলা, আফগানিস্তানের তিন বোলার মিলে করলেন ঠিক ১৩ বল। এরপরই আবার শুরু হলো বৃষ্টি, ফিরে এলো কাভারও।
এই ১৩ বলে বাংলাদেশ তুলেছে ৭ রান। ৪৬ ওভার ৩ বলে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৬ উইকেটে ১৪৩। সাকিব আল হাসান ৪৪ ও সৌম্য সরকার ২ রানে অপরাজিত আছেন।
অবশেষে খেলা শুরু
দীর্ঘ অপেক্ষার পর দুপুর ১টায় শুরু হয়েছে শেষ দিনের খেলা। জয়ের জন্য আফগানিস্তানের দরকার মাত্র ৪ উইকেট, বাংলাদেশের চাই ২৬২ রান। সাকিব আল হাসান ৩৯ ও সৌম্য সরকার শূন্য রান নিয়ে ব্যাটিং শুরু করেছেন।
খেলা শুরু ১টায়
উইকেটের কাভার পুরোপুরি সরানো হয়েছে। চলছে মাঠ শুকানোর কাজ। বৃষ্টি আবার ফিরে না এলে দুপুর ১টায় শুরু হবে শেষ দিনের খেলা। অন্তত ৬৩ ওভার খেলানোর চেষ্টা করা হবে।
থেমেছে বৃষ্টি
দুপুর ১২টায় নামা বৃষ্টি ১৫ মিনিটের বেশি স্থায়ী হয়নি। বৃষ্টি থামার পর উইকেটের কাভার সরানোর কাজও শুরু হয়ে গেছে।
আবার বৃষ্টি
বৃষ্টি থামার পর বেলা সাড়ে ১১টায় সুপারসপার দিয়ে পিচ কাভারের ওপর থেকে পানি সরানোর কাজ শুরু হয়ে গিয়েছিল। কাভার তোলার কাজও শুরু হচ্ছিল কেবল। তবে ১২টার দিকে আবার শুরু হয়েছে বৃষ্টি।
ভেসে গেল প্রথম সেশন
টানা বৃষ্টিতে লাঞ্চ বিরতির আগে শেষ দিনের খেলা শুরু করা যায়নি। ভেসে গেছে প্রথম সেশনের খেলা।
থেমেছে বৃষ্টি
বেলা ১১টার পর বৃষ্টি থেমেছে চট্টগ্রামে। খানিক বাদে মেঘের আড়াল থেকে উঁকি দেয় সূর্যও। তবে উইকেট তখনো কাভারে ঢাকা রয়েছে। প্রথম সেশনের খেলা ভেস্তে যাওয়ার সম্ভাবনাই বেশি।
বৃষ্টি থামার নাম নেই
সকাল সাড়ে দশটায়ও বৃষ্টি থামেনি জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে। বরং বৃষ্টির মাত্রা আগের চেয়ে বেড়ে গেছে। আফগানিস্তানের হতাশাও বাড়ছে।
চট্টগ্রামে বৃষ্টি
গত রাত থেকেই বৃষ্টি হচ্ছে চট্টগ্রামে। আজ সকাল সাড়ে নয়টায় শেষ দিনের খেলা তাই শুরু করা যায়নি।
চতুর্থ দিনেও বাগড়া দিয়েছিল বৃষ্টি। খেলা শুরু হয়েছিল দুই ঘণ্টা দেরিতে। বৃষ্টিতে ভেসে গিয়েছিল দিনের শেষ ১৩ ওভারও। আজ আধা ঘণ্টা এগিয়ে খেলা শুরুর কথা ছিল। তবে যেভাবে বৃষ্টি হচ্ছে তাতে আজ খেলা মাঠে গড়ানো নিয়েই শঙ্কা রয়েছে!
আফগানিস্তান দল সকাল সকাল জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে এসে পৌঁছেছে। তবে বাংলাদেশ দল তখন হোটেল ছেড়েই বের হয়নি।
খেলা না হলে বড় লাভ বাংলাদেশের। এই টেস্টে বাংলাদেশকে হারাতে শেষ দিনে মাত্র ৪ উইকেট দরকার আফগানিস্তানের। বাংলাদেশের দরকার এখনো ২৬২ রান। উইকেটে আছেন সাকিব আল হাসান ও সৌম্য সরকার। তাদের পর আর কোনো বিশেষজ্ঞ ব্যাটসম্যান নেই।
চতুর্থ দিন শেষে
আফগানিস্তান ১ম ইনিংস: ৩৪২ ও ২য় ইনিংস: ২৬০
বাংলাদেশ ১ম ইনিংস: ২০৫ ও ২য় ইনিংস: (লক্ষ্য ৩৯৮) ৪৪.২ ওভারে ১৩৬/৬ (সাকিব ৩৯*, সৌম্য ০*)।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft