বৃহস্পতিবার, ০২ জুলাই, ২০২০
ওপার বাংলা
পশ্চিমবঙ্গে রাজ্যপাল ও মুখ্যমন্ত্রীর দ্বন্দ্ব চরমে
চলছে আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণ
কাগজ ডেস্ক :
Published : Friday, 24 April, 2020 at 6:16 PM
পশ্চিমবঙ্গে রাজ্যপাল ও মুখ্যমন্ত্রীর দ্বন্দ্ব চরমেপশ্চিমবঙ্গে রাজ্যপাল জগদীপ ধানকারকে মুখ্যমন্ত্রী এবং মমতা বন্দোপাধ্যায়ের মধ্যে দ্বন্দ্ব ও মতভেদ চরম আকার ধারণ করেছে। আক্রমণাত্মক ভাষায় চিঠির জবাবে পাল্টা চিঠি পাঠানো চলছে।
মুখ্যমন্ত্রী নিজের সাংবিধানিক কর্তব্যকে ধারাবাহিক ভাবে অবহেলা করছেন এবং সংখ্যালঘুদের তোষণ করছেন অভিযোগ জানিয়ে রাজ্যপাল চিঠি পাঠিয়েয়েন মমতার কাছে। চিঠিতে তিনি রাজ্যে করোনাভাইরাসের মোকাবিলায় সরকার ব্যর্থ বলেও দাবি করেন।
এর আগে বৃহস্পতিবারকরোনা ভাইরাস নিয়ে রাজ্যপাল জগদীপ ধানকারকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় পাঁচ পাতার চিঠি দিয়ে রাকয়াপালের ভূমিকায় অসন্তোষ প্রকাশ করেছিলেন। চিঠির ভাষা ছিল চাঁচাছোলা এবং তীক্ষ্ণ। শুক্রবার রাজ্যপাল জগদীপ ধানকার মমতাকে চৌদ্দ পাতার চিঠি দিয়ে জানালেন, মুখ্যমন্ত্রী সংবিধান মেনে চলতে বাধ্য থাকেন। কিন্তু পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী সংবিধানকে মানছেন না। করোনা মোকাবিলায় নিজের ব্যার্থতা ঢাকতে একটির পর একটি অসত্যের আশ্রয় নিচ্ছেন। রাজ্যের মানুষের ক্ষতির কথা মাথায় রাখছেন না।
রাজ্যপাল চিঠিতে লিখেছেন, আপনার মুসলিম তোষণ সুবিদিত। মুসলিমদের স্বার্থ দেখতে গিয়ে আপনি রাকয়াবাসীর ক্ষতি করছেন। ক্ষতি হচ্ছে মুসলমানদেরও। এই সত্য আপনি বুঝতে পারছেন না। কিংবা বুঝতে চাইছেন না। চৌদ্দ পাতার চিঠিতে মোট সাইত্রিশটি অভিযোগ আছে। চিঠির মূল সুরটি হলো সংবিধান ভঙ্গ করে মুখ্যমন্ত্রী কাজ করছেন। কেন্দ্রীয় সরকারের আইন কানুনের পরোয়া করছেন না। যেটা দুর্ভাগ্যজনক।
চিঠিতে রাজ্যপাল, চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মী নিগ্রহের কথা উল্লেখ করে বলেছেন, এ ক্ষেত্রও তিনি ব্যর্থ হযেছেন। মমতা সরকার বাংলা ও বাঙালির ক্ষতি করছেন বলে রাজ্যপাল চিঠিতে জানিয়েছেন। রাজ্যপালের এই পত্রবোমার জবাব মমতা কিভাবে দেন সেটাই এখন দেখার।
রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা লুকোচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী। করোনা ভাইরাস নিয়ে রাজ্যপাল জগদীপ ধানকারকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় বৃহস্পতিবার পাঁচ পাতার চিঠি দিয়ে রাকয়াপালের ভূমিকায় অসন্তোষ প্রকাশ করেছিলেন। চিঠির ভাষা ছিল চাঁচাছোলা এবং তীক্ষ্ণ। শুক্রবার রাজ্যপাল জগদীপ ধানকার মমতাকে চৌদ্দ পাতার চিঠি দিয়ে জানালেন, মুখ্যমন্ত্রী সংবিধান মেনে চলতে বাধ্য থাকেন। কিন্তু পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী সংবিধানকে মানছেন না। করোনা মোকাবিলায় নিজের ব্যার্থতা ঢাকতে একটির পর একটি অসত্যের আশ্রয় নিচ্ছেন। রাজ্যের মানুষের ক্ষতির কথা মাথায় রাখছেন না।
রাজ্যপাল চিঠিতে লিখেছেন, আপনার মুসলিম তোষণ সুবিদিত। মুসলিমদের স্বার্থ দেখতে গিয়ে আপনি রাকয়াবাসীর ক্ষতি করছেন। ক্ষতি হচ্ছে মুসলমানদেরও। এই সত্য আপনি বুঝতে পারছেন না। কিংবা বুঝতে চাইছেন না। চৌদ্দ পাতার চিঠিতে মোট সাইত্রিশটি অভিযোগ আছে। চিঠির মূল সুরটি হলো সংবিধান ভঙ্গ করে মুখ্যমন্ত্রী কাজ করছেন। কেন্দ্রীয় সরকারের আইন কানুনের পরোয়া করছেন না। যেটা দুর্ভাগ্যজনক। চিঠিতে রাজ্যপাল, চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মী নিগ্রহের কথা উল্লেখ করে বলেছেন, এ ক্ষেত্রও তিনি ব্যর্থ হযেছেন। মমতা সরকার বাংলা ও বাঙালির ক্ষতি করছেন বলে রাজ্যপাল চিঠিতে জানিয়েছেন।
এদিকে রাজ্যপালের কাছ থেকে আপত্তিকর অভিযোগের কড়া ভাষার চিঠি পেয়ে ভীষণ চটেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মততা ব্যানার্জি। তিনি এরই মধ্যে সহকারিদের নিয়ে বসে পড়ছেন চিঠির খসড়া তৈরিতে। রাজ্যপালের কড়া চিঠির জবাব মমতা কিভাবে দেন সেটাই এখন দেখার।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft