বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০
আন্তর্জাতিক সংবাদ
সিরিয়ায় ক্ষেপণাস্ত্রবাহী যুদ্ধ জাহাজ পাঠাচ্ছে রাশিয়া
আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
Published : Friday, 28 February, 2020 at 7:38 PM
সিরিয়ায় ক্ষেপণাস্ত্রবাহী যুদ্ধ জাহাজ পাঠাচ্ছে রাশিয়াসিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় ইদলিব প্রদেশে বিমান হামলায় ৩৩ তুর্কি সেনা নিহত হওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে সিরিয়া ও রাশিয়ার মধ্যকার উত্তেজনা ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে।
শুক্রবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম জানায়, তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারা দাবি করে এ হামলায় রাশিয়া জড়িত। আঙ্কারার এ দাবি সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন বলে জানিয়েছে রাশিয়া। বিমান হামলার ঘটনায় দুই দেশের মধ্যকার উত্তেজনা বৃদ্ধি পাওয়ায় সিরিয়া সীমান্তে যুদ্ধ জাহাজ পাঠাচ্ছে রাশিয়া।
রাশিয়ার স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, ৩৩ তুর্কি সেনা নিহতের দায় রাশিয়াকে দেওয়ার ঘটনায় রাশিয়া ক্ষেপণাস্ত্র সজ্জিত দুটি যুদ্ধজাহাজ সিরিয়া উপকূলে পাঠিয়েছে।
সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ান জানিয়েছে, এ হামলার পর শরণার্থীদের ইউরোপে পালিয়ে যাওয়ার জন্য সীমান্ত খুলে দিয়েছে তুরস্ক। এ ঘটনায় রাশিয়া-তুরস্কের সম্পর্ক আরও খারাপের দিকে যেতে পারে বলে শঙ্কা প্রকাশ করছে আন্তর্জাতিক মহল।
এদিকে তুরস্কের একজন কর্মকর্তার বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, সিরিয়ার বিমান হামলায় ৩৩ তুর্কি সেনা নিহত ও আরো বহু সেনা আহত হয়েছে। এমনকি তুর্কি সেনা নিহত আরও অনেক বেশি হতে পারে বলেও জানানো হয়েছে।  
এর আগে শুক্রবার ভোরে তুরস্কের সেনাদের ওপর এ হামলা চালানো হয়। হামলায় ৩৩ তুর্কি সেনা নিহত হয়েছেন। দেশটির জাওয়িয়া পাহাড়ের আল-বারা ও বিলিয়োন শহরের মধ্যবর্তী একটি এলাকায় এ অভিযান চালানো হয়।
ইদলিব হচ্ছে বাশার আসাদ বিরোধী বিদ্রোহীদের সর্বশেষ ঘাঁটি। এখানে আসাদ বিরোধী নানা পক্ষের সৈন্য রয়েছে। তন্মধ্যে আল কায়েদা সমর্থক গোষ্ঠী যেমন আছে, তেমনি আছে তুরস্ক সমর্থিত বিদ্রোহী ও কিছু কুর্দি বাহিনী।
অন্যদিকে রাশিয়া ও ইরানের সাহায্য নিয়ে প্রেসিডেন্ট বাশার আসাদ সরকারের সেনাবাহিনী এখন সিরিয়ার প্রায় সব ভূখণ্ড বিদ্রোহীদের হাত থেকে মুক্ত করে ফেলেছে। বাকি আছে শুধু এই ইদলিব। এ কারণে তিনি ডিসেম্বর থেকে ইদলিবে অভিযান শুরু করেছেন। এ অভিযানে ইতোমধ্যে শত শত মানুষ মারা গেছেন।
এ দিকে তুরস্কের চাওয়া, ইদলিব প্রদেশের সীমান্ত সংলগ্ন অঞ্চলগুলোকে নিরাপদ এলাকায় পরিণত করা।
এর কারণ হলো, সিরিয়ার ১০ বছরব্যাপী যুদ্ধের কারণে এত বিপুল সংখ্যক লোক পালিয়ে তুরস্কে আশ্রয় নিয়েছে যে তুরস্ক এখন বলছে, তাদের আর নতুন অভিবাসী আশ্রয় দেবার জায়গা নেই।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft