মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
প্রতারক চক্রের আগের সব ফোন বন্ধ নতুন নম্বর থেকে দু’লাখ টাকা দাবি
বিশেষ প্রতিনিধি
Published : Thursday, 13 August, 2020 at 12:38 AM

প্রতারক চক্রের আগের সব ফোন বন্ধ
নতুন নম্বর থেকে দু’লাখ টাকা দাবিগ্রামের কাগজের অপরাধমূলক সংবাদকে পুঁজি করে প্রতারণা ও অর্থবাণিজ্য করে বেড়ানো চক্রটি তাদের ডজনখানেক সিম বন্ধ করে দিয়েছে। নির্যাতিত পরিবার ও ভুক্তভোগীর সাথে প্রতারণার বিষয়ে সংবাদ প্রকাশিত হলে চক্রটি গা ঢাকা দেয়। তবে চক্রের এক সদস্য নতুন নম্বর থেকে এক মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের জমি ফিরিয়ে দেয়ার নামে দু’লাখ টাকা দাবি করেছে। তবে চক্রের দু’জন পুলিশের অভিযানে আটক হওয়ায় পালের গোদা চুপসে গেছে।
কখনও হেলাল শেখ, কখনও সেলিম রেজা নাম ধারণ করে। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের কম্পিউটারম্যান সেজে যশেরাঞ্চলে প্রতারণা শুরু করে। কখনও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের বিশেষ দায়িত্বপ্রাপ্ত লোক পরিচয়ও দেয়। গত মে ও জুন মাসে গ্রামের কাগজে প্রকাশিত ডজনখানেক অপরাধমূলক সংবাদকে পুঁজি করে প্রতারণা করে চক্রটি। পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের দিনই ঘটনাস্থল, এলাকার ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান কিংবা অন্য কোনো মাধ্যমে ভুক্তভোগী কিংবা নির্যাতিত ব্যক্তির মোবাইল নম্বর যোগাড় করে প্রতারণা শুরু করে। চক্রটি কয়েকটি প্রতারণা ও অর্থবাণিজ্যের ঘটনায় ০১৭১৮-৩০০১১৬, ০১৯৬৬-৬২৪০৩৬, ০১৭৯৮-৭৭১২৬০, ০১৭১৮-৩৬৩৩৩৯ এই নম্বরগুলোসহ ডজনখানেক নম্বর ব্যবহার করে।
গত মে মাসে গ্রামের কাগজে প্রকাশিত হয় যশোরের মুজিব সড়কে মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মালেক ও তার পরিবারকে উচ্ছেদ ষড়যন্ত্র ছলছে, ভাড়াটে সন্ত্রাসী ব্যবহার করা হচ্ছে। আতংকে সময় পার করছেন ভুক্তভোগী পরিবারটি। সংবাদটি পড়েই আব্দুল মালেকের মেয়ে নাসিমা মালেক নিরুকে ফোন করে ওই চক্রের প্রধান। নাম হেলাল শেখ বলে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের কম্পিউটারম্যান পরিচয় দেয়। জানায়, মন্ত্রীর মাধ্যমে ডিসি ও এসপিকে বলে বেদখল হয়ে যাওয়া জমি উদ্ধার করে দেবে। পর পর কয়েকদিন ওই প্রতারক ৮/১০ বার ফোন করে। এটা তার জন্য কোনো ব্যাপার নয়। একইভাবে শার্শার উলাশীর একটি পরিবারের উপর হামলার ঘটনায়  দুটি সংবাদ প্রকাশিত হলে  ওই চক্রের হোতা প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের লোক পরিচয় দিয়ে নির্যাতিত পরিবারের ভুক্তভোগী তরিকুল ইসলাম মিলনকে ফোন করে। এরপর একই স্টাইলে তার সব সমস্যার সমাধানের প্রতিশ্রুতি দেয়। এসপিকে ও স্থানীয় ফাঁড়ি ইনচার্জকে আসামি ও অভিযুক্ত পক্ষকে আটক করাসহ শায়েস্তা করে দেবে বলে টাকা দাবি করে। এভাবে ডজনখানেক ভূক্তভোগীর কাছ থেকে বিকাশের মাধ্যমে টাকা হাতিয়ে নেয়।
প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের লোকসহ বিভিন্ন সংস্থা ও বড় বড় ডিপার্টমেন্টের লোক পরিচয় দিয়ে তারা যথেচ্ছা করে বেড়াচ্ছিল। কয়েকদিন আগে  মুক্তিযোদ্ধার মেয়ে নাসিমা মালেক নিরুকে ফোন করে সেলিম রেজা পরিচয় দিয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের লোক দাবি করে। এবাবার সে ০১৭১৮-৪৩২৪২৩ এই নম্বর থেকে ফোন করে। জানায় তাদের জমি ফিরে পেতে দুই লাখ টাকা দিতে হবে।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft