বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর, ২০১৯
আন্তর্জাতিক সংবাদ
যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধবিরতির প্রস্তাবে তুরস্কের না
আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
Published : Wednesday, 16 October, 2019 at 8:16 PM
যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধবিরতির প্রস্তাবে তুরস্কের নাসিরিয়ায় উত্তরাঞ্চলে মার্কিনীদের যুদ্ধ বিরতির ডাকে সাড়া দেয়নি তুরস্ক। এ বিষয়ে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে উদ্দেশ্যে করে বলেন, 'তারা সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করবে না এবং অঞ্চলটিতে অবস্থানকৃত কুর্দিদের সঙ্গে কোন ধরনের আলোচনায় বসবে না।'
মার্কিনীদের অর্থনৈতিক অবরোধ, সিরীয় সেনাবাহিনীর সঙ্গে কুর্দিদের সহায়তা চুক্তি উপেক্ষা করে কুর্দিদের ওপর হামলা চালিয়ে যাচ্ছে তুর্কি বাহিনী।
এর আগে সোমবার কুর্দিদের ওপর হামলার প্রেক্ষিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তুরস্কের ওপর অর্থনৈতিক অবরোধ আরোপ করেন। কিন্তু তাও তুরস্ক হামলা বন্ধ না করায় বুধবার (১৬ অক্টোবর) মার্কিন এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা আরও অবরোধ আরোপ করা হবে বলে হুঁশিয়ারি দেন।
এর আগে মঙ্গলবার আজারবাইজান সফর শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলেন এরদোয়ান। সাংবাদিকদের প্রশ্নে এরদোয়ান বলেন, 'যতক্ষণ পর্যন্ত আমরা আমাদের লক্ষ্যে পোঁছাব না ততদিন পর্যন্ত হামলা অব্যাহত থাকবে। আর অবরোধের বিষয়ে আমরা চিন্তিত নই। তারা যুদ্ধবিরতির ঘোষণা দিয়েছে কিন্তু আমরা কোনদিন যুদ্ধবিরতির ঘোষণা দেব না। অভিযান বন্ধে তারা আমাদের উপর চাপ প্রয়োগ করলেও তা বন্ধ হবে না।'
তিনি আরও বলেন, 'জঙ্গিগোষ্ঠীর সাথে এক টেবিলে আমরা আলোচনায় বসব না।'
মার্কিন সৈন্য যেসব অঞ্চলে ছিল সেইসব অঞ্চলে নতুন করে রাশিয়ান সৈন্য স্থাপন করা হয়েছে। রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী সার্জি শোয়েগু মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে বলেন, রাশিয়ান সেনা সিরিয়ান ও তুর্কি বাহিনীর মধ্যবর্তী স্থানে অবস্থান করছে এবং সহিংসতা বন্ধে একটি সীমানা লাইনে টহল দিচ্ছে।
এছাড়া আগের সপ্তাহে ট্রাম্পের সঙ্গে এরদোয়ানের ফোনলাপে ট্রাম্প বলেন, 'তিনি মার্কিন চাহিদা উল্লেখ করে এবং সমঝোতা করতে মার্কিন প্রতিনিধিকে আঙ্কারায় পাঠাবেন।'
এরই প্রেক্ষিতে বুধবার হোয়াটহাউস থেকে দেশটির ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স বৃহস্পতিবার আঙ্কারায় এরদোয়ানের সাথে বৈঠক করবেন।
উল্লেখ্য, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সিরিয়া থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণার পরেই দেশটিতে কুর্দিদের উপর চালায় তুর্কি বাহিনী। ট্রাম্পের সিগন্যাল পাওয়ার পরেই এই হামলা শুরু হয়েছে বলে দাবি করেছে তুরস্ক। কিন্তু তা অস্বীকার করেন মার্কিন প্রতিরক্ষা সচিব এস্পার। কুর্দি বাহিনীর ওপর হামলার পর থেকে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েন ট্রাম্প।
এ হামলা পর থেকে ওইসব এলাকা থেকে পালিয়ে যাচ্ছে সাধারণ মানুষ। জাতিসংঘের তথ্য মতে, হামলার পর থেকে প্রায় দুই লাখ ৭৫ হাজার সিরিয়ান তাদের বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছেন। যার মধ্যে ৭০ হাজার শিশু রয়েছে। আর এসডিএফ'র মতে হামলায় এ পর্যন্ত ৭৫ জন বেসামরিক নাগরিক নিহত এবং ৪৫০ জন আহত হয়েছেন। আর তুরস্কের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে বলা হচ্ছে হামলায় কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টি (পিকেকে) এবং পিপল প্রটেকশন ইউনিট (ওয়াইপিজে) এর ৬৩৭ জঙ্গি নিহত হয়েছেন।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft