মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর, ২০১৯
জাতীয়
সারাবিশ্বে অযথা অস্ত্রের পিছনে অর্থ খরচ : ড. মোমেন
কাগজ ডেস্ক :
Published : Wednesday, 11 September, 2019 at 9:47 PM
সারাবিশ্বে অযথা অস্ত্রের পিছনে অর্থ খরচ : ড. মোমেনসারাবিশ্বে অযথা অস্ত্রের পিছনে অর্থ খরচ হচ্ছে। এ থেকে বের হতে রাজনৈতিক প্রতিশ্রুতি দরকার, গোটা বিশ্বে সেটা কমে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন।
বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে পিকেএসএফ ভবনে ‘টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট ৩: সুস্বাস্থ্য ও কল্যাণ’ বিষয়ক সেমিনারে এসব কথা বলেন তিনি।
পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, পরিকল্পনা বাস্তবায়নে সবচেয়ে বড় দরকার টাকা। বাংলাদেশের এসডিজি বাস্তবায়নে ৩০ হাজার কোটি ডলার দরকার। জনগণের ক্ষমতায়ন জরুরি। জনগণের ক্ষমতায়ন হলেই সব সমস্যার সমাধান হবে। দারিদ্র্য হলো সবচেয়ে বড় সংকট। কাউকে পিছনে ফেলে রাখা যাবে না। সবাইকে নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে।
ড. মোমেন বলেন, এমন এক পৃথিবী আমরা সৃষ্টি করতে চাই যেখানে সবার উন্নতি হবে। মানুষ, পৃথিবী, উন্নয়ন, পার্টানারশিপ—২০৩০ সালের টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট অর্জনে মূল অনুষঙ্গ।
‘রোহিঙ্গাদের ঘরবাড়ি তৈরি করতে হবে না, আগে ফিরিয়ে নিন’
পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশনের (পিকেএসএফ) সভাপতি ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ বলেন, মানুষের বাস্তবতাকে ধারণ করে আমাদের পরিকল্পনা নির্ধারণ করা উচিৎ। মানুষের সক্ষমতা বাড়াতে হবে।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবারকল্যাণ বিভাগের সচিব শেখ ইউসুফ হারুন বলেন, টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট-৩-এ ২৭টি সূচক রয়েছে। ২০৪০ সালের পরে বাংলাদেশের জনসংখ্যা কমতে থাকবে। তাই এখন থেকেই এই জনসংখ্যাকে দক্ষ করে তুলতে হবে। কারিগরি শিক্ষার অবস্থা ভালো নেই। এই খাতকে জরুরি ভিত্তিতে উন্নত করতে হবে, তাহলেই দক্ষ জনশক্তি সৃষ্টি হবে। বাল্যবিবাহের হার এখনও মারাত্মক, যা কমাতে ব্যবস্থা নিতে হবে। প্রতিবছর দেশে ৩৬ লাখ মা গর্ভবতী হয়। এর মধ্যে ৮ লাখ মা সন্তান চান না কিন্তু জন্ম দেন। অন্যদিকে দেশে ৮ লাখ গর্ভপাত ঘটানো হয় প্রতি বছর। এসব মায়েদের কাছে স্বাস্থ্যকর্মী পৌঁছাতে পারিনি।
অধ্যাপক ড. নিয়াজ আহমেদ খান বলেন, সফলতা ও চ্যালেঞ্জ পাশাপাশি চলে। অর্থনৈতিক উন্নয়ন ছাড়াও মানুষের সার্বিক উন্নয়নের যে অবস্থা তা থেকে আমরা অনেক পিছিয়ে রয়েছি। শুধু অর্থ নিয়ে মানুষের উন্নয়ন ব্যাখ্যা করা যায় না। জলবায়ু পরিবর্তনের জন্য নতুন রোগবালাই বেড়েছে, সেটিকে আমাদের মোকাবিলা করতে হবে যদি টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট-৩ বাস্তবায়ন করতে চাই।
সেমিনারে স্বাগত বক্তব্য দেন পিকেএসএফের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ মঈনউদ্দীন আবদুল্লাহ। প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন পিকেএসএফের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. জসীম উদ্দিন।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft