শনিবার, ০৭ ডিসেম্বর, ২০১৯
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
বারান্দিপাড়ার সোহাগের খুনিরা আটক
রাকিবের ভাগ্নি ও স্ত্রীর সাথে পরকীয়ার জন্য খুন হয় সোহাগ
কাগজ ডেস্ক :
Published : Tuesday, 3 December, 2019 at 6:16 AM

রাকিবের ভাগ্নি ও স্ত্রীর সাথে পরকীয়ার জন্য খুন হয় সোহাগযশোরের পূর্ববারান্দি মোল্লাপাড়ায় কলেজ ছাত্র সোহানুর রহমান সোহাগ ওরফে মাইকেল (১৮) খুনের ঘটনায় জেলা গোয়েন্দা শাখা ডিবি হত্যা মিশনের ৩ সদস্যকে আটক করেছে। আটককৃতরা হচ্ছে মোল্লাপাড়ার মৃত খায়রুল ইসলামের ছেলে রায়হান (২১), নগেন কুমারের ছেলে কালিপদ (২৪) ও শেখহাটির ওহেদ আলীর ছেলে ছোট দাউদ (২১)। প্রযুক্তি ব্যবহার করে ঢাকা ও যশোরে পরিচালিত অভিযানে তারা আটক হয়। একই সাথে উদ্ধার করেছে খুনে ব্যবহৃত ছোরা, ঘুমের ওষুধ ও মদের বোতল।
আটককৃতরা জানায়, আদালতে আত্মসমর্পণ করা আসামি রাকিবের ভাগ্নি ও স্ত্রীর সাথে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ায় সোহাগকে খুন করা হয়। এ ব্যাপারে ব্রিফিং করেছে পুলিশ।
প্রেমজ ও পরকীয়া সম্পর্কের দ্বন্দ্বের কারণে ২০ অক্টোবর রাতে এলাকার চিহ্নিত একটি চক্রের হাতে খুন হন হামিদপুর ডিগ্রি কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র সোহানুর সোহাগ ওরফে মাইকেল। একই এলাকার রাকিকের পরিকল্পনায় খাইরুলের ছেলে রায়হানসহ কয়েক যুবক বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। মোবাইলেও তাকে কয়েক দফা ডাকা হয়। ২১ অক্টোবর বেলা ১১টার দিকে নদের পাড়ের বাসিন্দা বাসুদেব রায় ঘাস কাটতে গিয়ে সোহাগের লাশ দেখতে পান। এই তথ্যে ও পরে খোঁজখবর নিয়ে ২২ অক্টোবর রাতে নিহত সোহাগের বড় ভাই মিলন হোসেন থানায় লিখিত এজাহার দেন। অভিযুক্ত করা হয় এলাকার সিদ্দিকুর রহমানে ছেলে রাকিব, মৃত খাইরুলের ছেলে রায়হান, ভাংড়ি কাদেরের ছেলে কোরবান আলী ও  মৃত আইউব আলীর ছেলে শরীফকে। এদের মধ্যে পুলিশি অভিযানের কারণে রাকিব ও কোরবান আলী আদালতে আত্মসমর্পণ করে। এলাকা ছেড়ে আটক এড়িয়ে চলে অন্যরা।
মামলাটি তদন্তে মাঠে নামে ডিবি। ১ ডিসেম্বর বিকেলে ঢাকার চকবাজার থেকে ও ২ ডিসেম্বর ভোররাতে যশোর শহরের মোল্লাপাড়া থেকে পলাতকদের আটক করা হয়।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (বিশেষ শাখা) তৌহিদুল ইসলাম ২ ডিসেম্বর বেলা ১১টায় সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান। এসময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাকিব হাসান, ডিবি পুলিশের ওসি মারুফ আহমেদসহ অন্যান্য পুলিশ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
তৌহিদুল ইসলাম জানান, মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মফিজুল ইসলাম প্রযুক্তি ব্যবহার করে নিশ্চিত হন রায়হান রাজধানীতে অবস্থান করছে। ঢাকা থেকে রায়হানকে, মোল্লাপাড়া  থেকে কালিপদ ও দাউদকে আটক করেন। তিনি বলেন, এক আসামির স্ত্রী ও ভাগ্নির সাথে পরকীয়ায় জের হিসেবে উল্লেখিত আসামিরা সোহাগকে তাকে হত্যা করে।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft