সোমবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৯
জাতীয়
বাবা-ছেলেকে বাস চাপার ঘটনা হত্যাকাণ্ড কিনা সন্দেহ তথ্যমন্ত্রীর
কাগজ ডেস্ক :
Published : Wednesday, 11 September, 2019 at 9:47 PM
বাবা-ছেলেকে বাস চাপার ঘটনা হত্যাকাণ্ড কিনা সন্দেহ তথ্যমন্ত্রীর  বাসচাপা দিয়ে বাবাকে হত্যার পর একই পরিবহনের আরেকটি বাস ছেলেকে চাপা দিয়ে আহত করার ঘটনা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ঘটনা দু’টি আদৌ দুর্ঘটনা নাকি হত্যাকাণ্ড বিষয়টি তদন্তের দাবি রাখে।
বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর শ্যামলীতে ট্রমা সেন্টারে চিকিৎসাধীন আহত ইয়াসির আলভীকে দেখতে গিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।
তথ্যমন্ত্রী বলেন, পুলিশ এ ঘটনা দু’টির তদন্ত করছে। তদন্তসাপেক্ষে দোষীদের বিচারের আওতায় আনা হবে।
বেপরোয়া চালকের প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশের কিছু কিছু ড্রাইভার বিশেষ করে বাস ও ট্রাকের ড্রাইভার খুবই বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালায়। অনেক ক্ষেত্রে দুর্ঘটনা নয়, ইচ্ছাকৃত চাপা দেওয়ার ঘটনাও ঘটছে। তাই সবগুলো দুর্ঘটনা নয়, অনেকগুলো হত্যাকাণ্ড। তারা দুষ্কৃতিকারী এবং দুর্বৃত্ত।
বেপরোয়া চালকদের অবশ্যই নিয়ন্ত্রণে আনতে হবে বলে জানিয়ে তিনি বলেন, কিছু চালকের ড্রাইভিং লাইসেন্স নেই, ট্রাফিক আইন মানে না। সব শ্রমিক-মালিক সমিতিগুলো জনসাধারণ এবং প্রশাসন ঐক্যবদ্ধভাবে উদ্যোগ নিলে সড়কের বিশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণ সম্ভব।
প্রসঙ্গত, গত ৫ সেপ্টেম্বর উত্তরার তুরাগে ভিক্টর পরিবহনের একটি বাসের চাপায় সংগীত পরিচালক পারভেজ রব নিহত হন। দু’দিন পর ৭ সেপ্টেম্বর বাবার কুলখানির বাজার করতে যাওয়ার সময় বন্ধুসহ একই পরিবহনের আরেকটি বাসে দুর্ঘটনার শিকার হন আলভী। এতে বন্ধু ছোটন ঘটনাস্থলে মারা যান এবং আলভী ট্রমা সেন্টারে চিকিৎসাধীন।
পারভেজ রবকে চাপা দেওয়া বাসের রুট পারমিট ছিল না- এমন প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, রুট পারমিট ছাড়া কীভাবে গাড়ি রাস্তায় বের হলো, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে। এর সঙ্গে প্রশাসনের কেউ জড়িত হলেও তাকে শাস্তির আওতায় আনা হবে।
সড়কে শৃঙ্খলার বিষয়টি বার বার বলা হলেও বাস্তবায়ন কবে হবে এমন প্রশ্নের জবাবে হাছান মাহমুদ বলেন, সব দেশেই সড়ক দুর্ঘটনা হয়। কিন্তু এর ব্যাপকতা এবং বিভিন্ন অনিয়ম নিয়ে প্রশ্ন। সড়কে শৃঙ্খলা আনতে ১১১টি সুপারিশ করা হয়েছে। আশা করি, এগুলো বাস্তবায়ন হলে দুর্ঘটনা কমে আসবে।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft