মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর, ২০২০
শিক্ষা বার্তা
শুক্রবার বন্ধ ঘোষণার পরও চালিয়েছেন কয়েকটি প্রতিষ্ঠান
প্রশাসনের নির্দেশনা আমলে নিচ্ছেন না কতিপয় কোচিং সেন্টার মালিক
কাগজ সংবাদ :
Published : Saturday, 21 September, 2019 at 6:24 AM
প্রশাসনের নির্দেশনা আমলে নিচ্ছেন না কতিপয় কোচিং সেন্টার মালিকযশোরে প্রশাসনের নির্দেশনাকে আমলে নিচ্ছেন না হাতেগোনা কয়েকটি কোচিং সেন্টার। গতকাল শুক্রবারও তারা যথারীতি কোচিং সেন্টার চালু রেখেছেন। যা নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে অভিভাবকসহ খোদ কোচিং সেন্টার মালিকদের মাঝে।
যশোরের সাংস্কৃতিক কর্মীদের পাঁচ বছরের আন্দোলনের সফলতা স্বরূপ ২০ সেপ্টেম্বর শুক্রবার থেকে শহরের দুই শতাধিক কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার নিদের্শনা দেয় জেলা প্রশাসন। এছাড়া স্কুল-কলেজ চলাকালীন ও জাতীয় দিবসগুলোতে কোচিং সেন্টার বন্ধ থাকবে বলে জেলা প্রশাসনের সাথে বৈঠকে প্রতিষ্ঠানের মালিকরা একমত হয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন। এ কারণে গতকাল শুক্রবার শহরের প্রায় সকল কোচিং সেন্টার বন্ধ ছিল। কিন্তু প্রশাসনের সে সিদ্ধান্তর প্রতি কয়েকটি কোচিং সেন্টার বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়েছেন। এদের মধ্যে অন্যতম শহরের মুজিব সড়কস্থ ঈদগাহ মোড় মতি শপিং মলের তৃতীয়তলায় উদ্ভাস ও উন্মেষ কোচিং সেন্টার। তারা এদিন সকাল ৮টা থেকে যথারীতি তাদের কোচিং চালু রেখেছেন। এখানে দুপুর পর্যন্ত বিভিন্ন শ্রেণির শতাধিক শিক্ষার্থীকে কোচিং করতে দেখা যায়। একইসাথে সরকারি এমএম কলেজ দক্ষিণ গেট ও বিমান অফিস মোড়ের আরো  ৪/৫টি কোচিং সেন্টার এদিন খোলা ছিল। এ কারণে প্রশাসনের একটি মহতি উদ্যোগ ও সাংস্কৃতিক কর্মীদের আন্দেলনের ফসল শুরুতেই নস্যাৎ হবার আশংকা দেখা দিয়েছে।   
যশোরের বিভিন্ন পাড়া-মহল্লায় দুই শতাধিক কোচিং সেন্টার রয়েছে। এসব কোচিং সেন্টারে শিশু শ্রেণী থেকে উচ্চ মাধ্যমিক, বিবিএ, এমবিএ, বিশ্ববিদ্যালয় এমনকি মেডিকেল ভর্তি কোচিং ও চাকরি প্রাপ্তির কোচিং পর্যন্ত করানো হয়। সকাল ৬টা থেকে রাত ৮টা অবধী বিভিন্ন শিফটে এসব সেন্টারে কোচিং চলে। যার থেকে কোন নিস্তার নেই শিশুসহ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে যাওয়া শিক্ষার্থীদের। শুক্রবারসহ সপ্তাহের সাতদিনই চলে এসব কোচিং সেন্টার। তবে শিক্ষার্থীদের শুক্রবারে আবার চাপ থাকে বেশী। এদিন বেশিরভাগ কোচিংয়ে থাকে পরীক্ষা। ফলে পরীক্ষার চিন্তায় শিক্ষার্থীদের ছুটির দিন মাটি হয়ে যায়। তাদের জন্য থাকে না কোন বিনোদন ও খেলাধুলা। এ অস্বস্থিকর পরিস্থিতি বিবেচনায় এনে যশোরের বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠনের কর্মীরা মাঠে নামেন। ২০১৫ সালে কালেক্টরেট সভাকক্ষে একটি সভায় তৎকালীন জেলা প্রশাসক ড. হুমায়ুন কবীরের কাছে শিক্ষার্থীদের এ অবস্থা বিবেচনায় এনে বিভিন্ন দাবি উপস্থাপন করেন সাংস্কৃতিক কর্মী ও সংগঠক অধ্যাপক সুকুমার দাস। তিনি দাবি জানান, সপ্তাহে অন্তত একটি দিন শুক্রবার কোচিং সেন্টার থেকে ছাত্র-ছাত্রীদের পরিত্রাণ দেয়া হোক। একইসাথে বিভিন্ন জাতীয় দিবসে ও স্কুল-কলেজ চলাকালীন কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার দাবি জানান। সর্বশেষ জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শফিউল আরিফের কাছে গত আগস্ট মাসে বিভিন্ন সংগঠনের সাংস্কৃতিক কর্মীরা একই দাবি নিয়ে হাজির হন। এসময়ে তিনি তাদেরকে পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন বলে জানান। এরই প্রেক্ষিতে চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহে তিনি নির্দিষ্ট এ ইস্যুতে সাংস্কৃতিক কর্মীদের সাথে বৈঠক করেন। এরপর জেলা প্রশাসক ১১ সেপ্টেম্বর কোচিং সেন্টার মালিক ও শিক্ষকদের সাথে বৈঠক করেন। সভায় মালিকরা জেলা প্রশাসকের সাথে একমত পোষণ করে শুক্রবারসহ জাতীয় দিবসগুলোতে ও স্কুল-কলেজ সময়ে কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন। এ সিদ্ধান্ত ১৩ সেপ্টেম্বর কোন কোন প্রতিষ্ঠানে বাস্তবায়ন হলেও ২০ সেপ্টেম্বর সকল প্রতিষ্ঠানে কার্যকর হবার কথা ছিল। কিন্তু শুরুতেই বেঁকে বসেছেন কেউ কেউ। ফলে প্রশাসনের এ পদক্ষেপ কতদিন কার্যকর থাকবে তা নিয়েও সংশয় প্রকাশ করেছেন অনেকেই।  
এ বিষয়ে উদ্ভাস কোচিং সেন্টারের ব্রাঞ্চ ইনচার্জ ইসমাইল হোসেন বলেন, শুক্রবারে কোচিং সেন্টার বন্ধের বিষয়টি তাদের জানা নেই। জেলা প্রশাসনের এ সংক্রান্ত কোন সভায় তাদেরকে ডাকা হয়নি বা বন্ধ রাখা সংক্রান্ত তাদেরকে কোন চিঠি দেয়া হয়নি।
এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শফিউল আরিফ বলেন, তিনি যোগদানের পর সাংস্কৃতিক কর্মীরা এ দাবিতে তার কাছে গেলে তিনি কোচিং সেন্টার মালিকদের সাথে সভার মাধ্যমে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। বিষয়টি প্রতিষ্ঠান মালিকদের বলা হলে তারা অনুধাবন করতে পেরে মেনে নিয়েছেন। এ সিদ্ধান্তের বাইরে কেউ কোচিং সেন্টার পরিচালনা করলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তিনি জানান।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft