শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর, ২০২০
আক্কেল চাচার চিঠি (আঞ্চলিক ভাষায় লেখা)
গরুচুরি কত্তি পিরাইভেট কার কিনেচে চোর !
Published : Wednesday, 12 August, 2020 at 1:09 AM
গরুচুরি কত্তি পিরাইভেট কার কিনেচে চোর !গুরুজনে কইয়ে থাকেন কাজরে ককনো ছোট কইরে দেকতি নেই, তালি নাই জীবনে উন্নতির মুক চোকি দেকা যায় না। এই কতা কিডা মাইনে চলে কিডা মাইনে চলে না তাগের খুইজে বের করাডা খুব কঠিন। কিন্তুক কাল পিপারে একজনের এট্টা খবর পইড়ে একেবারে থ’ মাইরে গিলাম। ছ্যামড়াডার নাম মিজানুর রহমান হাওলাদার। স¹লি তারে মিজান নামেই চেনে। বাড়ি দক্কিনির অ্যাবার শেষ মাতা ঝালকাঠি জিলার রাজাপুর উপজিলায়। ভাইপো যে খাইন বাদায়েচে তা শুনলি চোক চড়ক গাছ হইয়ে যাবে। বিটা ছাবাল পিশায় গরু চোর। কিন্তুক চোর হলিও রুচি আচে। এম্মিসেম্মি গরু চুরি করেনা। গরু চুরি করার জন্যি পিরাইভেট কার কিনেচে। তার এই কাজের জন্যি আবার দুইজন লোক নিয়োগ দেচে। তাগের কাজ হচ্চে সারেদিন পিরাইভেট চইড়ে ঘুইরে বেড়ানো। রাস্তার আশপাশে গরু দেকলি মালিকির খোজ নিয়ে বাড়ি চিইনে আসা। তারপর রাইত হলি চাপনিতি আইসে গরুর হাত পা মুক বাইন্দে জোরজার কইরে পিরাইভেটে চড়ানো। তারপর দে টান।  বচর তিনেক ধইরে এই কাজ মচ্চি মুলামে কইরে যাচ্চিল। কিন্তুক পশশুদিন সের পুইরে গেচে। ঘের খাইয়েচে পুলিশির হাতে। একন দুই কম্মচারী নিয়ে মিজান মিয়া পুলিশ হিফাজতে শউর বাড়ি আচে। গরু চুরি করার জন্যি পিরাইভেট কিনে তাতে চইড়ে বেড়ানো কিরামডা লাগে কও দিনি বাপু। উজিরপুর থানার ওসি জিয়াউল আহসান চাচা জানায়েচেন সোমবার বিয়ানবেলায় তকনও এট্টু ঘোর ঘোর রইয়েচে। ইরাম সুমায় এট্টা পিরাইভেট চোকশন্যি কইরে চালানো দেইকে টহল পুলিশির সন্দো হইলো। তারা গাড়ি থামানোর সংকেত দিলি তা না মাইনে আরো জোরে চালায় পলায় যাওয়ার চিস্টা দেয়। ভাব বেগতিক দেইকে পুলিশ রাস্তায় তাগের পিকআপ গাড়ি আড় কইরে দিয়ে রাস্তা আটকালি ঘের খাইয়ে যায়। এ সুমায় গাড়ি তলাশ কইরে তিনজন লোক আরাট্টা দেশী আইড়ে গরু পাওয়া যায়। পিরাইভেটে কইরে গরু কনে নিয়ে যাচ্চে জানতি চালি আমতা আমতা কচ্চিলো। এট্টু ডলা দিলি সব স্বীকার খাইয়েচে। পিরাইভেটে কইরে গরু চুরি করিস ক্যান,পুলিশ জানতি চালি মিজান চা’ কইয়েচে চুরাই গরু হাটায় আনা বিপদ জনক আবার লোকে টের পাইয়ে দাবোড় দিলি দৌড়োয় পলানোর চাইতি পিরাইভেটে টান দিয়াডাই সহজ। আবার চুরি আগে পিরাইভেটে চইড়ে গরুর মালিকির খোজ কত্তি গেলি কেউ সন্দো করেনা উল্টে স¹লি দেকায় দেয় মালিকির বাড়ি কুনডা। তাতে কাজ সাত্তি যুইত হইতো ।
ইতি
অভাগা আক্কেল চাচা
০১৭২৮৮৭১০০৩




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft