সোমবার, ৩০ মার্চ, ২০২০
ওপার বাংলা
‘মোদি মানুষের ঠিকানা কেড়ে নিতে চান’
কাগজ ডেস্ক :
Published : Friday, 3 January, 2020 at 7:31 PM
‘মোদি মানুষের ঠিকানা কেড়ে নিতে চান’ভারতের নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে বিরোধী শিবিরকে জবাব দিতে পাকিস্তানকে আগেই টেনেছিলেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এবার সেই পাকিস্তান ইস্যুকেই হাতিয়ার করলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল প্রধান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
শুক্রবার শিলিগুড়িতে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের প্রতিবাদ মিছিল করার আগে পাকিস্তান নিয়ে বিজেপিকে তোপ দাগলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবার সভামঞ্চ থেকে বিরোধীদের উদ্দেশে সরাসরি প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়ে মমতা বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী কি পাকিস্তানের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডার হয়ে গিয়েছেন?’
সমস্ত কথায় প্রধানমন্ত্রী মোদি পাকিস্তানের কথা সামনে আনছেন বলেই অভিযোগ করেছেন মমতার। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, বিজেপি নেতারা বলছে পাকিস্তান চলে যাও, সব কিছুতেই পাকিস্তান। হিন্দুস্থান ভুলে গেছেন মোদি। হিন্দুস্থানে থেকে পাকিস্তান চর্চা করা হবে না বলেই সাফ জানিয়েছেন মমতা।
এর আগেও বিরোধিদের সঙ্গে একাধিকবার পাকিস্তানের তুলনা করেছে বিজেপি শিবির। তাই মমতার দাবি, পাকিস্তানের মাদুলি আমাদের চাই না।
উল্লেখ্য গত বৃহস্পতিবার পাকিস্তানকে সামনে রেখেই প্রধানমন্ত্রী বলেন, আজ দেশবাসীর মনে প্রশ্ন উঠছে,পাকিস্তান থেকে প্রাণ হাতে নিয়ে এদেশে এসেছেন অনেকে, বাড়ির মেয়েদের জীবন বাঁচাতে চলে এসেছেন, তাদের বিরুদ্ধে কেন বিক্ষোভ হচ্ছে।
মমতা বলেন, এনআরসি, সিএএ চালু করে দেশের মানুষের ঠিকানা কেড়ে নিতে চাইছে মোদি সরকার। কেন্দ্রের মোদি সরকারের কাছে খাবার, চাকরি চাইলেই কেন্দ্র বলে, পাকিস্তানে চলে যাও। মমতা বলেন, ভবিষ্যতে দেশের মানুষের ঠিকানা থাকবে কিনা সন্দেহ। তিনি আরো বলেন, ‘ভবিষ্যতকে সুরক্ষিত করতেই পথে নামা হয়েছে। ‌মানুষের অধিকার কেড়ে নেওয়ার চেষ্টা চলছে। এটা মানবিকতার লজ্জা। আমাদের নাগরিকত্ব ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা চলছে। কেন্দ্রীয় সরকার বলছে, মা বাবার জন্মের শংসাপত্র দেখাতে হবে। না দেখাতে পারলে বেরিয়ে যেতে হবে। ভোটার লিস্টে নানারকম গণ্ডগোল করার চেষ্টা চলছে। প্র‌ত্যেক কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর কথায় ভুলভ্রান্তি ধরা পড়ছে।’




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft