শনিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
করোনাভাইরাস বিষয়ক সেমিনারে তথ্য
যমেকে প্রস্তত রয়েছে কেবিন ও বিশেষজ্ঞ বিকিৎসক দল
কাগজ সংবাদ :
Published : Friday, 14 February, 2020 at 6:23 AM

যমেকে প্রস্তত রয়েছে কেবিন ও বিশেষজ্ঞ বিকিৎসক দলকরোনাভাইরাস সংক্রমনে প্রাদুর্ভাবের ভয়াবহতা, আক্রান্তদের সুচিকিৎসা নিশ্চিত, চিকিৎসার কাজে নিয়োজিত ডাক্তার-নার্সসহ অন্যান্য স্বাস্থ্যসেবীর নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণ ও ভাইরাসটির সংক্রমন প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থাপনা বিষয়ে সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের আয়োজনে বৃহস্পতিবার দুপুরে এ সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। এতে সরকারি-বেসরকারি পর্যায়ে কর্মরত বিভিন্ন বিভাগের ডাক্তার, হাসপাতালের নার্স ও অন্যান্য স্বাস্থ্যসেবীরা অংশ গ্রহণ করেন।
দুপুর দেড়টার দিকে হাসপাতালের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন তত্ত্বাবধায়ক ডাক্তার দিলীপ কুমার রায়। সহকারী পরিচালক ডাক্তার হারুন-অর-রশিদের সঞ্চালনায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন মেডিসিন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডাক্তার গৌতম আচার্য্য।
সেমিনারে জানানো হয় চলমান প্রেক্ষাপটে বাংলাদেশে করোনাভাইরাস সংক্রমনের কোনো আশঙ্কা নেই। তারপরও সরকার সজাগ ও সচেতন। বিদেশে যাতায়াতকারীদের স্ক্রিনিংয়ের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে দেশের প্রত্যেকটি আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর ও স্থল বন্দরে। যদি কোনো কারণে দেশে করোনা ভাইরাসের সংক্রমন হয় তবে আক্রান্তদের সর্বোন্নত চিকিৎসা নিশ্চিত করতে ঢাকায় দু’টি হাসপাতাল প্রস্তুত রাখা হয়েছে। বিশেষ ব্যবস্থা রাখা হয়েছে দেশের সব ক’টি সরকারি হাসপাতালেও। যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সংক্রামক ওয়ার্ডে চারটি সংরক্ষিত কেবিন প্রস্তুত রাখা হয়েছে। প্রস্তুত রয়েছেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দল। চিকিৎসা প্রার্থী ও চিকিৎসার কাজে নিয়োজিতদের নিরাপত্তার স্বার্থে বিশেষ পোশাকও প্রস্তুত রাখা হয়েছে। তবে, সবকিছুর আগে সচেতনতা।
সর্দি, কাশি, হাঁচি ও তীব্র জ্বরে আক্রান্তদের বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের তত্ত্বাবধানে রেখে চিকিৎসা নিশ্চিতকরণসহ তাদের থেকে নিরাপদ দূরত্বে থাকতে হবে। থাকতে হবে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন। প্রত্যেকবার খাবার গ্রহণের আগে সাবান দিয়ে ভালো করে হাত ধুয়ে নিতে হবে। এগুলো নিশ্চিত করতে পারলেই আতঙ্কের কোনো কারণ থাকবে না।  
সেমিনারে উল্লেখযোগ্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বিপিএমপিএ’র সভাপতি ডাক্তার আবুল কাশেম, সহসভাপতি রুহানীউল করীম, সিনিয়র ডাক্তার এস এ সিদ্দিক, যশোর মেডিকেল কলেজের অর্থোসার্জারি বিভাগের প্রধান ডাক্তার গোলাম ফারুক, মেডিসিন বিভাগের প্রধান এবিএম সাইফুল আলম, অ্যানেসথেশিওলজি বিভাগের প্রধান এএইচএম আহসান হাবিব, সার্জারি বিভাগের সিনিয়র কনসালটেন্ট আব্দুর রহিম মোড়ল, রেডিওলজি এন্ড ইমেজিং বিভাগের সিনিয়র কনসালটেন্ট সৈয়দ সাজ্জাদ কামাল, বক্ষ্মব্যাধি বিভাগের সিনিয়র কনসালটেন্ট জিজিএ কাদরী, কার্ডিওলজি বিভাগের জুনিয়র কনসালটেন্ট তৌহিদুল ইসলাম, প্যাথলজিক্যাল বিভাগের জুনিয়র কনসালটেন্ট হাসান আব্দুল্লাহ, শিশু মেডিসিন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মাহাবুবুর রহমান, ডাক্তার পলাশ কুমার বিশ্বাস, জুনিয়র কনসালটেন্ট ডাক্তার আব্দুস সামাদ, মেডিসিন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডাক্তার গৌতম ঘোষ, ডাক্তার দেবাশীষ দত্ত, নেফ্রোলজিস্ট উবাদুল কাদির উজ্জ্বল, অর্থোসার্জারি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক এ আর শিমুল, শিশু সার্জারি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আনছার আলী, ডাক্তার মাসফিকুর রহমান স্বপন, আবাসিক মেডিকেল অফিসার আরিফ আহমেদ, উপসেবা তত্ত্বাবধায়ক ফেরেদৌসী বেগম প্রমুখ।



আরও খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft