শুক্রবার, ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯
জাতীয়
সামাজিক সূচকে আমরা ভারতের চেয়েও এগিয়ে : গণপূর্তমন্ত্রী
কাগজ ডেস্ক :
Published : Tuesday, 19 November, 2019 at 7:49 PM
সামাজিক সূচকে আমরা ভারতের চেয়েও এগিয়ে : গণপূর্তমন্ত্রীগৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, বিশ্ব টয়লেট দিবসের প্রতিপাদ্য অনেক আগেই ধারণ করেছি। এজন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টয়লেট নির্মাণ করে দিয়েছেন। বর্তমান সরকার আরও টয়লেট নির্মাণ করবে। সামাজিক সূচকে আমরা ভারতের চেয়েও এগিয়ে।
মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) সকালে রাজধানীর তেজগাঁও বেঙ্গল মাল্টিমিডিয়া স্টুডিওতে হারপিক ও আরটিভির যৌথ উদ্যোগে ‘বিশ্ব টয়লেট দিবস’ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
শ ম রেজাউল করিম বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে অর্জিত দেশে কিছুই ছিল না। এখন বহু কিছু হয়েছে। এর আগে বাংলাদেশে অনেক সরকার এসেছে, কিন্তু তারা কিছুই করেনি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর প্রত্যেক স্কুলে ছেলে ও মেয়েদের জন্য আলাদা আলাদা টয়লেট নির্মাণ করে দিয়েছেন। প্রতিটি মহাসড়কে টয়লেট নির্মাণ করা হয়েছে। পেট্রোল পাম্পগুলোতে টয়লেট বাধ্যতামূলক করে দেওয়া হয়েছে। দেশের জনগণের জন্য এভাবেই পরিশ্রম করে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।  
মন্ত্রী বলেন, বিশ্ব টয়লেট দিবসের প্রতিপাদ্য অনেক আগেই ধারণ করেছি। এজন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টয়লেট নির্মাণ করে দিয়েছেন। এই সরকার আরও টয়লেট নির্মাণ করবে। সামাজিক সূচকে আমরা ভারতের চেয়েও এগিয়ে।
তিনি বলেন, আমাদের নতুন প্রজন্মকে স্বাস্থ্যসম্মতভাবে বেড়ে ওঠার সুযোগ করে দিতে হবে। তাদেরকে স্বাস্থ্যসম্মতভাবে গড়ে তুলতে হবে।  এটা করা না গেলে নতুন নেতৃত্ব আসবে না।
এ সময় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক কামরুল আহসান খান, আরটিভির ভাইস চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন, সংসদ সদস্য শামীমা শাহরিয়ার, ব্যানবেইজের মহাপরিচালক ফসিউল্লাহ প্রমুখ।
প্রসঙ্গত, ‘বিশ্ব টয়লেট দিবস’ আজ। প্রতিবছর ১৯ নভেম্বর দিবসটি পালন করা হয়। শতভাগ টয়লেট সুবিধা নিশ্চিতকরণের বিষয়টি মাথায় রেখে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ দিবসটি পালন করে থাকে। বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও আজ দিবসটি পালিত হচ্ছে।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft