রবিবার, ৩১ মে, ২০২০
সম্পাদকীয়
করোনায় কেড়ে নিল লক্ষ প্রাণ
Published : Saturday, 11 April, 2020 at 7:26 PM
নভেল করোনাভাইরাসে মাত্র তিন মাসে লক্ষ প্রাণ কেড়ে নিল। এ ভাইরাসে মানবদেহে সংক্রমণ ঘটেছিল গত বছরের ডিসেম্বরে, তার এক মাসের মধ্যে এই বছরের শুরুতে ১১ জানুয়ারি তা ঘটিয়েছিল প্রথম মৃত্যু। আর তার ঠিক তিন মাসে মৃতের সংখ্যা লক্ষ ছাড়াল। নতুন ধরনের এই ভাইরাস প্রতিরোধে এখনও নেই টিকা, নেই নির্দিষ্ট কোনো ওষুধও। ফলে থমকে যাওয়া বিশ্বে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর মিছিল ক্রমেই দীর্ঘ হচ্ছে, যা কতদূর যাবে তা এখনও অনিশ্চিত। আমি বা আমরা বাংলাদেশের নাগরিক হওয়ার সুবাদে বিশ্ববাসীও। সে জন্য উদ্বেগের অন্ত নেই। তারপরও বাংলাদেশ নিয়ে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা কম নেই। কারণ ইতিমধ্যেই আমাদের মধ্যে থেকে ৩০ জন প্রাণ হারিয়েছেন।
এই মহামারী পর্যবেক্ষণ করে আসা জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটি শুক্রবার রাতে দেওয়া হালনাগাদ তথ্যে ১ লাখ ৩৭৬ জন মানুষের মৃত্যুর কথা জানিয়েছে। এ সময় পর্যন্ত বিশ্বের ১৮৫ দেশ ও অঞ্চলে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ছিল ১৬ লাখ ৫০ হাজার ২১০ জন। আর আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৩ লাখ ৬৮ হাজার ৬৬৯ জন। করোনাভাইরাস মহামারীর শুরুতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা-ডব্লিউএইচও আক্রান্তদের মধ্যে ২ শতাংশের মৃত্যুর আশঙ্কার কথা জানিয়েছিল। সেটা ছিল ফেব্রুয়ারি মাসের ঘটনা; তারপর পরিস্থিতির ভয়াবহতা দেখে ৩ মার্চ বলেছিল, মৃত্যুর হার ৩ দশমিক ৪ শতাংশে যেতে পারে। কিন্তু মৃতের সংখ্যা যখন লাখ ছাড়াল, তখন দেখা যাচ্ছে আক্রান্তদের মধ্যে প্রায় ৬ শতাংশ মৃত্যুর করাল গ্রাসে পড়ছে।
বিপর্যস্ত ইউরোপ ও যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা যে গতিতে বাড়ছে, তাতে মৃত্যুর হার যে কোথায় যাবে, তা এখন অনুমান করতে নারাজ অনেক গবেষক। আর বাংলাদেশের মৃত্যুর হারও অস্বাভাবিক। এই উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা এখন বাংলাদেশের ঘরে ঘরে। ঘরবন্দী থাকা ১৮ কোটি মানুষ নানা শংকায় প্রতি মুহূর্ত পার করছে। আসুন আমরা চরম মানবিক বিপর্যয় এড়াতে এই মুহূর্তে ঘরবন্দী থাকাসহ সরকারের দেয়া সব ঘোষণা অনুসরণ করি। কারণ, তা ছাড়া আমাদের সামনে এই ভয়াবহ ভাইরাস এড়ানোর আর কোনো পথ খোলা নেই।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft